Maynaguri: আঙুলের ছাপ নিয়ে টাকা তোলার অভিযোগ তৃণমূল কর্মীর বিরুদ্ধে, ধরা পড়ে বৃদ্ধাকেই ‘পেটালো’ নেতা

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: অংশুমান গোস্বামী

Updated on: Sep 02, 2022 | 7:51 PM

TMC Leader: জানা গিয়েছে, ময়নাগুড়ি ভোটপট্টি স্টেশন পাড়া এলাকার বাসিন্দা ময়না দাস (৭০)। ১০০ দিনের কাজ নাম ওঠানো হবে, এই অছিলায় সম্প্রতি ওই বৃদ্ধার বাড়িতে যায় তৃণমূলের স্থানীয় সুপার ভাইজার তরুণ রায়।

Maynaguri: আঙুলের ছাপ নিয়ে টাকা তোলার অভিযোগ তৃণমূল কর্মীর বিরুদ্ধে, ধরা পড়ে বৃদ্ধাকেই ‘পেটালো’ নেতা
মারের জেরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই বৃদ্ধা

ময়নাগুড়ি: সোয়াপ মেশিন এনে আঙুলের ছাপ নিয়ে বৃদ্ধার টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের সুপার ভাইজারের বিরুদ্ধে। টাকা আত্মসাতের বিষয়টি ধরে ফেলেছিল ওই বৃদ্ধার পরিবার। শুক্রবার বৃদ্ধা ফুল তুলে গেলে, তাঁকে ‘ফুল চোর’ অপবাদ দিয়ে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠেছে ওই তৃণমূলকর্মীর বিরুদ্ধে। মার খেয়ে ওই বৃদ্ধা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ালো জলপাইগুড়ি জেলার ময়নাগুড়ির ভোটপট্টি স্টেশন পাড়া এলাকায়।

জানা গিয়েছে, ময়নাগুড়ি ভোটপট্টি স্টেশন পাড়া এলাকার বাসিন্দা ময়না দাস (৭০)। ১০০ দিনের কাজ নাম ওঠানো হবে, এই অছিলায় সম্প্রতি ওই বৃদ্ধার বাড়িতে যায় তৃণমূলের স্থানীয় সুপার ভাইজার তরুণ রায়। বৃদ্ধার বাড়িতে বসে সোয়াপ মেশিন এনে আঙুলের ছাপ নিয়ে ১০ হাজার টাকা আত্মসাৎ করা হয় বলে অভিযোগ। পরে তরুণকে পাড়ার সকলে মিলে চেপে ধরলে টাকা ফেরত দিয়ে দেয় অভিযুক্ত। শুক্রবার সকালে বৃদ্ধাকে ফুল চোর অপবাদ দিয়ে বেধড়ক মারধর করে গলা টিপে ধরেছিল বলে অভিযোগ তরুন রায়ের বিরুদ্ধে। ঘটনায় গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন ওই বৃদ্ধা। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে ময়নাগুড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। পরে তাঁকে জলপাইগুড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি।

ঘটনা নিয়ে বৃদ্ধা ময়না দাস বলেছেন, “১০০ দিনের কাজের টাকা দেওয়া হবে বলে আমার আঙুলের ছাপ নেয়। প্রথমে আমি দিতে চাইনি। পরে আমার থেকে জোর করে ছাপ নেয়। আমি বিষয়টি পঞ্চায়েতকে জানায়। পঞ্চায়েত থেকে বলে, এখন কোনও টাকা দেওয়া হবে না। ওরা আমার ১০ হাজার টাকা তুলে নিয়েছিল। আজ আমাকে মারল।“ আহত বৃদ্ধের বৌমা কল্পনা দাস বলেছেন, “আমার শাশুড়ি পেনশন পায়। তাঁর ব্যাঙ্কে ১ লক্ষ টাকা ছিল। এ কথা জানতে পেরে ওই যুবক আমার শাশুড়িকে বলেন ১০০ দিনের কাজ এসেছে। একটি মেশিন এনেছি এখানে আঙ্গুলের ছাপ দিতে হবে। পরে আঙুলের ছাপ নিয়ে চলে যায়। এর পর স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্যকে সেই বিষয়টি জানানো হলে তিনি বলেন এখন কোনও ১০০ দিনের টাকা দেওয়া হবে না। এর পর আমরা তাঁকে চেপে ধরলে সে টাকা ফেরত দেয়। আজ সকালে আমার শ্বাশুড়ি ফুল তুলতে গেলে তাকে ফুল চোর অপবাদ দিয়ে বেধড়ক মারধর করে।“

ঘটনা নিয়ে স্থানীয় বিজেপি নেতা পুষ্পজিৎ নন্দ বলেছেন, “বাড়িতে মেশিন এনে বৃদ্ধার টাকা চুরি করেছিল তৃণমূল নেতা। চেপে ধরলে টাকা ফেরত দেয়। উল্টে বৃদ্ধাকে প্রচণ্ড মারধর করে তৃণমূল নেতা। আমরা এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। অভিযুক্তের শাস্তি চাই।“ যদিও এই ঘটনায় অভিযুক্তের পাশে দাঁড়ায় তৃণমূলের ময়নাগুড়ির ব্লক সভাপতি শিবশঙ্কর দত্ত। যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করে তিনি বলেন, “তরুণ নামে ছেলেটি একটি মিনি ব্যাঙ্ক চালায়। বৃদ্ধ মহিলা তার কাছ থেকে ১০ হাজার টাকা তোলে। সঙ্গে টাকা না থাকার কারণে ওই টাকা তরুণ পরের দিন দেয়। আজ তরুণের বাড়িতে ফুল তুলতে গেলে তরুণের মার সঙ্হে বচসা হয়। তখন বৃদ্ধা তরুণকে টাকা চোর অপবাদ দেয়। এর বেশি কিছু হয়নি ওখানে।“

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla