Anubrata Mondal on Jitendra Tiwari: ‘পাণ্ডবেশ্বরের মোষ’,জিতেন্দ্রকে কড়া জবাব ‘বিনোদনের পাত্র’ অনুব্রতর!

Anubrata Mondal on Jitendra Tiwari: 'পাণ্ডবেশ্বরের মোষ',জিতেন্দ্রকে কড়া জবাব 'বিনোদনের পাত্র' অনুব্রতর!
অনুব্রতর পাল্টা মন্তব্য, নিজস্ব চিত্র

Birbhum: বৈঠক শেষে অনুব্রত মণ্ডলকে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি অধুনা বিজেপি নেতা। বলেন, “এখানে যিনি তৃণমূলের রাজনৈতিক নেতৃত্বে রয়েছেন তিনি বিনোদন ছাড়া কোনও কাজে লাগে না।"

TV9 Bangla Digital

| Edited By: tista roychowdhury

Jan 27, 2022 | 4:53 PM

বীরভূম: সদ্যই বিজেপি জেলা পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব পেয়েছেন জিতেন্দ্র তিওয়ারি। দায়িত্ব পেয়েই তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলরে বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছেন বিজেপি নেতা। তৃণমূল জেলা সভাপতিকে ‘বিনোদনের পাত্র’ বলে কটাক্ষ করেন জিতেন্দ্র। এ বার পাল্টা তোপ অনুব্রতর। জিতেন্দ্রকে কার্যত ‘মোষ’ বলে উল্লেখ করলেন তৃণমূল দলনেতা (Anubrata Mondal)।

অনুব্রতর কথায়, ‘‘পাণ্ডবেশ্বরে একটা মোষকে হারিয়ে এসেছি। আমাকে দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যসভার সাংসদ করতে চেয়েছিলেন। আমি তা হতে চাইনি। আমি বিধায়ক বা পুরসভার সদস্যও হতে চাইনি। তবে এ বারের বিধানসভায় আমি একটা মোষকে আমি হারিয়ে এসেছি। তাই এই কথার কোনও উত্তর দেব না।’’

বুধবার,  বীরভূম জেলা বিজেপির জেলা কমিটির ঘোষণা করা হয়। সেই মোতাবেক প্রথম একটি বৈঠক করা হয়। সেখানেই উপস্থিত ছিলেন বীরভূম জেলার অবজারভার জিতেন্দ্র তিওয়ারি। পাশাপাশি জেলার বিজেপির সভাপতি ধ্রুব সাহা, রাজ্য বিজেপির সহ-সভাপতি শ্যামাপদ মণ্ডল-সহ অন্যান্য নেতৃত্বরা। বুধবার সাংগঠনিক বীরভূম জেলার জেলা কমিটির ঘোষণা করা হয়।

সেই বৈঠক শেষে অনুব্রত মণ্ডলকে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি অধুনা বিজেপি নেতা। বলেন, “এখানে যিনি তৃণমূলের রাজনৈতিক নেতৃত্বে রয়েছেন তিনি বিনোদন ছাড়া কোনও কাজে লাগে না। তৃণমূল কংগ্রেসের জানে ওনার কোনও ‘ফেস ভ্যালু’ নেই। তাই বারবার যখন নির্বাচন হয় ওনাকে প্রার্থী না করে  তারকাকে প্রার্থী করতে হয়।”

এরপর যোগ করে বলেন, “আমরা অনেক সময় বিভিন্ন রাজনৈতিক কাজের চাপে থাকি। বিকালে বাড়ি ফিরে যখন হাসি ঠাট্টার করার মতো কিছু শোনার ইচ্ছা হয় তখন টিভিতে অনুব্রত মণ্ডলের বক্তব্য শুনি। সেই কারণে আমরা তৃণমূল কংগ্রেস আর তাঁকে অত গুরুত্ব দিই না।”

আগামী পৌরসভা নির্বাচনের ফলাফল নিয়েও কথা বলতে শোনা যায় জিতেন্দ্রকে। বলেন, “বিষয়টি নির্ভর করছে সম্পূর্ণ গণতান্ত্রিক ভোট প্রয়োগের উপর। তৃণমূল কংগ্রেস চায় না গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে ভোট করতে , কারণ তারা জানে যে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে ভোট হলে তারা মুছে যাবে। আমরা আমাদের কর্মীদের বন্ধুদের গুলি-বোমা চালাতে বলতে পারবো না। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে তৃণমূল কংগ্রেস যদি সুস্থ ভাবে আলোচনায় বসে তাহলে বিষয়টি অন্য রকম হবে। সেখানে দাঁড়িয়ে আমাদের কর্মীদের পাশে তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীরা দাঁড়াতেও পারবে না। তবে কে বেশি বোমার মশলা জোগাড় করতে পারবে কে বেশি বোমা মারতে পারবে এইগুলো বিষয় হয়  তাহলে আমরা সেখানে পারবো না, আমরা পারতে চাইও না।”

বিজেপির ভাঙন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “যারা এই অনুব্রত মণ্ডলের মত লোকের চোখে তাকালে ভয় পেয়ে যায় এরা এসি ঘরে থাকার জন্য দল পরিবর্তন করছেন। তবে আমরা যারা লড়াই করতে পারি তারা এভাবেই লড়াই চালিয়ে যাব।

আরও পড়ুন: Kunal Ghosh on Jagdeep Dhankhar: ‘ঘোড়ার সঙ্গে কথা বলার পর টুইট করবেন ওঁ’

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA