‘বিজেপি বিধায়কের অফিস থেকে টাকা নিয়ে চাকরি দেওয়া হয়’, বিস্ফোরক অভিযোগ আলিপুরদুয়ারের সৌরভের

Alipurduar: আলিপুরদুয়ারে তৃণমূল কংগ্রেসের দলীয় দফতরে বৃহস্পতিবার এক সাংবাদিক বৈঠক ডাকেন প্রাক্তন বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তী।

  • Publish Date - 12:16 am, Fri, 23 July 21 Edited By: সায়নী জোয়ারদার
'বিজেপি বিধায়কের অফিস থেকে টাকা নিয়ে চাকরি দেওয়া হয়', বিস্ফোরক অভিযোগ আলিপুরদুয়ারের সৌরভের
ফাইল চিত্র।

আলিপুরদুয়ার: বিজেপি বিধায়কের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ তুললেন আলিপুরদুয়ারের প্রাক্তন বিধায়ক। তৃণমূলে সৌরভ চক্রবর্তীর অভিযোগ, বিজেপি বিধায়ক সুমন কাঞ্জিলালের অফিসে বসেই টাকার বিনিময়ে চাকরি দেওয়ার ফাঁদ পাতা হয়। বিধায়ক সুমন কাঞ্জিলালের ডান হাত হিসাবে পরিচিত তথা আপ্ত সহায়ক বিদ্যুৎ দফতরে চাকরি দেওয়ার নামে মানুষকে প্রতারণা করেছেন বলে অভিযোগ সৌরভের।

আলিপুরদুয়ারে তৃণমূল কংগ্রেসের দলীয় দফতরে বৃহস্পতিবার এক সাংবাদিক বৈঠক ডাকেন প্রাক্তন বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তী। সেখানেই সৌরভ বলেন, “সুমন কাঞ্জিলালের অফিসে বসে তাঁর আপ্ত সহায়ক প্রতারণা করেছেন। প্রতারণার জালে বিজেপি কর্মীরাও পড়েছেন। সাধারণ মানুষকে প্রতারণা করা হচ্ছে। আমাকে ধরে নিতে হবে বিজেপি ঘরটাই প্রতারকের ঘর। সেই প্রতারকদের এজেন্ট হচ্ছেন সুমন কাঞ্জিলাল। গ্রেফতার হওয়া উচিৎ।”

বিজেপি বিধায়ক সুমন কাঞ্জিলাল এ প্রসঙ্গে বলেন, “এই অভিযোগের কোনও ভিত্তিই নেই। যিনি এই অভিযোগ তুলছেন তিনি প্রাক্তন বিধায়ক। তিনি জনগণের দ্বারা প্রত্যাখ্যাত হওয়ার জ্বালা যন্ত্রণা এখনও ভুলতে পারছেন না। আমার কোনও আপ্ত সহায়ক নেই। কোনও নিয়োগ কর্মী নেই। কে বাইরে কী করছে তার দায় তো বিধায়ক নিতে পারেন না। বরং প্রাক্তন বিধায়কের এ ধরনের মন্তব্য খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ভাবে সংবাদমাধ্যমের সামনে প্রচার করলে তার প্রমাণ দিতে হবে।” আরও পড়ুন: লাইসেন্সের নামে দেদার ‘টাকা তুলছিল’ ভুয়ো ফুড ইন্সপেক্টর, হাতেনাতে ধরল জগুবাবুর বাজারের ব্যবসায়ীরা

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla