দেখুন গ্যালারি: ৭ বলিউড তারকা যাঁরা অভিনয়ে কেরিয়ার গড়তে ছেড়েছেন চাকরি!

Bollywood: কেরিয়ার হতে পারত অন্য কিছু, তবে এই বলি-তারকা বেছে নিয়েছেন অভিনয়কে। আজকের গ্যালারিতে চিনে নিন সেই ৭ তারকাকে।

  • Updated On - 11:50 am, Sat, 17 July 21 Edited By: শুভঙ্কর চক্রবর্তী
1/7
ব্যাংককে যাওয়ার আগে তাইকোন্ডোতে অক্ষয়ের ছিল ব্ল্যাক বেল্ট। ব্যাংককে সে সময়, তিনি রাস্তায় রান্না এবং মার্শাল আর্ট প্রশিক্ষণের মতো কাজ করেন। পরে তিনি মুম্বইতে স্থানান্তরিত হন এবং মার্শাল আর্ট পড়ানো শুরু করেন। তাঁর এক ছাত্র তাঁকে পরামর্শ দিয়েছিলেন যে তাঁর মডেলিং করা উচিত। কয়েক মাস পর, ফিল্ম নির্মাতা প্রমোদ চক্রবর্তী তাকে ‘দিদার’-এ মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করার প্রস্তাব দেন। বর্তমানে অক্ষয় হলেন বলিউডের অন্যতম সফল অভিনেতা যিনি প্রতি বছর বেশ হিট ফিল্ম উপহার দিয়ে চলেছেন।
ব্যাংককে যাওয়ার আগে তাইকোন্ডোতে অক্ষয়ের ছিল ব্ল্যাক বেল্ট। ব্যাংককে সে সময়, তিনি রাস্তায় রান্না এবং মার্শাল আর্ট প্রশিক্ষণের মতো কাজ করেন। পরে তিনি মুম্বইতে স্থানান্তরিত হন এবং মার্শাল আর্ট পড়ানো শুরু করেন। তাঁর এক ছাত্র তাঁকে পরামর্শ দিয়েছিলেন যে তাঁর মডেলিং করা উচিত। কয়েক মাস পর, ফিল্ম নির্মাতা প্রমোদ চক্রবর্তী তাকে ‘দিদার’-এ মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করার প্রস্তাব দেন। বর্তমানে অক্ষয় হলেন বলিউডের অন্যতম সফল অভিনেতা যিনি প্রতি বছর বেশ হিট ফিল্ম উপহার দিয়ে চলেছেন।
2/7
রণবীর সিং সিনেমার জন্য জন্মেছিলেন। তিনিও তা জানতেন। তবে, তিনি প্রথমে তাঁর পড়াশোনা শেষ করেছিলেন। মুম্বাইয়ের এইচ.আর. কলেজ অফ কমার্স অ্যান্ড ইকোনমিক্স থেকে স্নাতকতা শেষ করে তিনি ব্লুমিংটন ইন্ডিয়ানা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক (আর্টস) ডিগ্রি অর্জনের জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যান। ২০০৭ সালে ফিরে আসার পরে, তিনি একটি বিজ্ঞাপনী সংস্থায় কপিরাইটার হিসাবে কাজ করন অবশেষে তিনি অনুষ্কা শর্মার বিপরীতে যশরাজ ফিল্মসের ‘ব্যান্ড বাজা বারাত’ (২০১০) ছবিতে ব্রেক পান।
রণবীর সিং সিনেমার জন্য জন্মেছিলেন। তিনিও তা জানতেন। তবে, তিনি প্রথমে তাঁর পড়াশোনা শেষ করেছিলেন। মুম্বাইয়ের এইচ.আর. কলেজ অফ কমার্স অ্যান্ড ইকোনমিক্স থেকে স্নাতকতা শেষ করে তিনি ব্লুমিংটন ইন্ডিয়ানা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক (আর্টস) ডিগ্রি অর্জনের জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যান। ২০০৭ সালে ফিরে আসার পরে, তিনি একটি বিজ্ঞাপনী সংস্থায় কপিরাইটার হিসাবে কাজ করন অবশেষে তিনি অনুষ্কা শর্মার বিপরীতে যশরাজ ফিল্মসের ‘ব্যান্ড বাজা বারাত’ (২০১০) ছবিতে ব্রেক পান।
3/7
