হাসপাতালের সামনে পড়ে পলিথিনে মোড়া মৃতদেহ! আতঙ্কে রোগীর পরিজনরা

যদিও এই ঘটনায় হাসপাতাল (Contai Hospital) কর্তৃপক্ষ কোনও মন্তব্য করতে চায়নি। তদন্তের স্বার্থে এখনই কিছু বলতে চাইছে না পুলিশও।

হাসপাতালের সামনে পড়ে পলিথিনে মোড়া মৃতদেহ! আতঙ্কে রোগীর পরিজনরা
নিজস্ব চিত্র।

পূর্ব মেদিনীপুর: হাসপাতালের সামনে পড়ে রয়েছে প্যাকেটবন্দি মৃতদেহ। রবিবার সকালে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়ায় কাঁথি (Contai) মহকুমা হাসপাতালে। অভিযোগ, এদিন সকালে কাঁথি মহকুমা হাসপাতালে জরুরি বিভাগের সামনে পলিথিন বন্দি মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখেন রোগীর আত্মীয়রা। খবর ছড়াতেই শোরগোল পড়ে যায় এলাকায়।

হাসপাতালের রোগী ও পরিজনদের মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় কাঁথি থানার পুলিশ। এরপর মৃতদেহটি সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। মৃতদেহটি পুরুষ নাকি মহিলা তা এখনও স্পষ্ট নয়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে কাঁথি থানার পুলিশ। খতিয়ে দেখা হচ্ছে হাসপাতালের সিসিটিভি ফুটেজ। পলিথিনের ভিতর কোনও শিশুর মৃতদেহ থাকতে পারে বলে পুলিশ সূত্রের খবর।

আরও পড়ুন: ৩৬ ঘণ্টায় ১২ লক্ষের বিল! করোনায় মৃতের পরিবারের কপালে হাত

যদিও এই ঘটনায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কোনও মন্তব্য করতে চায়নি। তদন্তের স্বার্থে এখনই কিছু বলতে চাইছে না পুলিশও। কাঁথি হাসপাতালে আসা নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক রোগীর আত্মীয় বলেন, ”সকালে হাসপাতালে জরুরি বিভাগের সামনে পলিথিন মোড়ানো কী একটা পড়েছিল৷ পড়ে শুনলাম ওটার মধ্যে মৃতদেহ রয়েছে৷” কে বা কারা কেন, কী কারণে প্যাকেটবন্দি মৃতদেহ ফেলে রেখে গেল, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে৷ হাসপাতালের নিরাপত্তা কর্মীদের ভূমিকাও প্রশ্নের মুখে৷ পুলিশের বক্তব্য, ময়না তদন্ত না হওয়া পর্যন্ত কিছু বলা সম্ভব নয়।