village medicinal plants: হিমোগ্লোবিন বা ক্ষুধা-মন্দায় রোজ রোজ আয়রন বড়ি নয়, গ্রাম বাংলার এই শাকেই রক্ত হবে তাজা

village medicinal plants: হিমোগ্লোবিন বা ক্ষুধা-মন্দায় রোজ রোজ আয়রন বড়ি নয়, গ্রাম বাংলার এই শাকেই রক্ত হবে তাজা
এই শাকেই রক্ত হবে তাজা

Ayurveda Health Care: এই শাকের মধ্যাযে থাকে প্রচুর পরিমাণে ক্লোরোফিল, যে কারণে হজম ভাল হয়।  আমাদের বিভিন্ন ব্যাকটেরিয়া ঘটিত রোগের হাত থেকে বাঁচায়

TV9 Bangla Digital

| Edited By: Reshmi Pramanik

Jun 24, 2022 | 8:24 AM

রক্তাল্পতার সমস্যায় সবচেয়ে বেশি ভোগেন মেয়েরা। ইদানিং কালে সেই সমস্যা আরও অনেক বেশি বেড়ে চলেছে। রক্তে লোহিত রক্তকণিকা বা হিমোগ্লোবিনের পরিমাণ কমে গেলে তাকেই মূলত অ্যানিমিয়া বলা হয়। হিমোগ্লোবিন হল লোহিত রক্তকণিকায় অবস্থিত একপ্রকার প্রোটিন যার মধ্যে আয়রন এবং ট্রান্সপোর্টস অক্সিজেন বর্তমান। উন্নয়নশীল দেশগুলিতে এই রোগের প্রকোপ সবচাইতে বেশি। শহরাঞ্চলের মেয়েদের মধ্যে এই সমস্যা তুলনায় বেশি হলেও গ্রামের মেয়েরাও কিন্তু এই একই সমস্যায় ভোগেন। তাঁদের ক্ষেত্রে মূল কারণ অবশ্য পুষ্টির অভাব। শরীরে লোহিত রক্ত কণিকার উৎপাদন কমে যাওয়াই কিন্তু রক্তাল্পতার অন্যতম কারণ। যে সব মেয়েদের ঋতুস্রাবের পরিমাণ বেশি হয় তাদের মধ্যে অ্যানিমিয়া খুব স্বাভাবিক ঘটনা। আবার যাঁরা দীর্ঘদিন কোনও জটিল রোগে ভুগছেন তাঁদের শরীরেও প্রয়োজনের তুলনায় কম থাকে হিমোগ্লোবিন।

হিমোগ্লোবিন কম থাকলে আয়রন ট্যাবলেট খাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকেরা। তবে শুধুমাত্র এই বড়ি নিয়মিত খেলেই হবে না। সঙ্গে প্রয়োজনীয় খাবারও প্রয়োজন। রোজ কলা, ডুমুর, মোচা, থোড় এসব বেশি করে খেতে হবে। সেই সঙ্গহে খান বিভিন্ন শাক। তবে রক্তাল্পতার সমস্যায় সবটাইতে ভাল হল হেলেঞ্চা শাক। গ্রাম বাংলার ঘরে ঘরে এই শাকের দেখা মেলে। আদ্যিকাল থেকেই মা-ঠাকুমারা জোর করে ছেলেমেয়েদের খাওয়াতেন এই হেলেঞ্চা বা হিংচে শাক। স্বাদে তেতো, তবে এই শাকের উপকারিতা গুণে শেষ করতে পারবেন না।

এই শাক জলজ। পুকুরেই জন্মায়। শীতের শুরুতে সাদা ফুল আসে গাছে। তবে সারাবছরই পাওয়া যায় বাজারে। বর্ষাকালে বাড়ে ত্বকের নানা সমস্যা। আর এই সমস্যা দূর করতে হিংচে শাকের পাতা বেটে খান রোজ সকালে। ঠিক তিন চামচ হিংচে পাতার রস হাফ কাপ জলে মিশিয়ে খান। এতে রক্ত হবে পরিষ্কার। সেই সঙ্গে ত্বকের খোশ, পাঁজরা, চুলকুনির একাধিক সমস্যাও দূর হবে। লিভারের সমস্যাতেও ভাল কাজ করে এই শাক। ১০০ গ্রাম হিংচে শাকের রসের সঙ্গে ১৫০ এমএল জল মিশিয়ে খেতে পারলে উপকার পাবেন। এই হেলেঞ্চা গাছের শাক, ডাঁটা কোনও কিছুই ফেলা যায় না। বেটে নিয়ে ২ চামচ মধুর সঙ্গে মিশিয়ে রোজ খেতে পারলে লো-ব্লাড প্রেশারের রোগীদের জন্য ভাল।

কেন রক্তাল্পতার সমস্যায় হিংচে শাক খাবেন? 

হেলেঞ্চা শাকের মধ্যে থাকে একাধিক প্রয়োজনীয় খনিজ আর ভিটামিন। আছে সালফার, জিংক, ফোলিক অ্যাসিড, আয়রন। যা শরীরে রক্তের পরিমআম বাড়ায়। যে কারণে গর্ভবতী মহিলাদের হিংচে শাক খেতে বলেন ডাক্তাররা। এই শাকের মধ্যাযে থাকে প্রচুর পরিমাণে ক্লোরোফিল, যে কারণে হজম ভাল হয়।  আমাদের বিভিন্ন ব্যাকটেরিয়া ঘটিত রোগের হাত থেকে বাঁচায়। এছাড়াও ত্বক, চুল ভাল রাখে। ওজন কমাতেও সাহায্য করে এই শাক। এই শাকে রয়েছে জটিল কার্বোহাইড্রেট। যা রক্তে ইনসুলিনের পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। সেই সঙ্গে ফোলেট থাকার কারণে স্ট্রেস কমাতেও কিন্তু সাহায্য করে হেলেঞ্চা।

কী ভাবে খাবেন 

এই খবরটিও পড়ুন

হিংচে শাকের রস করে খেতে পারেন। এছাড়াও সিদ্ধ করে আলু আর সরষের তেল দিয়ে মাখতে পারেন। অনেকে হিংচে শাকের বড়াও খান। ডাল কিংবা ঝোলে ফেলেও খেতে পারেন।

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA