iQoo Z3: তিনটি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে ভারতে লঞ্চ হয়েছে ভিভোর সাব-ব্র্যান্ডের এই ফোন

এই ফোনের ব্যাটারি ৪৪০০mAh। তার সঙ্গে রয়েছে ৫৫ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট। এছাড়াও এই ফোনে রয়েছে একটি সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার।

iQoo Z3: তিনটি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে ভারতে লঞ্চ হয়েছে ভিভোর সাব-ব্র্যান্ডের এই ফোন
ভারতে এল iQoo Z3 ফোন।

ভিভোর সাব-ব্র্যান্ড iQoo মঙ্গলবার ৮ জুন ভার্চুয়াল ইভেন্টের মাধ্যমে তাদের নতুন স্মার্টফোন iQoo Z3 লঞ্চ করেছে। এই ফোনে রয়েছে Qualcomm Snapdragon 768G প্রসেসর। এছাড়াও রয়েছে একটি ট্রিপল রেয়ার ক্যামেরা সেটআপ। এই ফোনের ব্যাটারি ৪৪০০mAh। তার সঙ্গে রয়েছে ৫৫ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট। এছাড়াও এই ফোনে রয়েছে একটি সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার। মার্চ মাসে চিনে লঞ্চ হয়েছিল iQoo Z3 ফোন। জানা গিয়েছে, এই ফোনের ব্যাক ক্যামেরায় রয়েছে ৬৪ মেগাপিক্সেলের একটি মেন ক্যামেরা সেনসর।

ভারতে iQoo Z3 ফোনের দাম কত?

মোট তিনটি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে এই ফোন লঞ্চ হয়েছে ভারতে। ৬ জিবি র‍্যাম এবং ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ১৯,৯৯০ টাকা। ৮ জিবি র‍্যাম এবং ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ২০,৯৯০ টাকা। ৮ জিবি র‍্যাম এবং ২৫৬ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ২২,৯৯০ টাকা।

জানা গিয়েছে, অ্যামাজন ইন্ডিয়া এবং iQoo- এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে এই ফোন কিনতে পাওয়া যাবে। Ace Black এবং Cyber Blue রঙে পাওয়া যাবে এই ফোন। ক্রেতাদের জন্য থাকছে কিছু সুবিধাও। আইসিআইসিআই ব্যাঙ্কের ডেবিট বা কার্ড দিয়ে ফোন কিনলে ১৫০০ টাকা ছাড় পাবেন ক্রেতারা। এর পাশাপাশি অ্যামাজনের কুপনে এক হাজার টাকা পর্যন্ত ছার পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। স্পেশ্যাল লঞ্চ অফার হিসেবে এক সপ্তাহের জন্য থাকছে ‘নো কোয়েশ্চেন আস্কড’ রিটার্ন পলিসি। এক্ষেত্রে ক্রেতা ১– শতাংশ টাকা ফেরত পাবেন। এছাড়া অ্যামাজন ইন্ডিয়ার তরফে ৯ মাস পর্যন্ত নো-কস্ট ইএমআই- এর অপশন থাকছে।

iQoo Z3 ফোনের বিভিন্ন ফিচার

১। এই ফোনে রয়েছে FunTouch OS ১১.১, বেসড অন অ্যানয়াড্রয়েড ১১। থাকছে ডুয়াল সিমের (ন্যানো) স্লট। এই ফোনে শূন্য থেকে ৫০ শতাংশ চার্জ হয় মাত্র ১৯ মিনিটে। এমনটাই দাবি করেছে ফোন নির্মাণ সংস্থা। সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার রয়েছে এই ফোনে।

২। iQoo Z3 ফোনে রয়েছে ৬.৫৮ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস এলসিডি ডিসপ্লে, যার রিফ্রেশ রেট ১২০Hz। ৮ জিবি পর্যন্ত LPDDR4x  র‍্যাম রয়েছে এই ফোনে। তার সঙ্গে ২৫৬ জিবি পর্যন্ত UFS 2.2  স্টোরেজ রয়েছে। মাইক্রো এসডি কার্ড দিয়ে ১ টিবি পর্যন্ত এই স্টোরেজ বাড়ানো সম্ভব।

৩। এই ফোনের ট্রিপল রেয়ার ক্যামেরা সেটআপে ৬৪ মেগাপিক্সেলের মেন সেনসর ছাড়াও রয়েছে একটি ৮ মেগাপিক্সেলের আলট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল সেনসর, একটি ২ মেগপিক্সেলের সেনসর। এছাড়াও রয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেলের সেলফি শুটার। এই ফোনের ক্যামেরায় একাধিক উন্নত মোড যেমন- নাইট মোড, পোর্ট্রেট, ফটগ্রাফি, ভিডিয়ো, প্যানোরামা, লাইভ ফটো, স্লো-মোশন, টাইম ল্যাপস, প্রো মোড, এআর স্টিকার ও আরও অনেক কিছু রয়েছে।

আরও পড়ুন- পোকো এম৩ প্রো ৫জি: ভারতে সদ্য লঞ্চ হয়েছে এই ফোন, দেখে নিন দাম-ফিচার

৪। কানেকটিভিটি অপশন হিসেবে ৫জি পরিষেবার পাশাপাশি রয়েছে ৪জি এলটিই- ও। এছাড়া ডুয়াল ব্যান্ড ওয়াই-ফাই ৮০২.১১ এসি, ব্লুটুথ ভি ৫.১, জিপিএস এবং একটি টাইপ-সি ইউএসবি পোর্ট রয়েছে চার্জ দেওয়ার রয়েছে।