বিচ্ছেদের গুঞ্জনের মাঝেই সামান্থা-নাগার পরিবারের নতুন সদস্য

সেই সদস্য আবার চারপেয়ে। ঘরজুড়ে প্রস্রাব করে ফেলছে সে। তাতে অবশ্য রেগে যাচ্ছেন না সামান্থা। উপরন্তু ইনস্টা বন্ধুদের সঙ্গে তার আলাপ করিয়েও দিয়েছেন।

বিচ্ছেদের গুঞ্জনের মাঝেই সামান্থা-নাগার পরিবারের নতুন সদস্য
সামান্থা-নাগা

দক্ষিণী সুপারস্টার নাগা চৈতন্যের সঙ্গে অভিনেত্রী সামান্থা প্রভুর বিচ্ছেদ নিয়ে তোলপাড় ইন্ডাস্ট্রি। তবে দুজনেই মুখে কুলুও এঁটেছেন। এরই মধ্যে তাঁদের পরিবারের যুক্ত হল এক নতুন সদস্য।

সেই সদস্য আবার চারপেয়ে। ঘরজুড়ে প্রস্রাব করে ফেলছে সে। তাতে অবশ্য রেগে যাচ্ছেন না সামান্থা। উপরন্তু ইনস্টা বন্ধুদের সঙ্গে তার আলাপ করিয়েও দিয়েছেন। সামান্থার পরিবারের ওই নতুন সদস্যর নাম সাশা। আদপে সে পিটবুল। সামান্থার আরও এক পিটবুল রয়েছে। কিন্তু সাশা হল পরিবারের সর্বকনিষ্ঠ সদস্য। তার ছবি শেয়ার করে ফ্যামিলি ম্যানের রাজি লিখেছেন, “১৯ বার তার হিসু পরিষ্কার করলাম। এখন সকাল সবেমাত্র ৯টা। এখন ৫ মিনিটের প্রশান্তি। শুধু দেখে যাচ্ছি এই ছোট্ট দৈত্য পি-প্যাড পরে সারা বাড়ি দাপিয়ে বেড়াচ্ছে।” পরিবারে নতুন সদস্য যুক্ত হলেও তাঁদের বিয়ে নিয়ে গুঞ্জন অব্যাহত।

বিচ্ছেদের জল্পনার সূত্রপাত মাস খানেক আগেই। হঠাৎই নিজের ইনস্টাগ্রাম থেকে বিবাহসূত্রে পাওয়া পদবী ‘আক্কিনেনি’ সরিয়ে ফেলেন সামান্থা। তাঁর জায়গায় লিখে দেন শুধু ‘এস’। কিন্তু নাগা চৈতন্যের সঙ্গে বিয়ে ইস্তক ওই পদবীই ব্যবহার করছিলেন তিনি। ফলত শুরু হয় গুঞ্জন। কেন হঠাৎ এই পদবী পরিবর্তন? নেপথ্যে কী কারণ। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সামান্থা জানান, এখনই এ নিয়ে কিছুই বলতে চান না তিনি। যখন মনে হবে তখনই এই ‘গুঞ্জন’ নিয়ে মুখ খুললেন তিনি।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by S (@samantharuthprabhuoffl)


পাশাপাশি তিনি এও যোগ করেন, নিজের মতামতের প্রতি তাঁর আস্থা রয়েছে। বিতর্ক সেখানে কোনও প্রভাব ফেলবে না। ফ্যামিলি ম্যানের সাফল্যের পর বলিউডেরও অফার পেতে শুরু করেছেন এই দক্ষিণী অভিনেত্রী। দক্ষিণী ছবি ছাড়াও বলিউডেও যে তাঁর পাকাপাকি ভাবে কাজ করার ইচ্ছে রয়েছে সে কথাও ওই সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন সামান্থা। প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালে নাগা চৈতন্যের সঙ্গে বিয়ে হয় তাঁর। সম্পর্ক কোন দিকে বাঁক নেয় এখন সেটাই দেখার।

দিন কয়েক আগেই প্রকাশ্যে ক্ষমা চেয়েছেন সামান্থা। ‘দ্য ফ্যামিলি ম্যান’-এর দ্বিতীয় সিজনে তাঁর অভিনীত ‘রাজি’ চরিত্র নিয়ে যে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছিল তাতে যদি কারও ভাবাবেগে আঘাত লেগে থাকে সে জন্য প্রকাশ্যেই ক্ষমা প্রার্থনা তাঁর।

এ প্রসঙ্গে সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সামান্থা বলেন, “প্রত্যেকের নিজস্ব মতামত আছে। আমি কারও আবেগে আঘাত দিয়ে থাকলে সত্যিই অনুতপ্ত। আমি এরকম ভাবে আঘাত করতে চাইনি। যদি করে থাকি তাহলে দুঃখিত।” তবে সিরিজ মুক্তি পাওয়ার পর বিতর্ক যে অনেকটাই কমে এসেছিল সে কথা উল্লেখ করে সামান্থা বলেন, “অনেকেই মুক্তির পরে দেখেছেন যতটা ভেবেছিলেন ততটা খারাপ নয়। কিন্তু যারা এখনও একই মত পোষণ করেন, তাঁদের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি।”

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla