Iron Deficiency: রক্তাল্পতায় ভুগছেন? এই ৬ ধরনের খাবার খেলে মিটবে আয়রনের ঘাটতি

Iron Deficiency: সর্দি-কাশি থেকে শুরু করে শারীরিক দুর্বলতা—দেহে আয়রনের ঘাটতি থাকলে এসব সমস্যা বাড়বে। আয়রনের ঘাটতি থাকলে সবচেয়ে বেশি যে রোগের ঝুঁকি বাড়ে তা হল রক্তাল্পতা। তবে, শুধু যে আয়রনের ঘাটতি থাকলেই রক্তাল্পতার সমস্যা দেখা দেয়, এমন নয়। শরীরে অভ্যন্তরীণ ক্ষত থেকে রক্তপাত হলেও অ্যানিমিয়া দেখা দেয়।

Iron Deficiency: রক্তাল্পতায় ভুগছেন? এই ৬ ধরনের খাবার খেলে মিটবে আয়রনের ঘাটতি
Follow Us:
| Updated on: May 16, 2024 | 9:00 AM

দেহে পুষ্টির ঘাটতি থাকলে রোগে ভুগবেন বেশি। সর্দি-কাশি থেকে শুরু করে শারীরিক দুর্বলতা—দেহে আয়রনের ঘাটতি থাকলে এসব সমস্যা বাড়বে। আয়রনের ঘাটতি থাকলে সবচেয়ে বেশি যে রোগের ঝুঁকি বাড়ে তা হল রক্তাল্পতা। তবে, শুধু যে আয়রনের ঘাটতি থাকলেই রক্তাল্পতার সমস্যা দেখা দেয়, এমন নয়। শরীরে অভ্যন্তরীণ ক্ষত থেকে রক্তপাত হলেও অ্যানিমিয়া দেখা দেয়। এতেও শরীর দুর্বল হয়ে যায়। আয়রনের ঘাটতি থাকুক বা রক্তক্ষরণের জেরে রক্তাল্পতা দেখা দিক, রক্তে হিমোগ্লোবিনের মাত্রা বজায় রাখা দরকার। আর এই কাজটা আপনি রোজের খাওয়া-দাওয়ার মাধ্যমেই করতে পারবেন।

ফল: আম, আপেল, পেয়ারা, লেবুর মতো ফলে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি আছে। ভিটামিন সি দেহে আয়রন শোষণে সাহায্য করে। অন্যদিকে, বেদানায় প্রচুর পরিমাণে আয়রন রয়েছে। রোজ একটা করে গোটা ফল খেলেই রক্তাল্পতার ঝুঁকি এড়াতে পারবেন।

শাকসবজি: সুস্থ থাকতে গেলে শাকসবজি খেতেই হবে। বিট, টমেটো, পালং শাক, কুমড়োর মধ্যে প্রচুর পরিমাণে আয়রন রয়েছে। কাঁচা লঙ্কা, ক্যাপসিকামের মতো সবজিতে ভিটামিন সি-ও পেয়ে যাবেন। এসব সবজি নিয়মিত খেলে রক্তাল্পতার সমস্যা এড়াতে পারবেন।

এই খবরটিও পড়ুন

ড্রাই ফ্রুটস: কাজু, আমন্ড, আখরোট, কিশমিশ, খেজুরের মতো ড্রাই ফ্রুটস রক্তে হিমোগ্লোবিনের মাত্রা বজায় রাখতে সাহায্য করে। রোজের ডায়েটে এসব বাদাম ও শুকনো ফল রাখলে রক্তাল্পতার পাশাপাশি একাধিক রোগের ঝুঁকি কমাতে পারবেন।

সামুদ্রিক মাছ: চিংড়ি, পমফ্রেটের মতো সামুদ্রিক মাছের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে আয়রন রয়েছে। পাশাপাশি এই ধরনের মাছে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড পাওয়া যায়, যা শারীরিক প্রদাহ কমাতে সাহায্য করে। এই ধরনের খাবার রোজের ডায়েটে রাখুন।

ফলিক অ্যাসিড: ভিটামিন সি-এর মতো দেহে আয়রনের ঘাটতি পূরণ করতে বিশেষ প্রয়োজন ফলিক অ্যাসিড। এই পুষ্টি পাওয়া যায় ভিটামিন বি কমপ্লেক্স থেকে। দেহে হিমোগ্লোবিনের মাত্রা বজায় রাখতে ফলিক অ্যাসিড জরুরি। এর জন্য শাকপাতা, ডাল, বাদাম, কলা খেলেই উপকার পাবেন।

ডার্ক চকোলেট: হিমোগ্লোবিনের মাত্রা বৃদ্ধি করে ডার্ক চকোলেট। রোজ এক টুকরো করে ডার্ক চকোলেট খেলেই দেহে আয়রনের ঘাটতি পূরণ হবে। পাশাপাশি রক্তে শর্করার মাত্রাও নিয়ন্ত্রণে থাকবে।