Baby care tips: সদ্যোজাতের যত্ন নেওয়ার সময় এই ভুলগুলি নতুন বাবা-মায়েরা এড়িয়ে চলুন!

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: dipta das

Updated on: Jan 14, 2022 | 12:31 AM

'একজন বাবা-মা হওয়া সহজ নয় । তবে সবচেয়ে কঠিন কাজ যা বাবা-মা করতে পছন্দ করেন এবং কিছু ভুল করে যা সম্পূর্ণ স্বাভাবিক, আপনি তাদের কাছ থেকে শিখতে পারেন। এবং সেই ভুল পুনরাবৃত্তি করবেন না।'

Baby care tips: সদ্যোজাতের যত্ন নেওয়ার সময় এই ভুলগুলি নতুন বাবা-মায়েরা এড়িয়ে চলুন!
টা মনে রাখা গুরুত্বপূর্ণ যে প্রথমবার অভিভাবক হওয়ার কারণে কিছু ভুল হওয়া স্বাভাবিক।

পরিবারে নতুন অতিথির আগমনে খুশির জোয়ার। প্রথম সন্তান (First Child) হিসেবে তাঁকে ঘিরে নতুন বাবা-মায়েদের তৈরি একরাশ উদ্বেগ। বাচ্চাকে সুস্থ রাখতে, তার ভালমন্দ বুঝতে , সব কিছু নিয়েই আনন্দের পাশাপাশি চিন্তায় থাকেন বাবা-মায়েরা। এটা মনে রাখা গুরুত্বপূর্ণ যে প্রথমবার অভিভাবক হওয়ার কারণে কিছু ভুল (Common mistakes) হওয়া স্বাভাবিক। তবে শিশু যত্নের জন্য সঠিক কৌশল ও নিয়ম রয়েছে। সেইসব নির্দেশিকাগুলি মেনে চললেই আর উদ্বেগ বা আশঙ্কা থাকে না। নতুন বাবা-মায়েদের নয়া জীবনের যাত্রা মসৃণ করতে হাসপাতাল ও চিকিত্‍সকরা সবসময়ই পাশে থাকে। তবুও বাড়তি উদ্বেগ কাটাতে জাতিসংঘের তরফেও একটি আদর্শের কথা তুলে ধরেছে। শিশুস্বাস্থ্য (Child Health Care) সম্পর্কে বলা হয়েছে, সন্তানকে ঘিরে প্রথম আলিঙ্গন, প্রতিটি চুম্বন, প্রতিটি পুষ্টিকর খাবার, খেলার মাধ্যমে শিশুর মস্তিষ্ক গড়ে তোলার সাহায্য করতে পারেন একমাত্র বাবা-মায়েরাই। আপনি কি জানেন, শিশু জন্মের কয়েকদিন পরেই মানুষের আচরণ ও চলাফেরার দিকে তাকিয়ে হাসতে শুরু করে?

এ ব্যাপারে সিকে বিড়লা হাসপাতালের সিনিয়র গাইনোকোলজিস্ট এবং প্রসূতি বিশেষজ্ঞ ডাঃ অরুণা কালরা, হিন্দুস্তান টাইমসকে জানিয়েছেন যে ‘একজন বাবা-মা হওয়া সহজ নয় । তবে সবচেয়ে কঠিন কাজ যা বাবা-মা করতে পছন্দ করেন এবং কিছু ভুল করে যা সম্পূর্ণ স্বাভাবিক, আপনি তাদের কাছ থেকে শিখতে পারেন। এবং সেই ভুল পুনরাবৃত্তি করবেন না।’

ছোট জিনিস নিয়ে আতঙ্কিত হওয়া – নতুন বাবা-মায়েরা সবচেয়ে সাধারণ ভুলটি করে থাকেন ছোট ছোট জিনিস নিয়ে আতঙ্কিত হওয়া। শিশুর কান্না, ঘুম, খাবার, মলত্যাগ – সবকিছুই তাদের উদ্বিগ্ন করে তোলে। আতঙ্কিত হওয়া শিশুর জন্য কোন উপকারী নয়। বরং এটি শিশুকে বিরক্ত করে তোলে। নবজাতকের যত্ন নেওয়ার সময় আপনাকে শান্ত থাকতে হবে। যদি কোন কিছু আপনাকে উদ্বিগ্ন করে, আপনার শিশুকে নিয়মিত ক্লিনিকে নিয়ে যান এবং আপনার উদ্বেগের বিষয়ে ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করুন।

স্তনদুগ্ধ খাওয়ানোর জন্য শিশুকে জাগানো – স্তনদুগ্ধ খাওয়ানো শিশুর জন্য পুষ্টির চূড়ান্ত উত্স। প্রাথমিকভাবে আপনার সন্দেহ থাকতে পারে যে শিশুটির আদৌও পেট পূর্ণ হয়েছে কিনা কিন্তু এর মানে এই নয় যে আপনি শিশুকে খাওয়ানোর জন্য জাগিয়ে তুলবেন। একটি ভালভাবে স্তনদুগ্ধ খাইয়ে শিশুকে নিয়ে সারা রাত নির্বিঘ্নে ঘুমানো উচিত।

মুখের যত্নে অবহেলা – অনেক সময় নতুন বাবা-মা শিশুর মুখ পরিষ্কার করতে ভুলে যান। শিশুর মৌখিক স্বাস্থ্যবিধি বজায় রাখা যতটা গুরুত্বপূর্ণ। প্রাপ্তবয়স্কদের জন্যও ততটাই গুরুত্বপূর্ণ। প্রতিবার খাওয়ানোর পর একটি নরম সুতির কাপড় দিয়ে আপনার শিশুর মাড়ি মুছতে ভুলবেন না।

বিভিন্ন জনের পরামর্শের কথা শুনবেন না- প্রথম কয়েক মাসে, অভিজ্ঞ সবাই আপনাকে একটি শিশুকে কীভাবে পরিচালনা করবেন সে সম্পর্কে পরামর্শ দেবে। তবে মনে রাখবেন, একমাত্র মতামত যা গুরুত্বপূর্ণ তা আপনার। শিশুর জন্য আপনি যা সঠিক মনে করেন তাই করুন। পিতামাতার পরামর্শের জন্য কোনও অবিশ্বস্ত উৎসকে বিশ্বাস করবেন না। আপনার কোন উদ্বেগ থাকলে আপনার ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করুন।

বৃদ্ধির তুলনা করা – কোন মানুষই একরকম নয়, এমনকি শিশুরাও নয়। আর এটি নতুন বাবা-মায়েদের করা সবচেয়ে সাধারণ ভুলগুলির মধ্যে একটি। আপনার শিশুর বৃদ্ধির মাত্রাকে অন্য কারোর সঙ্গে তুলনা করার দরকার নেই। বিভিন্ন শিশুর বৃদ্ধির গতি ভিন্ন। তাদের দুজনের কেউই সমান নয়। এটা যত তাড়াতাড়ি বুঝবেন, ততই ভাল।

আরও পড়ুন:  Child omicron symptoms: বছর দু’য়ের শিশুও রক্ষা পাচ্ছে না কোভিড থেকে, কেন হচ্ছে? জানুন

Latest News Updates

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla