‘ঘর থেকে তুলে হাত-পা ভেঙে আমিই চিকিৎসা করাব’, সুশান্তর ‘হুমকি’ ঘাস-পদ্মকে

আসছে বিধানসভা নির্বাচনে (West Bengal Assembly Election 2021) শালবনি থেকে টিকিট পেতে পারেন সিপিএম (CPIM)-র এককালের দাপুটে নেতা সুশান্ত ঘোষ (Susanta Ghosh)। ভোট লড়লে তিনিও যে তৃণমূল (TMC) বা বিজেপি (BJP) কাউকেই রেয়াত করবেন না সে কথাই যেন এ বার বুঝিয়ে দিলেন বাম আমলের প্রাক্তন মন্ত্রী।

'ঘর থেকে তুলে হাত-পা ভেঙে আমিই চিকিৎসা করাব', সুশান্তর 'হুমকি' ঘাস-পদ্মকে
ফাইল ছবি


শালবনি: দীর্ঘ কয়েক বছর বাদে নিজের ভিটেয় আসার সুযোগ পেয়েছিলেন গত ডিসেম্বরেই শেষেই। শোনা যাচ্ছে, আসছে বিধানসভা নির্বাচনে (West Bengal Assembly Election 2021) শালবনি থেকে টিকিট পেতে পারেন সিপিএম (CPIM)-র এককালের দাপুটে নেতা সুশান্ত ঘোষ (Susanta Ghosh)। ভোট লড়লে তিনিও যে তৃণমূল (TMC) বা বিজেপি (BJP) কাউকেই রেয়াত করবেন না সে কথাই যেন এ বার বুঝিয়ে দিলেন বাম আমলের প্রাক্তন মন্ত্রী। গলা উঁচিয়ে ‘হুমকি’ দেওয়ার তাঁর একটি ভিডিয়ো সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে। তৃণমূল ও বিজেপির অভিযোগ, দলের প্রচারের আড়ালে ‘হুমকি’ দিচ্ছেন তিনি।

ভাইরাল হওয়া এই ভিডিয়োটি পশ্চিম মেদিনীপুরের শালবনির বলে জানা গিয়েছে। ভিডিয়োতে সুশান্তকে বলতে শোনা যায়, “মাওবাদীরাও জানে সুশান্ত ঘোষ কী! যাঁরা তৃণমূল-বিজেপি করে তাঁদের বাপ-ঠাকুরদাও জানে সুশান্ত ঘোষ কে। সুশান্ত ঘোষ যা বলে তাই করে।”

সুশান্তর বলেছেন, আদালতের নির্দেশে যতদিন তিনি নিজের এলাকায় ঢুকতে পারেননি ততদিন যা হয়েছে সেখানে তাঁর কিছু করার ছিল না। কিন্তু এ বার যদি ঘাস-পদ্ম শিবিরের কেউ বাম কর্মী-সমর্থকদের গায়ে হাত দেয় তবে রীতিমতো দেখে নেওয়ার হুমকি দিয়েছেন জঙ্গলমহলের দৌর্দণ্ডপ্রতাপ এই নেতা। “এতদিন তো আমি ছিলাম না। মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারিনি। এরপরে যদি কারোর গায়ে হাত দেওয়ার ক্ষমতা হয় সোজা ঘরে যাব, ঘর থেকে তুলে এনে হাত-পা ভেঙে আমিই চিকিৎসা করাব”, বলেন সুশান্ত।

আরও পড়ুন: তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা থেকে এ বার বাদ পড়তে চলেছেন কোন কোন হেভিওয়েট? বাদ পড়তে পারেন মন্ত্রীও

তাঁর এই হুমকি শোনার পরই সুশান্ত ঘোষকে জঙ্গলমহলে ফিরিয়ে আনার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে দুষেছে বিজেপি। জেলার বিজেপি সাধারণ সম্পাদক রাজীব কুণ্ডু বলেন, “দিদিমণিই ওঁকে টাকা দিয়ে জঙ্গলমহলে ফিরিয়ে এনেছেন যাতে এলাকায় সন্ত্রাস তৈরি হয়। আমিও হুমকি দিচ্ছি, ক্ষমতা থাকলে এলাকায় সংগঠন করে দেখাক।” অন্যদিকে, তৃণমূলে গড়বেতা ৩ নং ব্লক সভাপতি রাজীব মিশ্রর বক্তব্য, “বাপেরও বাপ আছে। সুশান্ত ঘোষই একসময় হার্মাদ তৈরি করেছিল। রাজশক্তিকে কাজে লাগিয়ে একাধিক গণহত্যা করেছে। কিন্তু সন্ত্রাস করে লাদেনও নিশ্চিহ্ন হয়ে গিয়েছে, এ তো বাচ্চা ছেলে।”

আরও পড়ুন: উপ নির্বাচন কমিশনার সুদীপ জৈনের অপসারণ চেয়ে চিঠি তৃণমূলের