‘পিঙ্ক’, ‘মুলক’, ‘থপ্পড়’-এর মতো ছবিতে ব্যতিক্রমী অভিনয়ের মাধ্যমে, তাপসী পান্নু নিজেকে বলিউডে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। তবে অনেকে জানেন না যে এর আগে তিনি নয়াদিল্লির গুরু তেজ বাহাদুর ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি থেকে কম্পিউটার সায়েন্স ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে স্নাতক শেষ করে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসাবে কাজ করেছিলেন। তিনি ‘গেট গর্জিয়াস’ নামে একটি চ্যানেলের শোয়ের জন্য অডিশন দিয়েছিলেন যা তাকে বিনোদনের ইন্ডাস্ট্রিতে নিয়ে এসেছে। তিনি তেলুগু চলচ্চিত্র, ‘ঝুম্মন্ডি নাদম’ (২০১০) ছবির মাধ্যমে আত্মপ্রকাশ করেন।
‘পিঙ্ক’, ‘মুলক’, ‘থপ্পড়’-এর মতো ছবিতে ব্যতিক্রমী অভিনয়ের মাধ্যমে, তাপসী পান্নু নিজেকে বলিউডে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। তবে অনেকে জানেন না যে এর আগে তিনি নয়াদিল্লির গুরু তেজ বাহাদুর ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি থেকে কম্পিউটার সায়েন্স ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে স্নাতক শেষ করে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসাবে কাজ করেছিলেন। তিনি ‘গেট গর্জিয়াস’ নামে একটি চ্যানেলের শোয়ের জন্য অডিশন দিয়েছিলেন যা তাকে বিনোদনের ইন্ডাস্ট্রিতে নিয়ে এসেছে। তিনি তেলুগু চলচ্চিত্র, ‘ঝুম্মন্ডি নাদম’ (২০১০) ছবির মাধ্যমে আত্মপ্রকাশ করেন।
4/7
মুম্বাই এডুকেশনাল ট্রাস্ট থেকে ম্যানেজমেন্ট সায়েন্সে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জনের পরে জন আব্রাহাম মিডিয়া প্ল্যানার হিসাবে একটি বিজ্ঞাপন সংস্থার হয়ে কাজ করেছিলেন। অতিরিক্ত উপার্জনের জন্য, তিনি দ্বিতীয় কাজ হিসাবে মডেলিংকে বেছে নেন। আসলে, তাঁর মডেলিং তাঁকে ফিল্ম নির্মাতাদের নজরে আনেন। শীঘ্রই ফিল্ম প্রস্তাবের বন্যা হয়ে গিয়েছিল তাঁর জীবনে। তিনি ‘জিসম’ (২০০৩) ছবির মাধ্যমে আত্মপ্রকাশ করেন।
মুম্বাই এডুকেশনাল ট্রাস্ট থেকে ম্যানেজমেন্ট সায়েন্সে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জনের পরে জন আব্রাহাম মিডিয়া প্ল্যানার হিসাবে একটি বিজ্ঞাপন সংস্থার হয়ে কাজ করেছিলেন। অতিরিক্ত উপার্জনের জন্য, তিনি দ্বিতীয় কাজ হিসাবে মডেলিংকে বেছে নেন। আসলে, তাঁর মডেলিং তাঁকে ফিল্ম নির্মাতাদের নজরে আনেন। শীঘ্রই ফিল্ম প্রস্তাবের বন্যা হয়ে গিয়েছিল তাঁর জীবনে। তিনি ‘জিসম’ (২০০৩) ছবির মাধ্যমে আত্মপ্রকাশ করেন।
5/7
ক্যামেরার সামনে আসার আগে পরিণীতি চোপড়ার এক দীর্ঘ যাত্রা ছিল। ১৭ বছর বয়সে তিনি যুক্তরাজ্যের ম্যানচেস্টার বিজনেস স্কুল থেকে ব্যবসায়, ফিন্যান্স ও অর্থনীতি নিয়ে ট্রিপল অনার্স ডিগ্রি অর্জন করেছিলেন। পরে তিনি ক্যাটারিং বিভাগের টিম লিডার হিসাবে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ফুটবল ক্লাবের সঙ্গে কাজ করতে যান। তার পরে, তিনি যশ রাজ ফিল্মসের বিপণন বিভাগের সঙ্গে জনসংযোগ পরামর্শক হিসাবে চাকরি করেন। শেষে একই প্রযোজনা সংস্থার ছবি ‘লেডিজ ভার্সেস রিকি বেহেল’ (২০১১) ছবির মাধ্যমে বলিউডে পা রাখেন।
ক্যামেরার সামনে আসার আগে পরিণীতি চোপড়ার এক দীর্ঘ যাত্রা ছিল। ১৭ বছর বয়সে তিনি যুক্তরাজ্যের ম্যানচেস্টার বিজনেস স্কুল থেকে ব্যবসায়, ফিন্যান্স ও অর্থনীতি নিয়ে ট্রিপল অনার্স ডিগ্রি অর্জন করেছিলেন। পরে তিনি ক্যাটারিং বিভাগের টিম লিডার হিসাবে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ফুটবল ক্লাবের সঙ্গে কাজ করতে যান। তার পরে, তিনি যশ রাজ ফিল্মসের বিপণন বিভাগের সঙ্গে জনসংযোগ পরামর্শক হিসাবে চাকরি করেন। শেষে একই প্রযোজনা সংস্থার ছবি ‘লেডিজ ভার্সেস রিকি বেহেল’ (২০১১) ছবির মাধ্যমে বলিউডে পা রাখেন।
6/7
আপনি কি জানেন যে রীতেশ দেশমুখের ‘রিভোলিউশন’ নামে একটি আর্কিটেকচারাল ফার্ম ছিল? অভিনেতা আর্কিটেকচারে কেরিয়ার চেয়েছিলেন এবং এর জন্য প্রশিক্ষণও নেন। কমলা রাহেজা বিদ্যানিধি ইনস্টিটিউট থেকে আর্কিটেকচারে স্নাতকতা অর্জন করার পরে তিনি নিউইয়র্কের একটি আর্কিটেকচারাল ফার্মে কাজ করেছিলেন। তিনি নিউ ইয়র্কের নামকরা ‘দ্য লি স্ট্রাসবার্গ’ থিয়েটার ইনস্টিটিউটে থিয়েটারের প্রশিক্ষণও নিয়েছিলেন।
আপনি কি জানেন যে রীতেশ দেশমুখের ‘রিভোলিউশন’ নামে একটি আর্কিটেকচারাল ফার্ম ছিল? অভিনেতা আর্কিটেকচারে কেরিয়ার চেয়েছিলেন এবং এর জন্য প্রশিক্ষণও নেন। কমলা রাহেজা বিদ্যানিধি ইনস্টিটিউট থেকে আর্কিটেকচারে স্নাতকতা অর্জন করার পরে তিনি নিউইয়র্কের একটি আর্কিটেকচারাল ফার্মে কাজ করেছিলেন। তিনি নিউ ইয়র্কের নামকরা ‘দ্য লি স্ট্রাসবার্গ’ থিয়েটার ইনস্টিটিউটে থিয়েটারের প্রশিক্ষণও নিয়েছিলেন।
7/7
মা শর্মিলা ঠাকুর এবং ভাই সইফ আলি খান ছিলেন অভিনেতা। কিন্তু সোহার বাবা-মা একেবারেই চাননি তিনি অভিনয়কে পেশা হিসেবে গ্রহণ করুক। সোহার অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের বালিওল কলেজ থেকে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেছেন। তারপরে তিনি লন্ডন স্কুল অফ ইকোনমিক্স অ্যান্ড পলিটিকাল সায়েন্স থেকে আন্তর্জাতিক সম্পর্কের বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেছেন। তিনি তাঁর বইতে লিখেছেন, তিনি একজন বিনিয়োগ ব্যঙ্কার হিসেবে কাজ করেছিলেন এবং যখন তাঁকে ফিল্মের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল তখন তিনি গোপনে চাকরিটি ছেড়ে দেন।
মা শর্মিলা ঠাকুর এবং ভাই সইফ আলি খান ছিলেন অভিনেতা। কিন্তু সোহার বাবা-মা একেবারেই চাননি তিনি অভিনয়কে পেশা হিসেবে গ্রহণ করুক। সোহার অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের বালিওল কলেজ থেকে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেছেন। তারপরে তিনি লন্ডন স্কুল অফ ইকোনমিক্স অ্যান্ড পলিটিকাল সায়েন্স থেকে আন্তর্জাতিক সম্পর্কের বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেছেন। তিনি তাঁর বইতে লিখেছেন, তিনি একজন বিনিয়োগ ব্যঙ্কার হিসেবে কাজ করেছিলেন এবং যখন তাঁকে ফিল্মের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল তখন তিনি গোপনে চাকরিটি ছেড়ে দেন।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla