Sinus Infection: সাইনাসের সমস্যা বেড়েছে? পুজোর আগে স্বস্তি মিলবে এই উপায়ে

সাইনাসের সমস্যায় প্রচন্ড মাথা ব্যথা, মাথা ভারী হয়ে থাকে, নাক বন্ধ হয়ে যায়। মূলত সাইনাসের কোষের আস্তরণ মিউকাস তৈরি করে। এর ফলে নিঃশ্বাস নিতেও সমস্যা হয়। ঘরোয়া উপায়ে আপনি সাইনাসের কষ্ট থেকে মুক্তি পেতে পারেন।

Sep 20, 2022 | 3:22 PM
TV9 Bangla Digital

| Edited By: megha

Sep 20, 2022 | 3:22 PM

পুজো শুরু হতে আর বেশি দেরি নেই। কিন্তু বৃষ্টির মরসুমে সর্দি-কাশির সমস্যা লেগে রয়েছে। যাঁদের সাইনাসের সমস্যা রয়েছে তাঁরা বেশি কষ্ট পান এই মরসুমে। সাইনাসের সমস্যায় প্রচন্ড মাথা ব্যথা, মাথা ভারী হয়ে থাকে, নাক বন্ধ হয়ে যায়। মূলত সাইনাসের কোষের আস্তরণ মিউকাস তৈরি করে। এর ফলে নিঃশ্বাস নিতেও সমস্যা হয়। ঘরোয়া উপায়ে আপনি সাইনাসের কষ্ট থেকে মুক্তি পেতে পারেন।

পুজো শুরু হতে আর বেশি দেরি নেই। কিন্তু বৃষ্টির মরসুমে সর্দি-কাশির সমস্যা লেগে রয়েছে। যাঁদের সাইনাসের সমস্যা রয়েছে তাঁরা বেশি কষ্ট পান এই মরসুমে। সাইনাসের সমস্যায় প্রচন্ড মাথা ব্যথা, মাথা ভারী হয়ে থাকে, নাক বন্ধ হয়ে যায়। মূলত সাইনাসের কোষের আস্তরণ মিউকাস তৈরি করে। এর ফলে নিঃশ্বাস নিতেও সমস্যা হয়। ঘরোয়া উপায়ে আপনি সাইনাসের কষ্ট থেকে মুক্তি পেতে পারেন।

1 / 6
গরম জলে ভাপ নিতে পারবেন। গরম জলে ভাপ নিলে বন্ধ নাক খুলে যায়। এতে সাইনাস সংক্রমণের ঝুঁকিও কমে যেতে পারে। প্রয়োজনে গরম জলে এসেনশিয়াল অয়েল যোগ করতে পারেন। দিনে ৩-৪ বার গরম জলে ভাপ নিলে সাইনাস কষ্ট থেকে রেহাই পেতে পারেন।

গরম জলে ভাপ নিতে পারবেন। গরম জলে ভাপ নিলে বন্ধ নাক খুলে যায়। এতে সাইনাস সংক্রমণের ঝুঁকিও কমে যেতে পারে। প্রয়োজনে গরম জলে এসেনশিয়াল অয়েল যোগ করতে পারেন। দিনে ৩-৪ বার গরম জলে ভাপ নিলে সাইনাস কষ্ট থেকে রেহাই পেতে পারেন।

2 / 6
গরম জলে ১ চা চামচ হলুদ, সামান্য গোলমরিচের গুঁড়ো এবং ৩-৪টে রসুনের কোয়া মিশিয়ে পান করুন। স্বাদের জন্য এই জলে মধু যোগ করতে পারেন। গরম গরম এই পানীয় পান করলে আপনি সাইনাসের সংক্রমণ থেকে উপশম পেতে পারেন।

গরম জলে ১ চা চামচ হলুদ, সামান্য গোলমরিচের গুঁড়ো এবং ৩-৪টে রসুনের কোয়া মিশিয়ে পান করুন। স্বাদের জন্য এই জলে মধু যোগ করতে পারেন। গরম গরম এই পানীয় পান করলে আপনি সাইনাসের সংক্রমণ থেকে উপশম পেতে পারেন।

3 / 6
সাইনাসের সংক্রমণে আপনি আদা ও হলুদের পেস্ট ব্যবহার করতে পারেন। শুকনো আদার গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো এবং আম-আদা গুঁড়ো সমপরিমাণে নিয়ে একটা পেস্ট বানিয়ে নিন। এই পেস্টটা সামান্য গরম করে নিন। রাতে ঘুমানোর আগে এই মিশ্রণটি কপালে ও নাকে প্রয়োগ করুন। এতে ঘুমনোর সময় নাক বুজে যাবে না।

সাইনাসের সংক্রমণে আপনি আদা ও হলুদের পেস্ট ব্যবহার করতে পারেন। শুকনো আদার গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো এবং আম-আদা গুঁড়ো সমপরিমাণে নিয়ে একটা পেস্ট বানিয়ে নিন। এই পেস্টটা সামান্য গরম করে নিন। রাতে ঘুমানোর আগে এই মিশ্রণটি কপালে ও নাকে প্রয়োগ করুন। এতে ঘুমনোর সময় নাক বুজে যাবে না।

4 / 6
এই মরসুমে যদি সাইনাসের সংক্রমণে কষ্ট পান তাহলে উষ্ণ তরল পান করুন। গরম জল, গরম চা বা অন্য কোনও পানীয় পান করতে পারেন। এতে জমে থাকা শ্লেষ্মা দূর হয়ে যাবে। পাশাপাশি এটি শরীরকে হাইড্রেটেড রাখবে।

এই মরসুমে যদি সাইনাসের সংক্রমণে কষ্ট পান তাহলে উষ্ণ তরল পান করুন। গরম জল, গরম চা বা অন্য কোনও পানীয় পান করতে পারেন। এতে জমে থাকা শ্লেষ্মা দূর হয়ে যাবে। পাশাপাশি এটি শরীরকে হাইড্রেটেড রাখবে।

5 / 6
সাইনাসের সমস্যায় কষ্ট পেলে আপনি পুদিনার চা পান করতে পারেন। পুদিনার চায়ের মধ্যে অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি, অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল, অ্যান্টি-ভাইরাল বৈশিষ্ট্য রয়েছে। সাইনাসের সংক্রমণ, অ্যালার্জি, সর্দি, কাশির চিকিৎসায় আপনি পুদিনার চা পান করতে পারেন।

সাইনাসের সমস্যায় কষ্ট পেলে আপনি পুদিনার চা পান করতে পারেন। পুদিনার চায়ের মধ্যে অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি, অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল, অ্যান্টি-ভাইরাল বৈশিষ্ট্য রয়েছে। সাইনাসের সংক্রমণ, অ্যালার্জি, সর্দি, কাশির চিকিৎসায় আপনি পুদিনার চা পান করতে পারেন।

6 / 6

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla