Brown Sugar: রোদে বেরিয়ে পায়ে বিশ্রী ট্যান পড়ছে? এই বাদামি উপাদান দিয়ে ত্বকের জেল্লা ফেরান

Skin Care Tips: চিনি খেলে সুগার লেভেল বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। কিন্তু ত্বকের উপর ঘষলে, মৃত কোষ পরিষ্কার হয়ে যায়। যা ত্বকের জন্য উপযুক্ত। চিনির বদলে আজকাল অনেকেই রান্নাঘরে ব্রাউন সুগারকে প্রাধান্য দিচ্ছেন। চিনির মতো ব্রাউন সুগারও ত্বক পরিচর্যায় দারুণ কাজ আসে।

Brown Sugar: রোদে বেরিয়ে পায়ে বিশ্রী ট্যান পড়ছে? এই বাদামি উপাদান দিয়ে ত্বকের জেল্লা ফেরান
Follow Us:
| Updated on: Apr 03, 2024 | 8:45 AM

চিনি স্বাস্থ্যের জন্য বিষ। এমনকি চিনি খেলে বয়সের আগে ত্বকও বুড়িয়ে যেতে পারেন। কিন্তু চিনি মুখে মাখলে উল্টোটা হবে। অর্থাৎ, আপনার ত্বকের জেল্লা বেড়ে যাবে চিনির গুণে। আর যদি ব্রাউন সুগার মাখেন, আরও ত্বকের সৌন্দর্য উপচে পড়বে। আজকাল অনেকেই ত্বকের যত্নে বাড়িতেই স্ক্রাব বানিয়ে নিচ্ছে। সেখানেই কদর বেড়েছে চিনির। চিনি খেলে সুগার লেভেল বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। কিন্তু ত্বকের উপর ঘষলে, মৃত কোষ পরিষ্কার হয়ে যায়। যা ত্বকের জন্য উপযুক্ত। চিনির বদলে আজকাল অনেকেই রান্নাঘরে ব্রাউন সুগারকে প্রাধান্য দিচ্ছেন। চিনির মতো ব্রাউন সুগারও ত্বক পরিচর্যায় দারুণ কাজ আসে। মৃত কোষ পরিষ্কার করা থেকে শুরু করে ত্বকের জেল্লা বাড়িয়ে তুলতে দুর্দান্ত কাজ করে ব্রাউন সুগার। কোন কোন উপায়ে এই ব্রাউন সুগার দিয়ে ত্বকের দেখভাল করবেন, রইল টিপস।

এক্সফোলিয়েটর: সাধারণ চিনির তুলনায় ব্রাউন সুগার মৃত কোষ পরিষ্কার করতে আরও বেশি কার্যকর। ব্রাউন সুগার ত্বক থেকে সমস্ত ময়লা, মৃত কোষ পরিষ্কার করে দেয়। এতে ত্বক অনেক বেশি উজ্জ্বল হয়ে ওঠে। ব্রাউন সুগারের সঙ্গে নারকেল তেল মিশিয়ে স্ক্রাব বানিয়ে নিতে পারেন।

ত্বকের স্বাস্থ্য বজায় রাখে: ব্রাউন সুগারের মধ্যে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান ও গ্লাইকোলিক অ্যাসিড রয়েছে। এগুলো ত্বকের স্বাস্থ্য বজায় রাখে। পাশাপাশি এটি ত্বককে অনেক বেশি ময়েশ্চারাইজ করে এবং ক্ষতিকারক পদার্থের হাত থেকে সুরক্ষিত রাখে। ব্রাউন সুগারের সঙ্গে অলিভ অয়েল ও কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে ত্বকের উপর মাখুন। ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।

এই খবরটিও পড়ুন

ট্যান দূর করে: এই রোদে বেরোলে গায়ে ট্যান পড়তে বাধ্য। ট্যান রিমুভাল প্যাক সবসময় কার্যকর হয় না। কিন্তু ব্রাউন সুগার ব্যবহার করলে ট্যান উঠতে বাধ্য। টমেটোর রসের সঙ্গে ব্রাউন সুগার মিশিয়ে ত্বকের উপর ঘষতে থাকুন। টমেটো রসে ব্লিচিং উপাদান রয়েছে, যা ট্যান দূর করতে সহায়ক।

ঠোঁট ফাটা প্রতিরোধ করে: এমন অনেকেই রয়েছেন, যাঁরা গরমেও ঠোঁট ফাটার সমস্যায় ভোগেন। এক্ষেত্রে ব্রাউন সুগারের সঙ্গে মধু মিশিয়ে ঠোঁটের উপর লাগান। ব্রাশ দিয়ে স্ক্রাব করুন। তারপর ধুয়ে ফেলুন। ঠোঁট না ফাটলেও এই টোটকা কাজে লাগাতে পারেন। রোজ লিপস্টিক পরার অভ্যাস থাকলে এই টোটকা ঠোঁটের কোমলতা বজায় রাখবে।