‘দেহ ব্যবসায়ী হিসেবে প্রদর্শন’, ক্ষোভ-দুঃখে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন কেরলের প্রথম রূপান্তরকামী প্রার্থী

গতকাল ২৮ বছর বয়সী অনন্যা কুমারী অ্যালেক্স (Anannyah Kumari Alex) জানান, তিনি বিধানসভা নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন। আচমকা এই সিদ্ধান্তের পিছনে কারণ হিসাবে তিনি জানান, দলের শীর্ষ নেতারাই তাঁকে বাধ্য করেছেন নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে।

'দেহ ব্যবসায়ী হিসেবে প্রদর্শন', ক্ষোভ-দুঃখে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন কেরলের প্রথম রূপান্তরকামী প্রার্থী
ফাইল চিত্র।

মালাপ্পুরম: কেরলের প্রথম রূপান্তরকামী প্রার্থী হয়েছিলেন তিনি। কিন্তু বিধানসভা নির্বাচনের চারদিন আগেই নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন অনন্যা কুমারী অ্যালেক্স (Anannyah Kumari Alex)। মনোয়নন তুলে নেওয়ার কারণ হিসাবে তিনি জানান, তাঁর দল ডেমোক্রাটিক সোশ্যাল জাস্টিস পার্টি(Democratic Social Justice Party)-র নেতারা তাঁর উপর ক্রমাগত মানসিক অত্যাচার চালিয়েছেন, এমনকি খুন করার হুমকিও দিয়েছেন।

আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী হিসাবে অনন্যার নাম ঘোষণার পরই খবরের শিরোনামে উঠে আসেন তিনি। কারণ তিনিই কেরলের প্রথম রূপান্তরকামী মহিলা, যিনি ভোটে লড়বেন। সম্প্রতি মনোয়নন পত্রও জমা দিয়েছিলেন তিনি। জোরকদমে চলছিল নির্বাচনী প্রচারও। কিন্তু আচমকাই তিনি প্রার্থী পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা করেন।

গত ২৩ তারিখ মনোয়নন পত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন থাকলেও তখন মনোয়ননন পত্র তুলে নেননি তিনি। গতকাল ২৮ বছর বয়সী অ্যালেক্স জানান, তিনি বিধানসভা নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন। আচমকা এই সিদ্ধান্তের পিছনে কারণ হিসাবে তিনি জানান, দলের শীর্ষ নেতারাই তাঁকে বাধ্য করেছেন।

আরও পড়ুন: Corona Cases and Lockdown News: একদিনে ৮৯ হাজারে সর্বোচ্চ সংক্রমণ দেশে, মৃতদেহের পাহাড় ছত্তিসগঢ়ে

দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়ে অনন্যা বলেন, “ডিএসজেপি নেতারা জোর করে আমাকে দিয়ে ইউডিএফ প্রার্থী পিকে কুনহালিকুট্টির বিষয়ে নোংরা কথা বলতে ও এলডিএফ সরকারের সমালোচনা করিয়েছেন। নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে আমায় ঘোমটা দিতেও বাধ্য করা হয়েছে। দলের নেতাদের সঙ্গে মতাদর্শে মিল না হওয়ার পর থেকেই প্রতিনিয়ত আমার উপর মানসিক অত্যাচার চালিয়েছেন।”

তিনি আরও অভিযোগ জানিয়ে বলেন, “ডিএসজেপি নেতারা আমায় অন্য কোনও উদ্দেশ্য নিয়ে ব্যবহার করছিল। প্রথমে আমি বুঝতে পারিনি। আমার নিজের মতামত রয়েছে এবং আমি ভোটের জন্য সেই মতামত জলাঞ্জলি দিতে রাজি নই। ওরা আমায় দেহ ব্যবসায়ী হিসাবে দেখিয়েছে এবং অপমান করেছে। এই ঘটনার বিরোধিতা করতেই ওরা আমায় খুনের হুমকিও দিয়েছে।”

অনন্যা জানান, কেরলে রূপান্তকামীদের মতামত তুলে ধরার জন্যই আমি নির্বাচনে লড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। তবে আমায় ব্যবহার করা হচ্ছে, এই বিষয়টি বুঝতে পেরেই আমি সরে দাঁড়ালাম।

আরও পড়ুন: টিউশন থেকে ফেরার পথে গণধর্ষিত দশম শ্রেণির ছাত্রী, লজ্জায় আত্মহত্যা

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla