Tripura By Poll: বিপ্লব দেব আসলে বিগ ফ্লপ দেব, মানুষের হৃদয়ে বিজেপি নেই: অভিষেক

"তৃণমূল প্রথম দিন থেকে জনতার পাশে ছিল। আগামীদিনেও থাকবে। তৃণমূল কারও কাছে মেরুদণ্ড বিক্রি করে না।"

TV9 Bangla Digital

| Edited By: সৌরভ পাল

Jun 20, 2022 | 7:19 PM

সুরমা: ফাইনালের আগে সেমিফাইনাল। ত্রিপুরায় কার্যত অগ্নিপরীক্ষায় তৃণমূল। জোড়াফুলের হয়ে পড়শি রাজ্যে নেতৃত্বে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। আগামী ২৩ জুন ত্রিপুরার ৪ বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচন। ভোট হবে যুবরাজনগর, আগরতলা, বড়দোয়ালি ও সুরমা কেন্দ্রে। ২৬ জুন ফল ঘোষণা। তার আগে দলীয় প্রার্থীদের হয়ে প্রচারে অভিষেক। মিছিল, সাংবাদিক সম্মেলন এবং বিধানসভা কেন্দ্রিক প্রচারসভা — মূলত এই তিন আঙ্গিকেই নিজের সফরসূচি সাজিয়েছেন তৃণমূলের ‘যুবরাজ’।

শেষ লগ্নের প্রচারে আজ যেমন সুরমায় গিয়েছিলেন অভিষেক। সেখানেই বিজেপির বিরুদ্ধে বেশ আক্রমণাত্মক দেখাল তাঁকে। কোনও রাখঢাক না করেই, অভিষেক নিশানা করলেন ত্রিপুরার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব কে। তাঁর কথায়, “বিপ্লব দেব নয় উঁনি বিগ ফ্লপ দেব”। রাজ্যে শাসকের ব্যর্থতার কথা উল্লেখ করে ডাবল ইঞ্জিন সরকারকেও বিঁধলেন নিজস্ব ভঙ্গিতে। একই সঙ্গে সামনে রাখলেন বাংলার সিঙ্গল ইঞ্জিন সরকারের সাফল্যকেও।

এদিন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “আগরতলায় এক ঘণ্টা বৃষ্টি হলে জল জমে যায়। রাস্তার এমন অবস্থা যে অন্তঃসত্ত্বাদের কাঁধে করে নিয়ে যেতে হয়। ত্রিপুরার মানুষ চিকিৎসা করতে কলকাতায় ছোটেন। ২৪৫ কোটি টাকা দিয়ে আগরতলায় স্মার্ট সিটি তৈরি করে এই হাল।” সুরমায় জনসভায় দাঁড়িয়ে ত্রিপুরার মানুষের কাছে তাঁর আবেদন, “গণতন্ত্রে গণদেবতাই শেষ কথা। সিপিএম, কংগ্রেস নয় বিজেপি বিরোধী ভোট তৃণমূলকে দিন।” তৃণমূলই যে ত্রিপুরায় গণতন্ত্রকে পুনঃপ্রতিষ্ঠিত করতে পারবে, সেই দাবি জানিয়ে অভিষেক বলেন, “তৃণমূল প্রথম দিন থেকে জনতার পাশে ছিল। আগামীদিনেও থাকবে। তৃণমূল কারও কাছে মেরুদণ্ড বিক্রি করে না।” তাঁর অভিযোগ, “ত্রিপুরার শাসকদলের শক্তি বাড়াচ্ছে গুন্ডারা। আর জনতা রয়েছে তৃণমূলের সঙ্গে। দেশে সবচেয়ে বেশি রাজনৈতিক হিংসা চলছে ত্রিপুরায়। বিজেপিকে উৎখাত করতেই হবে। রাজনৈতিক পরিবর্তন না হলে মানুষেরই বিপদ।”

Follow us on

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA