Dilip Ghosh: ‘দিলীপ ঘোষকে দেখলে লোক এমনিই ভিড় করে, আমি পিছানোর মানুষ নই’, পুলিশের সঙ্গে তুমুল বচসা

Dilip Ghosh: 'দিলীপ ঘোষকে দেখলে লোক এমনিই ভিড় করে, আমি পিছানোর মানুষ নই', পুলিশের সঙ্গে তুমুল বচসা
কেষ্টপুরে দিলীপের সঙ্গে বচসা পুলিশের (নিজস্ব চিত্র)

Dilip Ghosh:   জগৎপুর বাজারে ঢোকার মুখেই তাঁকে পুলিশের তরফ থেকে আটকে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। প্রশাসনের তরফ থেকে বলা হচ্ছে, পাঁচ জনের বেশি লোক নিয়ে প্রচার করা যাবে না। সেই কারণেই আটকে দেওয়া হয়েছে বলে খবর।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: শর্মিষ্ঠা চক্রবর্তী

Jan 29, 2022 | 11:20 AM

কলকাতা: দিলীপ ঘোষের প্রচারে বাধা দেওয়ার অভিযোগ। পুলিশের সঙ্গে তুমুল বচসা বিজেপি নেতার। ঘটনাকে ঘিরে উত্তেজনা কেষ্টপুরের ২০ নম্বর ওয়ার্ডে।

বিধাননগর পৌরনিগম নির্বাচনকে সামনে রেখে শনিবার দলীয় প্রার্থীর হয়ে প্রচারে যান বিজেপির সর্ব ভারতীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ। কিন্তু  জগৎপুর বাজারে ঢোকার মুখেই তাঁকে পুলিশের তরফ থেকে আটকে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। প্রশাসনের তরফ থেকে বলা হচ্ছে, পাঁচ জনের বেশি লোক নিয়ে প্রচার করা যাবে না। সেই কারণেই আটকে দেওয়া হয় মিছিল।

ক্ষোভে ফেটে পড়েন দিলীপ ঘোষ।  বাজারে ঢোকার মুখে দাঁড়িয়েই বিধাননগর থানার পুলিশ কর্তার সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন তিনি। সাংবাদিকরা তাঁর কাছে গেলে উল্টে দিলীপ ঘোষই প্রশ্ন করেন, “পুলিশকে জিজ্ঞাসা করুন কেন আটকাল? দিলীপ ঘোষকে দেখলেই ওদের মনে পড়ে রাস্তায় হাঁটা চলবে না। আমি হাঁটলেই লোক আসে। সেটা দেখার দায়িত্ব পুলিশের।”

কথাগুলি যখন সাংবাদিকদের বলছিলেন দিলীপ ঘোষ, তখন তাঁকে বোঝাতে এগিয়ে আসেন পুলিশের এক কর্তা। তিনি তখন তাঁর উদ্দেশে বলেন, “আমি পিছিয়ে যাওয়ার লোক নই। আমি এখানেই দাঁড়িয়ে থাকব। আমি এসেছি, আমার প্রার্থীর হয়ে প্রচার করতে। আপনারা দাঁড়িয়ে থাকুন, আমিও দাঁড়িয়ে থাকব। পুলিশের লোক তো গুনতেই জানে না, পাঁচ জন কত জনে হয়! মিডিয়ার ভিড় রয়েছে, পুলিশ কর্মীরা রয়েছেন, সেই ভিড় তো রয়েছে।”

পাশে দাঁড়িয়ে প্রার্থী তখন বলেন, “পুলিশ তাহলে আমাদের পাঁচ জনকে ছেড়ে দিক অন্তত। সেটা তো করতে পারে। আমাদের গুনে গুনে পাঁচ জনকেই প্রচারে পাঠাতে পারে। সেটা তাহলে কেন করছে না? সবাইকে কেন আটকে দিল?” এরপর সাংবাদিকদের তরফেই পুলিশের কাছে প্রশ্ন যায়, “পাঁচ জনের নাম যখন বিজেপির তরফ থেকে বলে দেওয়া হয়েছে, তখন কেন মিছিল ছাড়ছেন না?” পুলিশের এক কর্তা তখন সাংবাদিকদের ক্যামেরা অন্যদিকে ঘোরাতে বলেন। তিনি বলেন, “ক্যামেরা ঘুরিয়ে দেখান, ৫ না ৫০। কত লোক আছে দেখুন। ভিডিয়ো ফুটেজ রয়েছে আমাদের।” সেই ছবি ধরা পড়ে TV9 বাংলার ক্যামেরাতেও।

তখন পাল্টা দিলীপ ঘোষ বলেন, “আপনারা যা পরিস্থিতি তৈরি করেছেন, তাতে বলুন তো স্বাস্থ্য বিধি মানা হচ্ছে? আটকালেন বলেই তো এত ভিড় হল। গাড়ি নিয়ে তো আর প্রচার হয় না। আপনি আমাকে প্রচার শেখাবেন না। আমি সাধারণ মানুষের কাছে গিয়ে প্রচার করব। সেরকম হলে আপনি চলুন আমার সঙ্গে। আমি দূর থেকে নমস্কার করছি। আপনি আটকে দিয়ে ২০০ লোকের ভিড় করে ফেলেছেন। মেলা-খেলা সবই চলছে। কিন্তু বিজেপি প্রচার করতে পারবে না?”

পুলিশ-দিলীপ ঘোষ বিতণ্ডায় কেষ্টপুর ২০ নম্বর ওয়ার্ডে বেশ কিছুক্ষণের জন্য উত্তেজনা ছড়ায়। পরে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হয় পরিস্থিতি।

আরও পড়ুন: KMC Firhad Hakim: ‘আর্থিক অবস্থা খুব খারাপ, দাবি পূরণ করা আমার পক্ষে সম্ভব নয়’, পুরসভার প্রথম অধিবেশনেই স্বীকার করে নিলেন ফিরহাদ

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA