Alipur Zoo: সুখবর! পুজোর আগেই খুলছে চিড়িয়াখানা, কবে কখন জেনে নিন…

COVID19 Protocol: দর্শনার্থীদের জন্য মাস্ক-স্যানিটাইজার ব্যবহার বাধ্য়তামূলক করা হয়েছে। মানতে হবে সামাজিক দূরত্ব।

Alipur Zoo: সুখবর! পুজোর আগেই খুলছে চিড়িয়াখানা, কবে কখন জেনে নিন...
আলিপুর চিড়িয়াখানা, নিজস্ব চিত্র

কলকাতা: পুজোর আগেই খুলছে আলিপুর চিড়িয়াখানা (Alipur Zoo)। বুধবার সকাল সাড়ে ন’টার পরেই  খুলতে চলেছে আলিপুর চিড়িয়াখানা। গত বছর করোনার প্রথম ঢেউতে গত ১৭ মার্চ চিড়িয়াখানা বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর ফের পুজোর সময়ে কিছু সময়ের জন্য চিড়িয়াখানা খোলা হলেও ফের তা বন্ধ করে দেওয়া হয়। অবশেষে পুজোর আগেই খুলতে চলেছে চিড়িয়াখানা।

চিড়িয়াখানা (Alipur Zoo) সূত্রে খবর, বুধবার সকাল সাড়ে ন’টা থেকে খুলছে চি়ড়িয়াখানা। দর্শনার্থীদের জন্য মাস্ক-স্যানিটাইজার ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। মানতে হবে সামাজিক দূরত্ব। চিড়িয়াখানায় প্রবেশের আগে থার্মাল চেকিং বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এছাড়াও, চিড়িয়াখানায় থাকছেন একাধিক রক্ষী যাঁরা সামাজিক দূরত্ব বিধি বজায় রাখতে নির্দেশ দেবেন। দর্শনার্থীদের জন্য অনলাইন ও অফলাইন উভয় পদ্ধতিতেই টিকিট বুক করার ব্যবস্থা থাকছে।

কলকাতায় ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণ। সামনেই দুর্গাপুজো। আসন্ন করোনার তৃতীয় ঢেউও। এই পরিস্থিতিতে কীভাবে খুলছে  চিড়িয়াখানা। তাতে তো সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কাও থাকতে পারে। আলিপুর চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ সূত্রে খবর, চিড়িয়াখানার সকল কর্মীদের টিকাকরণ সম্পূর্ণ করা হয়েছে। তাই চিড়িয়াখানা খোলা হচ্ছে। তবে, দর্শনার্থীদের ক্ষেত্রে টিকাকরণের শংসাপত্র দেখানো বাধ্যতামূলক নয় বলেই জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। তবে, চিড়িয়াখানা পুরোপুরি খুলবে কি না তা নির্ভর করছে দর্শকদের চাহিদার উপর। চিড়িয়াখানায় একসঙ্গে ১০-১২ হাজার দর্শক প্রবেশ করলেও সমস্যা নেই। দর্শনার্থীদের উপস্থিতির হারের উপর নির্ভর করেই নিয়মিত চিড়িয়াখানা খোলা হবে। সেক্ষেত্রে, দর্শনার্থীর সংখ্যা অত্যন্ত কম হলে চিড়িয়াখানা ফের বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে।

উল্লেখ্য়, রাজ্যে এখনও জারি কোভিড বিধি। আনলক পর্ব চললেও এখনও পুরোপুরি শিথিল হয়নি বিধিনিষেধ। কোভিড আবহে, কেবল চিড়িয়াখানা নয়, বন্ধ হয়ে গিয়েছিল সিনেমা হল, থিয়েটার, মন্দির, মিউজিয়াম সবই। ধীরে ধীরে আগের ছন্দে ফিরতে শুরু করেছে শহর। ৫০ শতাংশ দর্শক নিয়ে খুলছে প্রেক্ষাগৃহ। রাজ্যের একাধিক মন্দিরও খুলে গিয়েছে। কোভিড বিধি মেনেই রাজ্যে চলছে পুজোর প্রস্তুতি। নবান্ন সূত্রে খবর, গত বছরের গাইডলাইন মেনেই এবছরেও দুর্গাপুজো করা হবে। পুজোর আগেই রাজ্যবাসীর টিকাকরণে জোর দিয়েছে সরকার। তৃতীয় ঢেউ মোকাবিলায় টিকাকরণকেই অধিক প্রাধান্য দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন: ফুলবদলের পথে বিজেপি বিধায়ক চন্দনা? বিষ্ণুপুরে আজই শুভেন্দু

আরও পড়ুন: COVID19 Vaccination: ‘বিজেপিদের ভ্যাকসিন দেওয়া হবে না’, বেছে বেছে তৃণমূলীদের কুপন!

 

 

 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla