‘চুমু দিলে ব্যথা সেরে যাবে’, পূজারাকে মেয়ে অদিতি

Sanghamitra Chakraborty

Sanghamitra Chakraborty |

Updated on: Jan 21, 2021 | 2:56 PM

গাব্বায় পঞ্চম দিন ১১বার অস্ট্রেলিয়ান পেসারদের বল লেগেছিল চেতেশ্বর পূজারার গায়ে। তবু টলানো যায়নি পূজারাকে।

'চুমু দিলে ব্যথা সেরে যাবে', পূজারাকে মেয়ে অদিতি
'চুমু দিলে ব্যথা সেরে যাবে', পূজারাকে মেয়ে অদিতি

ব্রিসবেন: ২১১ বলে ৫৬ রানের ইনিংসটা ভারতের গাব্বা-জয়ের ভিত গড়ে দিয়েছিল। ওই ইনিংস নিয়ে এত চর্চার কারণ, ১১বার অস্ট্রেলিয়ান পেসারদের বল লেগেছিল চেতেশ্বর পূজারার (Cheteshwar Pujara) গায়ে। কখনও হাতে, কখনও হেলমেটে, কখনও আঙুলে কিংবা পাঁজরে। তবু টলানো যায়নি পূজারাকে। ক্ষতবিক্ষত ভারতীয় ব্যাটসম্যান টিমের পরিকল্পনা সফল করার জন্য মাটি কামড়ে পড়েছিলেন গাব্বায়।

আরও পড়ুন: ধোনির সঙ্গে তুলনা করবেন না, আর্জি পন্থের

অস্ট্রেলিয়ায় যখন পূজারা অজি বোলারদের লাল বলের ছোবলে বিপর্যস্ত, তখন তাঁর বাড়িতে কী ঘটছিল। পূজারার স্ত্রী ও মেয়ে খেলা দেখছিল। ২ বছরের মেয়ে অদিতিকে টিভির সামনে থেকে সরিয়ে দিচ্ছিলেন পূজা। পরে বাবার সঙ্গে কথা হয়েছিল, বাবা পূজারাকে তার ওষুধের কথাও জানিয়ে দিয়েছে অদিতি। বলেছে, ‘তুমি বাড়ি এসো। যেখানে যেখানে চোট লেগেছে তোমার, আমি চুমু দিয়ে দেব। দেখবে, ব্যথা ভালো হয়ে গিয়েছে।’ পূজারাও হাসতে হাসতে যা নিয়ে বলেছেন, ‘আসলে ও পড়ে গেলে আমি ওর ব্যথার জায়গায় চুমু দিই। সেই কারণেই ও বিশ্বাস করে চুমু দিলে সব ব্যথা সেরে যায়।’

আরও পড়ুন: প্রিমিয়ার লিগের শীর্ষেই ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড

ছোট্ট অদিতি জানে না, কোনও পেসারের লাল বলের ছোবল খেলে কতটা ব্যথা লাগে। বুক, পিঠ, ঘাড় কিংবা আঙুলের স্ক্যানও করাতে হয়। অনেক সময় চোট মাঠের বাইরেও ঠেলে দেয় ক্রিকেটারকে। ছোট্ট অদিতি না-ই জানুক, ক্রিকেট দুনিয়া জানে। আর তাই গাব্বায় পঞ্চম দিন পূজারার লড়াইটা চিরকাল মনে রাখবে ভারতীয় ক্রিকেট।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla