Bikaner-Guwahati Express Train Accident: রাতভর চলছে উদ্ধারকার্য, লাইনচ্যুত কামরার ভেতর থেকে গ্যাস-কাটার দিয়ে কেটে আনা হচ্ছে মৃতদেহ!

Maynaguri Train Accident: শুক্রবার সকালেই জলপাইগুড়ির দোমহনিতে ট্রেন দুর্ঘটনাস্থলে আলিপুরদুয়ারের সাংসদ জন বার্লা। তিনি জানিয়েছেন, আহতদের সকলকেই হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। কী ভাবে দুর্ঘটনা, তার তদন্তও শুরু হয়েছে।

Bikaner-Guwahati Express Train Accident: রাতভর চলছে উদ্ধারকার্য, লাইনচ্যুত কামরার ভেতর থেকে গ্যাস-কাটার দিয়ে কেটে আনা হচ্ছে মৃতদেহ!
রেল দুর্ঘটনা, নিজস্ব চিত্র।

কোচবিহার ও জলপাইগুড়ি: আচমকা একটা শব্দ। কেঁপে উঠেছিল কামরাগুলো। তখনও বোঝেননি কেউ কোন বিপদ অপেক্ষা করে রয়েছে। যখন জ্ঞান হল ততক্ষণে লন্ডভন্ড হয়ে গিয়েছে সব। ছড়িয়ে ছিটিয়ে গিয়েছেন প্রিয়জনেরা। কেউ চাপা পড়েছেন কামরার মধ্যেই। কেউ বা প্রাণে বাঁচতে ঝাঁপ দিয়েছেন জানলার বাইরে। বৃহস্পতিবার  বিকেলে ময়নাগুড়ির দোমহনি সাক্ষী থাকল ভয়াবহ দুর্ঘটনার (Maynaguri Train Accident)।

বিকানের-গুয়াহাটি এক্সপ্রেসের প্রায় ১২ টা কামরা লাইনচ্যুত হয়ে পড়ে। শেষ পাওয়া খবর পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ৯। আহত বহু। যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে চলছে উদ্ধারকার্য। ঘটনাস্থলে আনা হয়েছে দুটি ক্রেন। গ্যাস-কাটার দিয়ে কেটে বহু চেষ্টার পরে মৃতদেহ উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। পাশাপাশি, রাত তিনটে নাগাদ হাইড্রোলিক ডিরেলইড মেশিন আনা হয়। দুর্ঘটনাগ্রস্ত রেলের ইঞ্জিনটিকে লাইনে বসানোর কাজ চলছে। দুমড়ে মুচড়ে যাওয়া রেলের কামরাগুলি সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চলছে।

ঘটনাস্থলে যে বগিগুলো লাইনে পড়েছিল তা সরিয়ে দেওয়া হয়। যদিও এখনও ৫টি বগি এখনও লাইনেই আটকে রয়েছে। সেগুলিও সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চলছে। পাশাপাশি রেল লাইন সারানোর কাজ চলছে। এরইমধ্যে নজরে এসেছে, দুর্ঘটনাগ্রস্ত বিকানের গুয়াহাটি এক্সপ্রেসের ইঞ্জিনের নীচে থাকা ট্রাকশন মোটর। দেখা গিয়েছে, সেটি রেললাইনের উপর পড়ে গিয়েছে। আধিকারিকরা যদিও এ নিয়ে এখনও কিছু স্পষ্ট করে বলছেন না। কারণ, সবটাই তদন্তাধীন।

শুক্রবার সকালেই জলপাইগুড়ির দোমহনিতে ট্রেন দুর্ঘটনাস্থলে আলিপুরদুয়ারের সাংসদ জন বার্লা। তিনি জানিয়েছেন, আহতদের সকলকেই হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। কী ভাবে দুর্ঘটনা, তার তদন্তও শুরু হয়েছে। এদিনই ঘটনাস্থলে গিয়েছেন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণ। এদিকে, রেল দুর্ঘটনার কারণ কী জানতে চেয়ে উচ্চ পর্যায়ের তদন্তের আর্জি জানিয়েছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী। সিবিআই তদন্তের দাবি জানিয়েছেন, বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ রূপা গঙ্গোপাধ্যায়।

ইতিমধ্যেই দুর্ঘটনায় উচ্চ পর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে রেল। শুক্রবারই ঘটনাস্থলে পৌঁছচ্ছেন, কমিশনার অফ রেলওয়ে সেফটির একটি বিশেষ প্রতিনিধি দল। খতিয়ে দেখা হবে, যান্ত্রিক ব্যবস্থাপনা।

বৃহস্পতিবার। বিকেল ৪টে ৫৩। দোমহানি স্টেশন ছাড়ে আপ বিকানের এক্সপ্রেস। ৪টে ৫৮ দুর্ঘটনা। আচমকাই ব্রেক কষে থমকে যায় ট্রেন। সে সময় ট্রেনের গতি ছিল ঘণ্টায় ৪০ কিলোমিটার। লাইনচ্যুত হয়ে ছিটকে যায় ট্রেনের বগিগুলি। স্থানীয় বাসিন্দা ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রেলের কামরাগুলি একটি আরেকটির উপর উঠে পড়ে, যেন খেলনা গাড়ি! দুর্ঘটনায় বেঁকেচুরে যায় প্রায় ১২ টি কামরা। গুরুতর জখম হন ৪২ জন। শেষ পাওয়া খবর পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৯ জন যাত্রীর। আহতদের জলপাইগুড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: Bikaner-Guwahati Express Train Accident: হাসপাতালে হাহাকার! রেলদুর্ঘটনায় আপাতত স্থিতিশীল আহতরা, বলছেন চিকিৎসকরা

Published On - 9:41 am, Fri, 14 January 22

Related News

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla