World Music Day: একই গান পছন্দ আপনার পার্টনারেরও? হাবুডুবু প্রেমে সাঁতার কাটতে পারেন দু’জনেই

World Music Day: একই গান পছন্দ আপনার পার্টনারেরও? হাবুডুবু প্রেমে সাঁতার কাটতে পারেন দু'জনেই

Romance and Music: দু'জন মানুষের যদি মিউজিকের 'টেস্ট' একই হয়, সেই প্রেমটা চলে সুরের গতিতে। অনেক ক্ষেত্রে তো প্রেমটাই হয় গানে গানে।

megha

|

Jun 21, 2022 | 4:21 PM

মেঘা মণ্ডল

সে দিন ডিসেম্বরে বৃষ্টি নেমেছিল শহর জুড়ে। একসঙ্গে কিছুটা সময় কাটানোর কথা ছিল নীলাভ ও পৃথার। অসময়ের বৃষ্টি উপেক্ষা করে একটা ছাতা মাথায় দিয়েই কলেজ স্ট্রিট থেকে বাড়ি ফিরেছিল ওরা দু’জনে। ট্রামলাইন ধরে হাঁটতে শুরু করল হাওড়ার দিকে। ঠান্ডা হাওয়ার মাঝে ব্রিজের উপর পায়ে-পায়ে জল ছেটাতে বেশ লাগছিল ওদের। তর্ক জমেছিল চন্দ্রবিন্দুর চ, বেড়ালের তালব্য শ আর রুমালের মা কি করে চশমা হয়, তা নিয়ে। ২ বছর পর হঠাৎ সেদিন বৃষ্টিমুখর বিকেলে নীলাভর কথা খুব মনে পড়ছিল পৃথার। তখনই পৃথার কানে এল রেডিওতে বাজছে: ‘বরসে গা সাওন ঝুম-ঝুম কে’।

ঘড়িতে তখন রাত ৮টা। বাইরে তখন ঘোর বর্ষা। ট্যাফিক জ্যামে দাঁড়িয়ে গাড়িতে বেজে উঠল, ‘ভালো লাগে স্বপ্নের মায়াজাল বুনতে…’, পাশে বসে মেয়েটাও গুনগুন করে উঠল। যাদের কথাবার্তা শুধুই ‘হাই-হ্যালো’-র মধ্যে সীমাবদ্ধ ছিল, এই গানের শব্দে তাদের চোখাচোখিও হল একবার। আর এখন তারা জীবনসঙ্গী। জীবনের সব মনখারাপ, রোম্যান্টিক গানে একে-অপরের পাশে রয়েছে তারা। এমন ঘটনা আমাদের শহরে প্রায়শই ঘটে থাকে। আর না ঘটলেও, হঠাৎ করে প্রিয় মানুষের কথা মনে পড়ে অচেনা কোনও গানের সুরে। হাসি, কান্না, আনন্দ সব কিছুর সঙ্গে জড়িত থাকে গান। আর দু’জন মানুষের যদি মিউজিকের ‘টেস্ট’ একই হয়, সেই প্রেমটা চলে সুরের গতিতে। অনেক ক্ষেত্রে তো প্রেমটাই হয় গানে গানে।

কিছু মানুষের কাছে গান হল মন খারাপের ওষুধ। আবার এ বিশ্বে এমন অনেক প্রেমিকা রয়েছে যারা মুখে ফুটে নিজের ভালবাসা বলতে পারেনি। কিন্তু গানের ভাষায় সেটা বার বার প্রকাশ পেয়েছে। প্রথম প্রেমে পড়া থেকে শুরু করে বিচ্ছেদ, সব মুহূর্তের জন্য রয়েছে বিশেষ সুর, যা শুনলেই গুনগুন করে উঠতে ইচ্ছা করে। আর যখন দু’জন মানুষ একই ধারার গান ভালবাসে, তাদের মধ্যে বন্ধুত্বটাও হয় একটু গভীর। কাজের চাপে ভেঙে পড়া দুই বন্ধুও কখনও কখনও একসঙ্গে গেয়ে ওঠে, ‘We’re just two lost souls, Swimming in a fish bowl…’

সম্প্রতি একটি ডেটিং অ্যাপ তাদের ইউজ়ারদের মিউজিক টেস্ট নিয়ে একটি সমীক্ষা করেছিল। সেখানে দেখা গিয়েছে, ২৮% মানুষ যারা একই ধারার সঙ্গীত ও বিনোদন পছন্দ করেন, তারা একে-অপরের সঙ্গে থাকতে ভালবাসেন। আর একই ধরনের গান ভালবাসায় এটাও তাদের জীবনকে প্রভাবিত করে। মনে করা হয়, যারা একই ধরনের সঙ্গীত পছন্দ করে সেই যুগলরা বেশ কিছু সুবিধাও পান। এই যেমন ধরুন পছন্দের বিষয় নিয়ে দীর্ঘক্ষণ কথা বলা। এখানে উল্টো দিকের মানুষটার প্রতি বিরক্তি কমই আসে।

এই খবরটিও পড়ুন

ওই সমীক্ষায় আরও যে তথ্য উঠে এসেছে, তা হল: ১৯% মানুষ শুধুমাত্র তাঁদের প্রোফাইলে প্রিয় শিল্পীকে দেখে রাইট সোয়াইপ করেন। এমনও ঘটনা রয়েছে যেখানে দু’জন মানুষ দুটো আলাদা শহরের বাসিন্দা এবং তাদের মধ্যে কথাবার্তা শুরু হয় গানকে কেন্দ্র করে। আবার ২৭% মানুষ মনে করেন যে, যাদের মিউজিক স্বাদ ভাল, তারা খুব বুদ্ধিমান হয়। আর এই কারণেই প্রেমে পড়তে চায় মানুষ। তবে এ কথা অস্বীকার করার কোনও জায়গা নেই যে, মানুষ মিউজিক টেস্ট দিয়েই আরেকটা মানুষকে বিচার করে।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA