করোনা পরিস্থিতি উদ্বেগজনক, সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন এই টলি-তারকারা

সারা দেশে করোনা পরিস্থিতি উদ্বেগজনক। দৈনিক আক্রান্তদের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। দ্বিতীয় দফার এই করোনা-তরঙ্গে মৃত্যুর হারও অনেক বেশি। অক্সিজেন, রক্ত, হাসপাতালের বেড—সব কিছুর সমস্যা দেখা দিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে টলি তারকাদের অনেকেই নিজেদের সাধ্যমত আক্রান্তদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 19:35 PM, 1 May 2021
1/8
অভিনেত্রী ছাড়াও মিমি চক্রবর্তীর অন্য পরিচয় তিনি নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি। সাংসদ। তাঁর নির্বাচনী এলাকায় করোনা আক্রান্তদের সাহায্যার্থে একটি হেল্প লাইন নম্বর চালু করলেন মিমি। টেলিফোনে পরামর্শ দেওয়ার জন্য চিকিৎসকদেরও পাওয়া যাবে। এই তথ্য সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে শেয়ার করেছেন মিমি। এই নম্বরটি ঠিক মতো কাজ করছে কি না, তা যাচাই করেছেন মিমি স্বয়ং।
2/8
পরমব্রত চটোপাধ্যায় এগিয়ে এসেছেন। তিনি ‘বাংলা সংস্কৃতি মঞ্চ’ এবং ‘HEDS’-এর সঙ্গে হাত মিলিয়ে করোনা আক্রান্তদের কাছে ওষুধ, অক্সিজেন এবং বাকি প্রয়োজনীয় জিনিস পৌঁছে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছেন।
3/8
স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়ের সোশ্যাল মিডিয়ার ওয়াল করোনা চিকিৎসা সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্যে ভরে গিয়েছে। কোথায় অক্সিজেন পাওয়া যাচ্ছে, কোথায় বেড খালি হচ্ছে, কার কাছে প্লাজমা পাওয়া যাবে, এরকম অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য অনবরত তিনি তাঁর ওয়ালে শেয়ার করে চলেছেন। কোনও বিরাম নেই।
4/8
সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের সোশ্যাল মিডিয়ার ওয়াল করোনা চিকিৎসা সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্যে ভরে গিয়েছে। এখানেই শেষ নয়। আরও একধাপ এগিয়ে তিনি করোনা আক্রান্তদের বাড়িতে বাড়িতে খাবার পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্ব নিয়েছেন। এই কাজে তাঁর সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন তাঁর মা। মা-ছেলে মিলে করোনা-আক্রান্তদের ‘হোম ডেলিভারি’ করছেন।
5/8
রুক্মিণী মৈত্র তাঁর প্লাজমা দানের কথা সোশ্যাল মিডিয়াতেই জানিয়েছেন। তিনি নিজেও করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। সম্প্রতি তিনি করোনা-মুক্ত হয়েছেন। কারা প্লাজমা দিতে পারবেন, কীভাবে পারবেন একটা ভিডিয়ো করে রুক্মিণী তিনি তাঁর সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন। সেই ভিডিয়োতেই তিনি জানিয়েছেন প্লাজমা দানের জন্য তিনি নিজেও রেজিস্ট্রেশন করেছেন।
6/8
ঋতাভরী চক্রবর্তী এবং তাঁর মা পরিচালক শতরূপা সান্যাল একটি এনজিও চালান। সেই এনজিওর উদ্যোগে ঋতাভরী বাসন্তী দত্তাবাদের ১০০জন সিনিয়র সিটিজেনকে ভ্যাকসিন দেওয়ানোর ব্যবস্থা করলেন। একটি বেসরকারি হাসপাতাল থেকে ১০০ ডোজ করোনা ভ্যাকসিন নিজেদের উদ্যোগে কিনে নিয়ে গিয়ে বয়স্ক মানুষদের জন্য এই ব্যবস্থা করেছেন অভিনেত্রী।
7/8
ঋতব্রত মুখোপাধ্যায় এবং তাঁর নাটক ‘দেশের নামে’-র গোটা টিম কোমর বেঁধে নেমে পড়েছে। কোথায় অক্সিজেন পাওয়া যাচ্ছে, কোথায় বেড খালি হচ্ছে, কার কাছে প্লাজমা পাওয়া যাবে, এরকম অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়ে তাঁরা দিনরাত সাহায্য করছেন।
8/8
শ্রীলেখা মিত্র তাঁর সাধ্যমত করোনা আক্রান্ত মানুষদের পাশ দাঁড়িয়েছেন। প্রযোজনমত ওষুধ, অক্সিজেন,খাবার পৌঁছে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছেন।