CM Mamata Banerjee: ‘প্রয়োজনে যুদ্ধেও যেতে তৈরি’, বারাণসী যাওয়ার আগে বললেন মমতা

Russia-Ukraine Conflict: ভারতের প্রচুর ছেলে মেয়ে ইউক্রেনে পড়াশোনার জন্য গিয়েছেন। ইতিমধ্যেই সে দেশে এক ভারতীয়র মৃত্যুও হয়েছে বোমার আঘাতে।

CM Mamata Banerjee: 'প্রয়োজনে যুদ্ধেও যেতে তৈরি', বারাণসী যাওয়ার আগে বললেন মমতা
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নিজস্ব চিত্র।
TV9 Bangla Digital

| Edited By: সায়নী জোয়ারদার

Mar 02, 2022 | 9:50 PM

কলকাতা: দেশের স্বার্থে প্রয়োজন হলেও যুদ্ধেও যেতে প্রস্তুত। বুধবার কলকাতা বিমানবন্দরে দাঁড়িয়ে এমনই জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধ নিয়ে গত কয়েকদিনে অস্থিরতা তৈরি হয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। ভারতের প্রচুর ছেলে মেয়ে ইউক্রেনে পড়াশোনার জন্য গিয়েছেন। ইতিমধ্যেই সে দেশে এক ভারতীয়র মৃত্যুও হয়েছে বোমার আঘাতে। স্বভাবতই চিন্তা বাড়ছে। ভারতীয়দের দেশে ফেরাতে সবরকম চেষ্টা চালাচ্ছে ভারত সরকার। নিয়মিত বৈঠকে বসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধানদের সঙ্গে কথা বলছেন ফোনে। এমনকী ‘অপারেশন গঙ্গা’য় চার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া, হরদীপ সিং পুরী, কিরণ রিজিজু, ভিকে সিংকে দূত নিয়োগ করা হয়েছে। উদ্ধারকাজে তদারকির ভার তাঁদের। এই পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ কম নয় বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়েরও। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ইতিমধ্যেই চিঠি লিখে মমতা জানিয়েছেন, দেশের স্বার্থে পাশে রয়েছেন তাঁর।

বুধবার বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দিলেন, দরকারে যুদ্ধক্ষেত্রে যেতেও তিনি পিছু পা হবেন না। এদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “যদি আমাকে বলা হয় মানুষকে বাঁচাতে তুমি যুদ্ধে যাও, আমি যুদ্ধে যাওয়ার জন্যও তৈরি। দেশের স্বার্থে, মানুষের জন্য আমি সবসময় তৈরি। আমাদের দেশে যে সংখ্যক মহিলা আছেন তাঁদের সবাইকে যদি তৈরি করা হয় তা হলে দেশকে বাঁচাতে অল মহিলা ইজ রেডি টু ফাইট দ্য ব্যাটেল।”

আগেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “আমি কোনও দেশের পক্ষে বা বিপক্ষে কথা বলতে চাই না। আমি শুধু চাই বিশ্ব শান্তি। ভারত সবসময় শান্তির পক্ষে দাঁড়িয়েছে এবং বিশ্বকে পথ দেখিয়েছে। আমি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে একটি চিঠি লিখে শান্তির পথ প্রশস্ত করার অনুরোধ জানিয়েছি। আমি বলেছি, ভারত নেতৃত্ব দিয়ে এই যুদ্ধের অবসান করুক। ভারত পারে বিশ্বে শান্তির ব্যবস্থা করতে। ভারত এই পথ আগে দেখিয়েছে। ভারতের মনীষীরা শান্তির প্রবর্তক। এতদিন করোনা যুদ্ধ দেখেছে। এবার আর যুদ্ধ নয়। মানুষ আর যুদ্ধ চায় না।”

বুধবারও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “আমি যুদ্ধের পক্ষে নই, শান্তির পক্ষে। কোনও দেশের বিরুদ্ধে নই, সব দেশের পক্ষে। কিন্তু একটা কোভিড যুদ্ধ হয়ে গেল। আবার যদি একটা যুদ্ধ হয়ে সব ধ্বংস হয়ে যায় তার সবটাই চোকাতে হবে সাধারণ মানুষকে। এখনও আমরা মনে করি ভারতবর্ষের সেই শক্তি আছে। ভারত শান্তির পথে সবাইকে ফিরিয়ে আনতে পারে।”

আরও পড়ুন: Repoll: গণনার দিন খোলাই গেল না ইভিএম, ৪ মার্চ ফের ভোট হচ্ছে এই পুর এলাকায়

Latest News Updates

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla