দিলীপ ঘোষের প্রচারে নিষেধাজ্ঞা কমিশনের

নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে বিজেপি রাজ্য সভাপতির উপর ২৪ ঘণ্টার নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। ফলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও রাহুল সিনহার পর দিলীপের প্রচারেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হল।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 19:13 PM, 15 Apr 2021
দিলীপ ঘোষের প্রচারে নিষেধাজ্ঞা কমিশনের
ফাইল ছবি

নয়া দিল্লি: শীতলকুচি কাণ্ড নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে এ বার বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের নির্বাচনী প্রচারে নিষেধাজ্ঞা জারি করল নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে বিজেপি রাজ্য সভাপতির উপর ২৪ ঘণ্টার নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। ফলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও রাহুল সিনহার পর দিলীপের প্রচারেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হল। কমিশন সূত্রে খবর, ১৫ এপ্রিল সন্ধ্যা ৭ টা থেকে ১৬ এপ্রিল সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা জারি থাকছে।

কী এমন বলেছিলেন দিলীপবাবু যার জন্য ব্যান করা হল তাঁকে? সূত্রের খবর, দিলীপ ঘোষ একটি বরাহনগরের নির্বাচনী প্রচারে বেরিয়ে বলেছিলেন, “যে দুষ্টু ছেলেরা কোচবিহারের শীতলকুচিতে গুলি খেয়েছে, তারা থাকবে না বাংলায়। সবে শুরু হয়েছে। যারা ভেবেছে যে কেন্দ্রীয় বাহিনী বন্দুকটা দেখানোর জন্য নিয়ে এসেছে, তাঁরা বুঝেছে গুলির গরম কেমন। এটা সারা বাংলায় হবে। যদি কেউ আইন হাতে নিতে আসে তাঁকে যোগ্য জবাব দেওয়া হবে।”

আরও পড়ুন: শীতলকুচি নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জের, সায়ন্তন বসুর কাছে জবাব তলব কমিশনের

তাঁর এই মন্তব্যের প্রেক্ষিতে নোটিস দিয়ে দিলীপের জবাব তলব করেছিল নির্বাচন কমিশন। তিনি জবাবও দেন। তবে দিলীপের সেই জবাব নির্বাচন কমিশনকে সন্তুষ্ট করতে পারেনি বলেই খবর সূত্রের। যে কারণে এ দিন তাঁর প্রচারে নিষেধাজ্ঞা জারি করার সিদ্ধান্ত নেয় কমিশন। প্রসঙ্গত, এর আগে রাহুল সিনহাকেও ৪৮ ঘণ্টার জন্য ব্যান করেছিল কমিশন। এ বার একই পদক্ষেপ করা হল বিজেপি রাজ্য সভাপতির ক্ষেত্রেও। বিতর্কিত মন্তব্যের কারণে আরেক বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসুর কাছেও এ দিন জবাব তলব করেছে নির্বাচন কমিশন।

আরও পড়ুন: বঙ্গে শেষ তিন দফার ভোট কি একসঙ্গে? চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাল নির্বাচন কমিশন