দেব

দেব

জন্মগত নাম দীপক অধিকারী। তবে আমজনতার কাছে তিনি পরিচিত দেব হিসেবেই। বাংলার প্রথমসারির অভিনেতা তিনি। এ ছাড়াও তাঁর অপর পরিচয় তিনি ঘাটালের তৃণমূল সাংসদ। ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলে কংগ্রেসের হয়ে অংশ নিয়ে ব্যাপক ভোটে জয়লাভ করেছিলেন তিনি। ছোটবেলা তাঁর কেটেছে মামাবাড়ি চন্দ্রকোণায়। এর পর বাবার ব্যবসার কারণে মুম্বই চলে যান দেব। বান্দ্রার পুরোষত্তম হাই স্কুল ও পরবর্তীতে পুনের বিদ্যাপিঠ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিপ্লোমা কোর্স করেন। ছোট থেকেই ইচ্ছা ছিল অভিনেতা হওয়ার। নমিত কাপুরের অভিনয় স্কুল থেকে প্রশিক্ষণও নেন তিনি। সিনে দুনিয়ার সঙ্গে তাঁর প্রথম হাতেখড়ি আব্বাস-মস্তানের ‘টারজান, দ্য ওয়ান্ডার কার’-এর মধ্যে দিয়ে। ওই ছবিতে তিনি কাজ করেছিলেন অবজারভার হিসেবে। মুম্বইয়ে সে ভাবে নিজেকে মেলে ধরতে না পারার পর দেব ফিরে আসেন কলকাতায়। টলিউডে তাঁর ডেবিউ ছবি ‘অগ্নিশপথ’। সেই ছবি যদিও ফ্লপ হয়। তবে দেবের জীবনে মোড় ঘুরিয়ে দেওয়া ছবি হল ‘আই লাভ ইউ’। রবি কিনাগী পরিচালিত ওই ছবির মাধ্যমেই দেবের জন্ম হয় সুপারস্টার হিসেবে। এর পর আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। রাজ চক্রবর্তীর ‘চ্যালেঞ্জ’ থেকে শুরু করে ‘সেদিন দেখা হয়েছিল’, ‘পাগলু’, ‘পরাণ যায় জ্বলিয়া রে’, ‘রোমিও’ , ‘রঙবাজ’, ‘দুই পৃথিবী’ নানা ছবির মাধ্যমে টলিউডে নিজের জায়গা পাকা করে নেন তিনি। তাঁর উচ্চারণ নিয়ে কম কটাক্ষের মুখোমুখি হতে হয়নি তাঁকে। যদিও ‘চাঁদের পাহাড়’, ‘বুনো হাঁস’, ‘জুলফিকর’, ‘অ্যামাজন অভিযান’, ‘প্রজাপতি’, ‘বাঘাযতীন’, ‘প্রধান’-এর মধ্যে দিয়ে নিজেকে প্রমাণ করেছেন দেব। তৃনমূল সাংসদ হলেও অন্য দলের নেতা ও কর্মীদের সঙ্গে সদ্ভাব বজায় রাখায় বিশ্বাসী তিনি।

Read More

Madan Mitra on Soham: ‘সোহম বোকা, ইনটেলিজেন্ট নয়’ বললেন মদন, বোঝালেন দেবের ‘সমস্যা’ও

Madan Mitra on Dev: মদনের বক্তব্য, সোহম যাই করে থাকুক না কেন, তারপর তিনি ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন। তারপরও বারবার কাউকে 'খারাপ খারাপ' বলা উচিত নয় বলে মন্তব্য করেন তিনি। তাঁর দাবি, সোহম আসলে ফাঁদে পা দিয়ে দিয়েছেন।

Dev: ভোটে জিতেছেন, ঘাটাল মাস্টারপ্ল্যানের কী হবে? বুধবার নতুন পদক্ষেপ দেবের

Ghatal Master Plan: লোকসভা ভোটে ফের প্রার্থী হতে রাজি হওয়ার কারণ হিসেবে দেব জানিয়েছিলেন, অভিষেক এবং মমতা তাঁকে ঘাটাল মাস্টারপ্ল্যান নিয়ে আশ্বাস দিয়েছেন। কেন্দ্র টাকা না দিলে রাজ্যই ঘাটাল মাস্টারপ্ল্যান বাস্তবায়িত করতে পদক্ষেপ করবে বলে তিনি আশ্বাস পেয়েছেন। সেজন্যই ফের লোকসভা ভোটে প্রার্থী হতে রাজি হয়েছেন তিনি।

Dev: দিল্লিতে পা রেখেই প্রধানমন্ত্রী মোদীকে অভিনন্দন দেবের

Dev: নিজের সৌজন্যের অবস্থান থেকে সরলেন না ঘাটালে তৃণমূলের জয়ী প্রার্থী দেব। দিল্লিতে পা রেখেই অভিনন্দন জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে। পাশাপাশি মোদীর মন্ত্রিসভায় জায়গা পাওয়া সুকান্ত মজুমদার ও শান্তনু ঠাকুরকেও অভিনন্দন জানালেন দেব।

Dev: ভোট শেষের আগেই বিজয়োল্লাস? সবুজ আবির মেখে দেবকে নিয়ে মাতলেন তৃণমূল কর্মীরা

Ghatal: দলীয় প্রার্থী আসছেন শুনে, এলাকায় আগে থেকেই সবুজ আবির, ফুলের মালা নিয়ে তৈরি ছিলেন তৃণমূলের কর্মী-সমর্থকরা। দেব গাড়ি থেকে নামতেই তাঁর গলায় পরিয়ে দেওয়া হয় একের পর এক মালা। কপালে পরিয়ে দেওয়া হয় সবুজ আবিরের তিলক।

Dev: ‘আমাকেই ভোট দিতে হবে বলছি না…’, অশান্তির খবর পেয়েই ভোটারদের অভয় দিতে বাইক নিয়ে ছুটলেন দেব

Dev: এদিন সকাল থেকেই ঘাটালের নানা প্রান্তে বিক্ষিপ্ত অশান্তির ছবি দেখা যায়। খবর পাওয়া মাত্রই ছুটে যান দেব। শুরুতেই ঘাটালের দৌলতচক ৭১ নম্বর বুথ সহ- ঘাটালের বিভিন্ন এলাকায় ভোট কেন্দ্র ঘুরে দেখেন।

Sixth Phase LokSabha Poll: দেব-হিরণ-অভিজিৎ গাঙ্গুলি-দেবাংশু, ষষ্ঠ দফায় ভাগ্য পরীক্ষা যাঁদের…

Loksabha Election 2024: তমলুকে তৃণমূলের মুখ যুবনেতা দেবাংশু ভট্টাচার্য। বিজেপির এখানে বড় চমক প্রাক্তন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। এই কেন্দ্রে সিপিএমের প্রার্থী আইনজীবী সায়ন বন্দ্যোপাধ্যায়। তমলুক দীর্ঘদিন অধিকারীদের ছিল। এখন শিবির বদল করে তারা বিজেপিতে। এবার এই কেন্দ্রে কোন ফুল ফোটে নজর সেদিকেই।

Dev Adhikari: ‘জিৎদা,যীশুদা,শুভশ্রী,পায়েল…’,গরুপাচার নিয়ে বলতে গিয়ে নাম করেই ফেললেন দেব

Dev Adhikari: এরপর নির্বাচনের ঠিক আগে এনামুল হকের একটি ডায়রির পাতা পোস্ট করে দাবি করেন, তাঁর কোম্পানির টাকা গিয়েছে দেবের অ্যাকাউন্টে। তবে তৃণমূল প্রার্থীর দাবি অনেক শিল্পীরাই কাজ করেছেন পিন্টু মণ্ডলের সঙ্গে। এমনকী বিজেপি প্রার্থী হিরণ চট্টোপাধ্যায়ও এই ব্যক্তির সঙ্গে কাজ করেছেন।

Dev on Cow Smuggling Case: ‘সকালে শুভেন্দুদাকে মেসেজ করেছিলাম, এটা করতে পারলে?’

Dev on Cow Smuggling: আজ সংবাদ মাধ্যমের সামনে দেব জানিয়েছেন, যেহেতু গরুপাচার মামলার তদন্ত চলছে সেই কারণে এতদিন তিনি মুখ বন্ধ করে রেখেছিলেন। কিন্তু নথি যখন বাইরে এসেই গিয়েছে তাহলে চুপ থেকে লাভ নেই। তৃণমূল প্রার্থী বলেছেন, "তিন দিন ধরে এমন একটা হাওয়া গরম করা হল যে বিশাল কিছু আসবে। এই ধমকানো-চমকানো-ব্ল্যাকমেইলের রাজনীতি খুব দুঃখজনক।"

Dev-Hiran: ‘আমি কাকার ফ্যান’! কেশপুরের সেই ভাইরাল প্রৌঢ়কে জড়িয়ে ধরে ছবি দেবের

Viral Video of Keshpur: সম্প্রতি কেশপুরে একটি ভিডিয়ো নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়েছিল। সেখানে হিরণকে বলতে শোনা যাচ্ছিল, 'আমি জানি না কী ভাষায় বলব...'। তখন পাশ থেকে এক ব্যক্তি বলে ওঠেন, 'বাংলা কথাই বলো না।' সেই ভিডিয়ো তুমুল ভাইরাল হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

Dev: শুভেন্দুর ‘হুঁশিয়ারি’, দেব বলেই দিলেন ২৩ তারিখ কী হতে চলেছে…

Dev: শনিবার মেদিনীপুরে ভোটপ্রচারে গিয়ে শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ২৩ তারিখ সকাল ৯টায় তাঁর এক্স হ্যান্ডেলে এমন কিছু 'ছাড়বেন', তাতে ঘাটালের প্রার্থী ঘর থেকে আর বেরোবেন না। দেব বলেন, "এই নির্বাচনে এত গরম গরম কথা হচ্ছে, এটা ভোটে জেতার রাজনীতি শুধু। চমকানো ধমকানোর রাজনীতি। আমি এসবের ঊর্ধ্বে হয়ে গিয়েছি। আর এসবের মধ্যে মাথা ঘামাতে পারছি না।"