WTC Final: WTC ফাইনালের জন্য উৎসুক বিরাটের ডেপুটি রাহানে

ভারতের টেস্ট দলের সহ-অধিনায়ক আজিঙ্কা রাহানে (Ajinkya Rahane) বলছেন, ভারতীয় ক্রিকেটাররা অনেক চড়াই উতরাই পেরিয়ে এই জায়গায় এসে পৌঁছেছে। এ বার শুধু ইতিহাস গড়ার পালা। ভারতকে বর্ডার-গাভাসকর ট্রফি জেতানো রাহানের গলায় ফুটে উঠছে WTC ফাইনাল নিয়ে আত্মবিশ্বাসের সুর।

WTC Final: WTC ফাইনালের জন্য উৎসুক বিরাটের ডেপুটি রাহানে
WTC Final: WTC ফাইনালের জন্য উৎসুক বিরাটের ডেপুটি রাহানে (সৌজন্যে-বিসিসিআই ওয়েবসাইট)

সাউদাম্পটন: টানা দু’বছর কঠোর পরিশ্রম করে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে (WTC Final) উঠেছে আইসিসির টেস্ট ক্রমতালিকায় শীর্ষে থাকা দুই দল। বিরাট কোহলির ভারত (India) ও কেন উইলিয়ামসনের নিউজিল্যান্ড (New Zealand)। টেস্ট ক্রিকেটের দুই সেরা দলের মধ্যে খেতাব জয়ের হাড্ডাহাড্ডি লড়াই শুরু হবে ১৮ জুন সাউদাম্পটনে। তবে তার আগে নিজেদের সফরের কথা তুলে ধরে, ভারতের টেস্ট দলের সহ-অধিনায়ক আজিঙ্কা রাহানে (Ajinkya Rahane) বলছেন, ভারতীয় ক্রিকেটাররা অনেক চড়াই উতরাই পেরিয়ে এই জায়গায় এসে পৌঁছেছে। এ বার শুধু ইতিহাস গড়ার পালা। ভারতকে বর্ডার-গাভাসকর ট্রফি জেতানো রাহানের গলায় ফুটে উঠছে WTC ফাইনাল নিয়ে আত্মবিশ্বাসের সুর।

বিরাটের ডেপুটি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের সফরের কথা তুলে ধরতে গিয়ে বিসিসিআইয়ের এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, “২ বছর ধরে আমরা একটানা ক্রিকেট খেলে এসেছি, বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে উঠে তার ফলই আমারা পেয়েছি। এই সফরটা এতটাও সহজ ছিল না। কারণ টেস্ট ক্রিকেটের প্রতিটা ম্যাচে সেরাটা দিতে হয়েছে। সব মিলিয়ে যখন থেকে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু হয়েছে, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ম্যাচ দিয়ে সফর শুরু করেছিলাম আমরা। পুরো সফরে দলগত পারফম্যান্সই আমাদের এগিয়ে নিয়ে এসেছে। অবশ্যই এটা একটা গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ। বাড়তি চাপ অনুভব না করে, আমরা এই ম্যাচটাকে মনে করব অন্য একটা ম্যাচের মতই। সাউদাম্পটনে অনুশীলন করার ভালো সুযোগ পেয়েছি আমরা। ব্যক্তিগতভাবে আমি ভীষণ উৎসুক ফাইনালের জন্য এবং দলের সকলেই উৎসুক। আমরা নিজেদের একশো শতাংশ দেব। তার পর যা রেজাল্ট হবে সেটা তো মেনে নিতেই হবে।”

তিনি আরও বলেন, “ব্যাটসম্যানরা কঠিন পরিস্থিতিতে খেলার চ্যালেঞ্জ নিতে পছন্দ করেন। ইংল্যান্ড হল এমন একটা জায়গা যেখানে, চ্যালেঞ্জের সঙ্গে খেলা উপভোগ করা যায়। আমি সবসময় বিশ্বাস করি, বল একটু দেরিতে খেললে, সেটা ব্যাটসম্যানেরই ভালো হয়। ব্যাটসম্যান হিসেবে এখানে সেট হওয়াটা বেশ কঠিন। এমন একটা বল আসবে, যাতে উইকেট হারাতে হবে।”

অস্ট্রেলিয়ায় রাহানের নেতৃত্বে ২-১ সিরিজ জেতে টিম ইন্ডিয়া। সেই স্মৃতি কখনও ভোলার নয়। ভুলতে পারেননি রাহানেও। তাঁর কথায়, “যখন আমি অস্ট্রেলিয়ায় দলকে নেতৃত্ব দিয়েছিলাম, সেটা আমার কাছে সব থেকে গর্বের মুহূর্ত ছিল। দেশের হয়ে খেলা, আবার দলকে নেতৃত্ব দেওয়াটা একটা আলাদা অনুভূতি দেয়। আর তার পর আমরা যখন ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতলাম, সেই আনন্দটা বলে বোঝানোর নয়। তার পর থেকে আমরা একের পর এক সেরা পারফরম্যান্স দিয়ে চলেছি। এ বার সামনে WTC ফাইনাল। সেখানেও আমরা ভালো করব। যার জন্য পুরোদমে প্রস্তুতি চালিয়ে যাচ্ছি।”

আরও পড়ুন: WTC Final: কিউয়িরা WTC ফাইনালের আগে অ্যাডভান্টেজ পেলেও, পিছিয়ে নেই মেন ইন ব্লু : পূজারা

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla