Tulsidas Jayanti 2022: গর্ভে ছিলেন ১২ মাস! হনুমান চালিসার রচয়িতার জন্মবার্ষিকীর তাত্‍পর্য কী, জানুন

Tulsidas Jayanti: তুলসীদাসকে হিন্দি, ভারতীয় ও বিশ্ব সাহিত্যের অন্যতম শ্রেষ্ঠ কবি মনে করা হয়। তুলসীদাস ও তার সাহিত্যকর্মের প্রভাব ভারতের শিল্পকলা, সংস্কৃতি ও সমাজে সুদূরপ্রসারী।

Tulsidas Jayanti 2022: গর্ভে ছিলেন ১২ মাস! হনুমান চালিসার রচয়িতার জন্মবার্ষিকীর তাত্‍পর্য কী, জানুন
TV9 Bangla Digital

| Edited By: dipta das

Aug 04, 2022 | 11:44 PM

হিন্দু সন্তকবি, ধর্মসংস্কারক ও দার্শনিক হিসেবে পরিচিত তুলসীদাসের (Tulsidas) আজ ৫২৫তম জন্মবার্ষিকী (525th Birth anniversary)। প্রতিবছর উত্তর ভারতে, শ্রাবণ মাসের (Sawan 2022) অমবস্যার সাত দিন পর বিখ্যাত কবি ও সাধক গোস্বামী তুলসীদাসের জন্মজয়ন্তী (Tulsidas Jayanti) হিসেবে পালিত হয়। তিনি রামানন্দের গুরুপরম্পরায় রামানন্দী সম্প্রদায়-ভুক্ত ছিলেন। তুলসীদাস তার রাম-ভক্তির জন্য প্রসিদ্ধ। তিনি একাধিক জনপ্রিয় গ্রন্থ রচনা করেছিলেন। তবে তিনি রামচরিতমানস মহাকাব্যের জন্য সর্বাধিক পরিচিত। এই গ্রন্থটি হল সংস্কৃত রামায়ণ মহাকাব্যের অবধি অনুবাদ। তার অনুদিত গ্রন্থটি রামচরিতমানস নামে সমধিক পরিচিত। জীবদ্দশায় তুলসীদাসকে মূল রামায়ণ মহাকাব্যের রচয়িতা বাল্মীকির অবতার মনে করা হত। রামভক্ত হনুমানের জনপ্রিয় স্তোত্র হনুমান চালিশাও তারই রচনা বলে মনে করা হয়।

গোস্বামী তুলসীদাস কে ছিলেন?

তুলসীদাস তার জীবনের অধিকাংশ সময়টাই বারাণসী শহরে অতিবাহিত করেন। বারাণসীতে গঙ্গা নদীর তীরে তুলসীঘাট তারই নামাঙ্কিত।’শ্রী রামচরিতমানস’, হিন্দু সাহিত্যের অন্যতম শ্রেষ্ঠ রচনা, তুলসীদাস রচিত। এটি ‘রামায়ণ’-এর আওয়াধি অনুবাদ, যা শিক্ষাবিদ এবং অ-পেশাদার উভয়েই পড়তে পারেন। বারাণসীতে সঙ্কটমোচন হনুমান মন্দির তারই প্রতিষ্ঠিত। কথিত আছে, যেখানে এই মন্দিরটি তিনি প্রতিষ্ঠা করেন, সেখানেই তিনি হনুমানের দর্শন লাভ করেছিলেন। রামলীলা নামে রামায়ণ-ভিত্তিক লোকনাট্যের প্রচলনও তুলসীদাসই করেছিলেন। তুলসীদাসকে হিন্দি, ভারতীয় ও বিশ্ব সাহিত্যের অন্যতম শ্রেষ্ঠ কবি মনে করা হয়। তুলসীদাস ও তার সাহিত্যকর্মের প্রভাব ভারতের শিল্পকলা, সংস্কৃতি ও সমাজে সুদূরপ্রসারী। আজও এই প্রভাব দৃষ্ট হয় স্থানীয় ভাষা, রামলীলা নাটক, ভারতীয় শাস্ত্রীয় সংগীত, জনপ্রিয় সংগীত ও টেলিভিশন ধারাবাহিকগুলিতে।

তুলসীদাস জয়ন্তীর তাৎপর্য

অনেকেই বাল্মিকির পুনর্জন্ম বলে বিশ্বাস করেন। হিন্দু ক্যালেন্ডার অনুযায়ী, শ্রাবণ মাসের সপ্তমীর শুক্লা তিথিতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন বিখ্যাত তুলসিদাস। অনেকের মতে, উত্তর প্রদেশের গঙ্গা নামে এক জায়গা তিনি জন্মেছিলেন। বাবার নাম আত্মারাম দুবে ও মাতা হুলসি। তবে তুলসিদাসের জন্মের বছর নিয়ে এখনও মতবিরোধ রয়েছে। জনশ্রুতি আছে যে তুলসীদাস বারো মাস গর্ভে থাকার পর জন্মগ্রহণ করেছিলেন। জন্মের সময় তার মুখে বত্রিশটি দাঁত ছিল, তার স্বাস্থ্য এবং চেহারা পাঁচ বছরের ছেলের মত ছিল। জন্মের সময় কাঁদেননি পর্যন্ত। তার পরিবর্তে রাম উচ্চারণ করেছিলেন তিনি। জন্ম মুহূর্তে অশুভ লক্ষণের কারণ দেখিয়ে জন্মের প্রায় ৪দিনের মাথায় সদ্যোজাতকে পরিত্যাগ করেন তাঁর বাবা-মা। পরে এক চাকরের কাছে তিনি প্রায় ৫ বছর কাটান। তারপর সেই চাকর মারা গেলে এক দরিদ্র ব্রাহ্মণ অনাথ হিসেবে তাঁর দেখাশোনা করতেন। শোনা যায়, এই ব্রাহ্মণ আসলে আর কেউ নয়, দেবী পার্বতী রূপ ধারণ করে তাঁকে দেখাশোনা করতেন।

তথ্য সৌজন্য: উইকিপিডিয়া

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla