খেলা ঘুরছে আগরতলায়, শর্ত মানলে মমতার পাশে ত্রিপুরার রাজা

TMC in Tripura : প্রদ্যোত দেববর্মার বক্তব্য, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যদি লিখিতভাবে গ্রেটার তিপরাল্যান্ডের দাবিকে সমর্থন জানান, তাহলে মমতার সঙ্গে বিজেপি-বিরোধী জোট তৈরি করতে তাঁর কোনও আপত্তি নেই। 

খেলা ঘুরছে আগরতলায়, শর্ত মানলে মমতার পাশে ত্রিপুরার রাজা
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে দাঁড়াতে পারেন ত্রিপুরার রাজা

আগরতলা : খেলা জমে উঠছে ত্রিপুরায়। বিধানসভা ভোটের আগে নিজেদের ঘর সাজাতে চাইছে বিপ্লব দেবের সরকার। আর সেই সাজানো বিপ্লব-গড় ভেঙে নিজেদের পায়ের তলার মাটি শক্ত করতে চাইছে তৃণমূল নেতৃত্ব। বারবার ত্রিপুরায় উড়ে যাচ্ছেন তৃণমূলের প্রথম সারির নেতারা। বিরোধীদের একছাতার তলায় আসার জন্য আহ্বান করছে। আর ঠিক সেই সময়ে নতুন সমীকরণের ইঙ্গিত দিলেন ত্রিপুরার রাজা প্রদ্যোত বিক্রম মাণিক্য দেববর্মা।

সরাসরি কিছু না বললেও তৃণমূলের সঙ্গে জোটের রাস্তা খুলে রাখলেন তিনি। তাঁর সাফ কথা, রাজনীতিতে কেউই অস্পৃশ্য নয়। তৃণমূল যদি তাদের দাবিকে সমর্থন করে, তাহলে তৃণমূলের সঙ্গে জোট বাঁধতে কোনও আপত্তি নেই প্রদ্যোত দেববর্মার। প্রদ্যোতের থেকে যে এমন কিছু একটা বার্তা আসতে পারে, তার আন্দাজ কিছুদিন আগেই পাওয়া গিয়েছিল। কিছুদিন আগেই তৃণমূলের ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গে দেখা করেছিলেন প্রদ্যোত। আর তারপর থেকেই জল্পনা শুরু হয়েছিল।

ত্রিপুরার রাজা প্রদ্যোত দেববর্মার দাবি গ্রেটার তিপরাল্যান্ড। ত্রিপুরা, অসম এবং উত্তরপূর্বের কয়েকটি রাজ্য মিলিয়ে গ্রেটার তিপরাল্যান্ড গঠনের দাবি জানিয়ে আসছেন তিনি। এর জন্য একটি রাজনৈতিক দলও গঠন করে ফেলেছেন। সম্প্রতি অসমের জাতীয় পরিষদের সঙ্গে একমঞ্চে আসতেও দেখা গিয়েছে তাঁকে।

এখন প্রদ্যোত দেববর্মার বক্তব্য, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যদি লিখিতভাবে গ্রেটার তিপরাল্যান্ডের দাবিকে সমর্থন জানান, তাহলে মমতার সঙ্গে বিজেপি-বিরোধী জোট তৈরি করতে তাঁর কোনও আপত্তি নেই।

উল্লেখ্য, বাংলায় তৃতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় আসার পর এবার ত্রিপুরা দখল করতে উঠে পড়ে লেগেছে তৃণমূল। ত্রিপুরায় গিয়ে বারবার আক্রান্ত হয়েছে তৃণমূল নেতৃত্ব। আক্রান্ত হয়েছেন সাংসদরাও।

এই পরিস্থিতিতে প্রদ্যোতের এই বার্তাকে যথেষ্ট গুরুত্ব দিয়ে দেখছে তৃণমূল শিবির। তৃণমূল নেত্রী সুস্মিতা দেব ইতিমধ্যেই টুইটে জানিয়েছেন, জিতবে ত্রিপুরা। বিজেপি বিরোধী শক্তিগুলিকে এক ছাতার তলায় নিয়ে আসার চেষ্টায় তাঁর বক্তব্য, বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সবাই একত্রিত হলেই ত্রিপুরার স্বার্থরক্ষা হবে।

যদিও প্রদ্যোতবাবুর বক্তব্য, তাঁর কথার ভুল বার্তা বের করা হয়েছে। তিনি শুধু তৃণমূলকেই নয়, যারা গ্রেটার তিপরাল্যান্ডের দাবিকে সমর্থন করবে, তাদের প্রত্যেককে স্বাগত জানিয়েছেন ত্রিপুরার রাজা। সেক্ষেত্রে কেউই অচ্ছুত নয়।

ত্রিপুরাকেই এখন পাখির চোখ করে এগোচ্ছে তৃণমূল। ২০২৪-এর মধ্যে সর্বভারতীয় দল হিসেবে বিস্তার বাড়ানোর যে প্রচেষ্টা তৃণমূল চালাচ্ছে, তাতে তাদের প্রথম লক্ষ্য প্রতিবেশী রাজ্য ত্রিপুরা। ইতিমধ্যেই সে রাজ্যে শুরু হয়েছে দুই শিবিরের জোর টক্কর।

কিছুদিন আগে ত্রিপুরায় গিয়ে গ্রেফতার হয়েছিলেন তৃণমূলের যুব নেতারা। এমনকী তৃণমূলের অভিযোগ, গতকল বুধবার রাতভর পুলিশ তল্লাশি চালিয়েছে আমবাসায়, যেখানে আক্রান্ত হয়েছিলেন দেবাংশু ভট্টাচার্য, সুদীপ রাহা ও জয়া দত্ত।

আরও পড়ুন : যোগী-গড় ধরে রাখতে উত্তরপ্রদেশ ভোটের দায়িত্বে প্রহ্লাদ, ডেপুটি লকেট

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla