Virat Kohli Test Debut: টেস্ট অভিষেকের ১১ বছর পূর্তি, একঝলকে বিরাট কোহলির কেরিয়ার

ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক বিরাট কোহলি (Virat Kohli) আজ, সোমবার (২০ জুন) টেস্ট ক্রিকেটে ১১ বছর পূর্ণ করে ফেললেন। ২০১১ সালে আজকের দিনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে গিয়ে টেস্ট অভিষেক হয়েছিল কোহলির। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে জামাইকাতে অভিষেক টেস্ট খেলেছিলেন ভিকে। তার পর থেকে তিনি ভেঙেছেন ও গড়েছেন একাধিক রেকর্ড।

Jun 20, 2022 | 2:20 PM
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Sanghamitra Chakraborty

Jun 20, 2022 | 2:20 PM

বিরাট কোহলির টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক - ভারতের হয়ে একদিনের ক্রিকেটে অভিষেকের প্রায় তিন বছর পরে, ২০১১ সালে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক হয় বিরাট কোহলির। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ২০১১ সালের টেস্ট সিরিজে ভারতের কিংবদন্তি ক্রিকেটার সচিন তেন্ডুলকর বিশ্রামে ছিলেন। যার ফলে ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন বিরাট। কিন্তু অভিষেক ম্যাচ স্মরণীয় করে রাখতে পারেননি কোহলি। জামাইকায় টেস্ট কেরিয়ারের প্রথম ম্যাচে ১০ বল খেলে মাত্র ৪ রান করে আউট হন তিনি। দিল্লির তরুণ ব্যাটার ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে সেই সিরিজে ৩টি ম্যাচে খেললেও একটিও হাফসেঞ্চুরি পাননি। ৫টি ইনিংস মিলিয়ে মোট ৭৬ রান করেছিলেন বিরাট।

বিরাট কোহলির টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক - ভারতের হয়ে একদিনের ক্রিকেটে অভিষেকের প্রায় তিন বছর পরে, ২০১১ সালে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক হয় বিরাট কোহলির। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ২০১১ সালের টেস্ট সিরিজে ভারতের কিংবদন্তি ক্রিকেটার সচিন তেন্ডুলকর বিশ্রামে ছিলেন। যার ফলে ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন বিরাট। কিন্তু অভিষেক ম্যাচ স্মরণীয় করে রাখতে পারেননি কোহলি। জামাইকায় টেস্ট কেরিয়ারের প্রথম ম্যাচে ১০ বল খেলে মাত্র ৪ রান করে আউট হন তিনি। দিল্লির তরুণ ব্যাটার ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে সেই সিরিজে ৩টি ম্যাচে খেললেও একটিও হাফসেঞ্চুরি পাননি। ৫টি ইনিংস মিলিয়ে মোট ৭৬ রান করেছিলেন বিরাট।

1 / 6
বিরাট কোহলির প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি - ২০১১ সালে অভিষেক টেস্ট ম্যাচ খেলার পর কেরিয়েরের ১৪তম ইনিংসে সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছিলেন কোহলি। ২০১২ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম দুটি টেস্টে মোট ৪৩ রান করেছিলেন বিরাট। কিন্তু অ্যাডিলেডে সিরিজের শেষ টেস্ট ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ছয় নম্বরে ব্যাট করে ১১৬ রানের ঝকঝকে ইনিংস উপহার দিয়েছিলেন বিরাট।

বিরাট কোহলির প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি - ২০১১ সালে অভিষেক টেস্ট ম্যাচ খেলার পর কেরিয়েরের ১৪তম ইনিংসে সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছিলেন কোহলি। ২০১২ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম দুটি টেস্টে মোট ৪৩ রান করেছিলেন বিরাট। কিন্তু অ্যাডিলেডে সিরিজের শেষ টেস্ট ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ছয় নম্বরে ব্যাট করে ১১৬ রানের ঝকঝকে ইনিংস উপহার দিয়েছিলেন বিরাট।

2 / 6
বিরাট কোহলির প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি - ২০১১ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টেস্ট অভিষেক স্মরণীয় করে রাখতে না পারলেও ডাবল সেঞ্চুরিটা কোহলির এসেছিল ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধেই। ২০১৬ সালের ২১ জুলাই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে কেরিয়ারের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন কোহলি। ২৩৮ বল খেলে ২০০ রান করেছিলেন তৎকালীন ভারত অধিনায়ক বিরাট। বিরাটের দ্বিশতরানের ইনিংস সাজানো ছিল ২৪টি চার দিয়ে।

বিরাট কোহলির প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি - ২০১১ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টেস্ট অভিষেক স্মরণীয় করে রাখতে না পারলেও ডাবল সেঞ্চুরিটা কোহলির এসেছিল ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধেই। ২০১৬ সালের ২১ জুলাই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে কেরিয়ারের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন কোহলি। ২৩৮ বল খেলে ২০০ রান করেছিলেন তৎকালীন ভারত অধিনায়ক বিরাট। বিরাটের দ্বিশতরানের ইনিংস সাজানো ছিল ২৪টি চার দিয়ে।

3 / 6
২০১৬ সালে মুম্বইয়ে বিরাট কোহলির ২৩৫ রানের ইনিংস - ২০১৬ সালে ইংল্যান্ড পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজের জন্য ভারতে এসেছিল। মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে এক ম্যাচে কোহলি ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন। জেমস অ্যান্ডারসন, ক্রিস ওকস, জেক বল, বেন স্টোকস, মইন আলিদের নাকানিচোবানি খাইয়েছিলেন কোহলি। সেই ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে ইংল্যান্ড ৪০০ রান করেছিল। কিন্তু কোহলির ২৩৫ রানের ওপর ভর করে, ভারত ৬৩১ রান স্কোরবোর্ডে তুলেছিল এবং ইনিংস ব্যবধানে ম্যাচ জিতেছিল টিম ইন্ডিয়া।

২০১৬ সালে মুম্বইয়ে বিরাট কোহলির ২৩৫ রানের ইনিংস - ২০১৬ সালে ইংল্যান্ড পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজের জন্য ভারতে এসেছিল। মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে এক ম্যাচে কোহলি ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন। জেমস অ্যান্ডারসন, ক্রিস ওকস, জেক বল, বেন স্টোকস, মইন আলিদের নাকানিচোবানি খাইয়েছিলেন কোহলি। সেই ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে ইংল্যান্ড ৪০০ রান করেছিল। কিন্তু কোহলির ২৩৫ রানের ওপর ভর করে, ভারত ৬৩১ রান স্কোরবোর্ডে তুলেছিল এবং ইনিংস ব্যবধানে ম্যাচ জিতেছিল টিম ইন্ডিয়া।

4 / 6
 দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ২০১৯ সালে পুনেতে বিরাট কোহলির ২৫৪ রানের ইনিংস - ২০১৯ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা এসেছিল ভারত সফরে। প্রোটিয়াদের ওই সফর বিরাট কোহলির জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ সফর ছিল। ওই সিরিজে কোহলি নিজের সর্বোচ্চ টেস্ট রান করেছিলেন। ভারত প্রথমে ব্যাটিং করে ৬০১ রান তুলেছিল। তার মধ্যে কোহলি ৩৩৬ বলে ২৫৪ রানের নট আউট ইনিংস খেলেছিলেন। কোহলির সেই ডাবল সেঞ্চুরি সাজানো ছিল ৩৩টি চার ও ২টি ছয় দিয়ে। সেই ম্যাচে ভারত এক ইনিংস ও ১৩৭ রানে জিতেছিল।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ২০১৯ সালে পুনেতে বিরাট কোহলির ২৫৪ রানের ইনিংস - ২০১৯ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা এসেছিল ভারত সফরে। প্রোটিয়াদের ওই সফর বিরাট কোহলির জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ সফর ছিল। ওই সিরিজে কোহলি নিজের সর্বোচ্চ টেস্ট রান করেছিলেন। ভারত প্রথমে ব্যাটিং করে ৬০১ রান তুলেছিল। তার মধ্যে কোহলি ৩৩৬ বলে ২৫৪ রানের নট আউট ইনিংস খেলেছিলেন। কোহলির সেই ডাবল সেঞ্চুরি সাজানো ছিল ৩৩টি চার ও ২টি ছয় দিয়ে। সেই ম্যাচে ভারত এক ইনিংস ও ১৩৭ রানে জিতেছিল।

5 / 6
বিরাট কোহলির শেষ টেস্ট সেঞ্চুরি - ২০১৯ সালের ২২ নভেম্বর বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ভারতের প্রথম গোলাপি বল টেস্টে শেষ বার সেঞ্চুরি করেছিলেন বিরাট কোহলি। সেই ম্যাচে ১৯৪ বল থেলে ১৩৬ রান করেছিলেন ভিকে। বিরাটের শেষ সেঞ্চুরি সাজানো ছিল ১৮টি চার দিয়ে। ওই টেস্টে কোহলির ভারত এক ইনিংস ও ৪৬ রানে জিতেছিল। তারপর থেকে আর ভিকের ব্যাটে নেই শতরান।

বিরাট কোহলির শেষ টেস্ট সেঞ্চুরি - ২০১৯ সালের ২২ নভেম্বর বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ভারতের প্রথম গোলাপি বল টেস্টে শেষ বার সেঞ্চুরি করেছিলেন বিরাট কোহলি। সেই ম্যাচে ১৯৪ বল থেলে ১৩৬ রান করেছিলেন ভিকে। বিরাটের শেষ সেঞ্চুরি সাজানো ছিল ১৮টি চার দিয়ে। ওই টেস্টে কোহলির ভারত এক ইনিংস ও ৪৬ রানে জিতেছিল। তারপর থেকে আর ভিকের ব্যাটে নেই শতরান।

6 / 6

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA