Chandannagar Election: কেউ মশারির ভিতর, কেউ আবার পরেছেন রেড ভলেন্টিয়ারের পোশাক, পুরভোটের আগে জমজমাট প্রচার চন্দননগরে

Chandannagar: তৃণমূল প্রার্থীও এলাকা স্যানিটাইজ় করে এদিন ভোটের প্রচার সারেন।

Chandannagar Election: কেউ মশারির ভিতর, কেউ আবার পরেছেন রেড ভলেন্টিয়ারের পোশাক, পুরভোটের আগে জমজমাট প্রচার চন্দননগরে
চন্দননগরে ভোট প্রচার (নিজস্ব ছবি)

চন্দননগর: হাতে গোনা আর কয়েকদিন আর তারপরই পুরভোট। করোনা আবহেই চলেছে ভোটের প্রচার। শাসক থেকে বিরোধী প্রত্যেকেই নিজেদের প্রচার নিয়ে ব্যস্ত। কেউ কাউকে এক ইঞ্চিও জমি ছেড়ে দিতে নারাজ। একই ছবি চন্দননগর জুড়ে। সেখানেও মাঠে নেমে পড়েছেন সব দলের প্রার্থীরা। তবে চন্দননগরের (Chandannagar) এক-একটি ওয়ার্ডে এক-এক রকমের অভিনব প্রচার দেখা গেল।

চন্দননগর পুরনিগমের ১ নম্বর ওয়ার্ড

এই ওয়ার্ডে বিজেপির তরফ থেকে দাঁড়িয়েছেন গোপাল চৌবে। ভোটের প্রচারে বেরিয়ে বৃহস্পতিবার দেখা গেল তার অভিনব উদ্যোগ। মশারির ভিতর ঢুকে তিনি প্রচার সারলেন নিজের। কিন্তু কেন এই ধরনের প্রচার? এলাকায় বেড়েছে ডেঙ্গির প্রকোপ। আর সেই অসুখ দূর করতে ব্যর্থ সরকার। সেই কারণে তিনি এমন উদ্যোগ নিয়েছেন বলে জানান। বৃহস্পতিবার প্রচারে হাজির ছিলেন পুরশুড়ার বিধায়ক বিমান ঘোষ। তিনি বলেন, “এই এলাকার নিকাশি ব্যবস্থা যথেষ্ঠ খারাপ।পচা জন জমে দুর্গন্ধ ছড়ায়েছে গোটা এলাকায়।ফলত মশার খবর উপদ্রব। যার জেরে ডঙ্গি, ম্যালেরিয়া বেড়েই চলেছে। কিন্তু এখানকার পুরপ্রশাসক, কাউন্সিলরের কোনও হুঁশ পর্যন্ত নেই। সেই কারণে এলাকাবাসীর কাছে আমাদের আবেদন যাতে উন্নত পরিবেশের জন্য বিজেপিকে ভোট দেওয়া হয়।”

চন্দননগর পুরনিগমের ৫ নম্বর ওয়ার্ড

এই ওয়ার্ডের সিপিআই(এম) প্রার্থী গোপাল শুক্লা। তিনিও বৃহস্পতিবার বাড়ি-বাড়ি গিয়ে ভোট প্রচার করেন। পাশাপাশি এদিন তিনি তুলে ধরেন রেড ভলেন্টিয়ারসদের উদাহরণ। করোনার সময় যেভাবে বাড়ি-বাড়ি গিয়ে তারা স্যানিটাইজ় করেছেন। মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। এবার সেই রেড ভলেন্টিয়ারদের উদ্যোগ তুলে ধরেই প্রচার সারলেন তিনি। গোপালবাবু নিজেও চন্দননগর রেড ভলেন্টিয়ারের কনভেনর। তিনি বলেন, “রেড ভলেন্টিয়ারের পোশাক আমরা নির্বাচনের জন্য পরিনি। আমরা তবেই পরেছিলাম সেদিন যেদিন সমস্ত কিছু বন্ধ হয়ে গেছিল। অপরিকল্পিত লকডাউনে মানুষকে ঘরের ভিতর বন্ধ করা হয়েছিল। মানুষ ভিত,সন্ত্রস্ত ছিলেন। সেদিন মানুষকে সাহায্য করতে আমরাই নেমেছিলাম। গোটার বাংলার মধ্যে চন্দননগরেই প্রথম স্যানিটাইজেশনের কাজ শুরু হয়। তারপর থেকে ধারাবাহিকভাবে রেড ভলেন্টিয়াররা কাজ করে গিয়েছেন। মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন।”

অন্যদিকে, তৃণমূল প্রার্থী শুভজিৎ সাউ দলের কর্মীদের নিয়ে এলাকায় স্যানিটাইজ়ার স্প্রে করেও প্রচার করেন। তৃণমূল নেতা  বলেন, “আমরা দেখছি যেভাবে বেড়ে চলেছে সংক্রমণ। সেই কারণে সংক্রমণ রোধে স্যানিটাইজ়ার স্প্রে করা হচ্ছে।”

আরও পড়ুন: Laldighi: পুর ভোটের আগে, প্রায় ১ কোটি টাকা ব্যয়ে সেজে উঠছে চন্দননগরের লালদিঘি

Related News

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla