বন্ধ হল গর্ভগৃহ, জলমগ্ন কঙ্কালিতলা থেকে সরল মায়ের ছবি

Birbhum: গত কয়েকদিনের বৃ্ষ্টিতে জলমগ্ন বীরভূমের বিস্তীর্ণ এলাকা

বন্ধ হল গর্ভগৃহ, জলমগ্ন কঙ্কালিতলা থেকে সরল মায়ের ছবি
জলমগ্ন কঙ্কালিতলা

বোলপুর: গত কয়েকদিনের বৃষ্টিতে রাজ্যের একাধিক জায়গায় বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। শহরাঞ্চলেও বাড়ির ভিতর ঢুকে পড়েছে জল। জল যন্ত্রণায় নাজেহাল অবস্থা রাজ্যবাসীর। সেই বৃষ্টির জেরেই কোমর জলে ডুবল কঙ্কালিতলা মন্দির। সতীপীঠের অন্যতম এই বীরভূমের কঙ্কালিতলা থেকে নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে মায়ের ছবি। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে গর্ভগৃহ। মন্দিরের ভিতরেও ঢুকেছে জল। পুজো দিতে এসে ফিরে যেতে হচ্ছে অনেককেই। এই জেলার বেশ কয়েকটি গ্রাম জলমগ্ন।

গতকাল হাঁটুজল ছিল এই মন্দির চত্বরে। আজ সেই জলস্তর বেড়েছে আরও। প্রায় কোমর জলে ডুবে রয়েছে এলাকা। এরপর্ গর্ভগৃহ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে মন্দিরে। মা কঙ্কালির ছবি সরিয়ে পাশের একটি শিব মন্দিরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। মন্দিরের কুণ্ডও জলের তলায়। শিব মন্দিরে মায়ের ছবি নিয়ে গিয়ে করা হচ্ছে পুজো। কোপাই নদীর জলস্তর বেড়ে গিয়েছে।

অনেক পর্যটক প্রতিনিয়ত এই মন্দিরে পুজো দিতে চান। বৃষ্টি বন্ধ হওয়ায় অনেকেই আজ মন্দিরে গিয়েছিলেন। কিন্তু পুজো না দিয়েই ফিরে আসতে হয় তাঁদের। স্বাভাবিকভাবেই এই পরিস্থিতিতে সমস্যা পড়েছেন স্থানীয় ব্যবসায়ীরা। পুরোহিতরা জানিয়েছেন, শিব মন্দিরেই পুজো অর্চনা, ভোগ নিবেদন করা হচ্ছে মায়ের।

শুধু কঙ্কালিতলা নয় বন্যা পরিস্থিতি বীরভূমের লাভপুর এলাকাতেও। নদীর জল বেড়ে কার্যত জলের তলায় তিনটি গ্রাম। এ ছাড়াও, বেশ কয়েকটি গ্রাম যে কোনও সময় বাঁধ ভেঙে জলমগ্ন হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। লাগাতার বৃস্টির জেরে ব্যাপক ভাবে বেড়েছে বীরভূমের লাভপুরের কুয়ে নদীর জল। ইতিমধ্যেই বলরামপুর, ডোমপাড়া ও রামঘাটি তিনটে গ্রাম প্লাবিত। বাঁধ ছাপিয়ে কুয়ে নদীর জল ঢুকছে গ্রামে। অন্যদিকে, লাভপুরের খাঁপুরে ভাঙল কুয়ে নদীর বাঁধ। ইতিমধ্যেই গ্রামে ঢুকতে শুরু করেছে জল, বন্যার আশঙ্কা প্রায় ২০ টি গ্রামে। আরও পড়ুন: ১১ কর্মীর নিঃশর্ত মুক্তি চেয়ে অবস্থান, মহিলা কর্মীদের চুলের মুঠি ধরে প্রিজন ভ্যানে তোলার অভিযোগ পুলিশের বিরুদ্ধে

 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla