তৃণমূল না গেলে পশ্চিমবঙ্গ কাশ্মীর হয়ে যাবে: শুভেন্দু অধিকারী

"সিবিআইকে ধন্যবাদ, এই প্রাসাদোপম বাড়ি সবাইকে দেখানোর জন্য,'' দক্ষিণ ২৪ পরগনায় দাঁড়িয়ে অভিষেককে শুভেন্দুর তোপ

  • TV9 Bangla
  • Published On - 18:40 PM, 23 Feb 2021
তৃণমূল না গেলে পশ্চিমবঙ্গ কাশ্মীর হয়ে যাবে: শুভেন্দু অধিকারী
ফাইল চিত্র

দক্ষিণ ২৪ পরগনা: “কলকাতা লন্ডন হয়নি, তৃণমূল না গেলে পশ্চিমবঙ্গ কাশ্মীর হয়ে যাবে।” দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার কুলতুলির সভা থেকে এমনই মন্তব্য করলেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। মঙ্গলবার বিকেলে তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Abhishek Banerjee) গড়ে দাঁড়িয়ে ফের তাঁকে তীব্র আক্রমণ শানান অধুনা বিজেপি নেতা। কয়লা কাণ্ড (Coal Scam)-এর প্রসঙ্গ টেনে অভিষেককে নিশানা করে তাঁর মন্তব্য, “সিবিআইকে ধন্যবাদ, ওই প্রাসাদোপম বাড়ি সবাইকে দেখানোর জন্য।” তিনি যোগ করেন, “করুণানিধির মেয়ে কানিমোঝিকেও তো জেল খাটতে হয়েছিল।” কেউ আইনের উর্ধ্বে নন, মন্তব্য শুভেন্দুর।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে প্রায় ত্রিশ বছরের সম্পর্ক চুকিয়ে ফেব্রুয়ারি মাসেই তৃণমূল ছেড়েছেন ডায়মন্ড হারবারের বিধায়ক দীপক হালদার। এদিন তাঁর পাশে দাঁড়িয়ে শুভেন্দুর তোপ, তাঁর পুরনো দল (তৃণমূল) এক একজনকে অপমান করে সরিয়ে দিচ্ছে। এই প্রসঙ্গে তিনি ফলতার প্রয়াত তৃণমূল বিধায়ক তমোনাশ ঘোষের নামও টেনে আনেন। বলেন, তৃণমূলের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা নেতাকেও তিন বছর তাঁর নির্বাচনী কেন্দ্র ফলতায় ঢুকতে দেওয়া হয়নি। দুলাল দাসকে রাত একটায় থানায় ধরনা দিতে হয়। ডায়মন্ড হারবারের দীপক হালদারকে সভায় ডাকা হয় না। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার ‘অধীশ্বর’ ও ‘মুখ্যমন্ত্রী’ বলে কটাক্ষ করে শুভেন্দু বলেন, ওনার ইচ্ছা ছাড়া কেউ দলীয় সভাতেও ডাক পান না।

দীপক হালদারের পাশে দাঁড়িয়ে নন্দীগ্রামের পদত্যাগী বিধায়ক বলেন, “অনেক যন্ত্রণা নিয়ে তিনি তৃণমূল ছেড়েছেন।” তিনি যোগ করেন, “দক্ষিণ ২৪ পরগনায় যে তোলাবাজ ভাইপোর নেতৃত্বে অত্যাচার হচ্ছে।” পাড়ায় পাড়ায় মোড়ে মোড়ে গণেশ মণ্ডল, বারুইপুরের গৌতম দাস, ভাঙড়ের আরাবুল ইসলাম, ফলতার জাহাঙ্গির খানের মতো ‘ছোট ছোট তোলাবাজ’কে পুলিশ স্যালুট করে। পুলিশকে নিয়ে জেলাজুড়ে গণতন্ত্রের সর্বনাশ হয়েছে বলে রাজ্যের শাসক দলকে তীব্র নিশানা শুভেন্দুর।

এরপর সরাসরি তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্বকে তোপ দেগে অধিকারীর কটাক্ষ, “তৃণমূল জমানায় নীল সাদা রঙ ছাড়া আর কোনও কাজ হয়নি। এখন শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে হাইকোর্টে কানমলা দিয়েছে। তাই বেকারদের বাঁচাতে গেলে দরকার ডবল ইঞ্জিন সরকার। এর পরই তাঁর মন্তব্য, “পশ্চিমবঙ্গ কাশ্মীর হবে। আপনাদের উদবাস্তু হতে হবে। তৈরি হন। এই সরকারকে ফেলুন।”

আরও পড়ুন: সিবিআই আমাকেও নোটিস দিতে পারে: অনুব্রত মণ্ডল

কিছুদিন আগে শুভেন্দুর গড় কাঁথিতে দাঁড়িয়ে তাঁকে তীব্র নিশানা করেছিলেন অভিষেক। এবার অভিষেকের নির্বাচনী কেন্দ্রে দাঁড়িয়ে তাঁকে একের পর এক আক্রমণ করলেন শুভেন্দু। এখন এর পাল্টা যুব তৃণমূলের সভাপতি কী বলেন সেটাই দেখার।