Balurghat Accident: মর্মান্তিক! বেপরোয়া লরির চাকায় পিষে গেল বাইক আরোহীর দেহ

South Dinajpur: ওই যুবক পেশায় জুটমিলের শ্রমিক ছিলেন।

Balurghat Accident: মর্মান্তিক! বেপরোয়া লরির চাকায় পিষে গেল বাইক আরোহীর দেহ
দুর্ঘটনায় মৃত্যু শ্রমিকের

গঙ্গারামপুর: কাজ সেরে বাড়ি ফেরার পথে লরির চাকায় পিষ্ট হয়ে মৃত্যু হল এক শ্রমিকের। ঘটনায় শোকের ছায়া পরিবার সহ এলাকাজুড়ে।

আজ সকালে পথদুর্ঘটনাটি ঘটেছে গঙ্গারামপুর থানার (Gangarampur) ফুলবাড়ী হঠাৎপাড়া ৫১২নং জাতীয় সড়কে। ঘটনার পর পুলিশ ওই লরি ও মোটরবাইকটি আটক করে। একইসঙ্গে মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখছে তারা।

জানা গিয়েছে, মৃত ওই যুবকের নাম সৌরভ পাল (২৭)। বাড়ি তপন থানার (Tapan) রামপুর এলাকায়। পেশায় ছিলেন জুটমিলের শ্রমিক। পরিবার সূত্রে খবর, সোমবার সকালে কাজ সেরে মোটরবাইকে চেপে বাড়ি ফিরছিল যুবক। সেইসময় ফুলবাড়ী হঠাৎপাড়া এলাকায় মালদাগামী একটি লরির সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয় যুবকের। যার জেরে ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় তার। বিষয়টি স্থানীয়দের নজরে আসতেই ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয় এলাকায়।

ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ পৌঁছে যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে আসে গঙ্গারামপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করে যুবককে। ঘটনার পর মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বালুরঘাট সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। পাশাপাশি দুর্ঘটনাগ্রস্ত লরি ও মোটরবাইকটি উদ্ধার করে পুলিশ। এদিকে পথদুর্ঘটনার জেরে দীর্ঘক্ষণ জাতীয় সড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকে। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে স্বাভাবিক হয় পরিস্থিতি। শুরু হয় যান চলাচল।

প্রসঙ্গত, পথদুর্ঘটনায় (Road Accident) মৃত্যুর হার কমাতে কেন্দ্রের তরফে বিশেষ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ‘গুড সামারিটান স্কিম’ নামে এই প্রকল্পের আওতায় পথদুর্ঘটনায় আহতদের যথা সময়ের মধ্যে হাসপাতালে পৌঁছে দিলে দেওয়া হবে উপযুক্ত পারিতোষিক, আগেই জানিয়েছিল কেন্দ্র। এবার মধ্য প্রদেশ (Madhya Pradesh Government) সরকার সেই প্রকল্প চালু করল। কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহন মন্ত্রক মনে করছে, এবার সেই সমস্ত ‘গুড সামারিটান’দের আরও উৎসাহিত করা প্রয়োজন। তাঁরা যাতে আরও বেশি করে বিপদে সহযাত্রীর পাশে দাঁড়ান। সে কারণেই একেবারে নগদ পুরস্কারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র।

কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহন মন্ত্রকের গাইডলাইন অনুযায়ী, একজন পথচারী বছরে সর্বাধিক পাঁচবার পুরস্কৃত হবেন। সব থেকে বেশি যিনি এই পুরস্কার পাবেন, তার জন্য জাতীয় স্তরেও সম্মাননা অপেক্ষা করে থাকবে। কেন্দ্র সেই সম্মান দেবে। তা নগদ ১ লক্ষ টাকা পর্যন্তও হতে পারে। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, এই কর্মসূচিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য প্রাথমিক ভাবে ৫ লক্ষ টাকার অনুমোদন দিয়েছে পরিবহণ মন্ত্রক। দেশের বিভিন্ন রাজ্যের পাশাপাশি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিতেও এই পুরস্কার দেওয়া হবে।

গাইডলাইনে বলা হয়েছে, দুর্ঘটনা সম্পর্কে পুলিশকে অবগত করবেন ওই মহৎ পথচারী। সব রকম তথ্য প্রমাণ দেখে পুলিশ তাঁকে একটি অনুমোদনপত্র (Acknowledgement) দেবে। সেই অনুমোদনটিই জেলাস্তরে যে অ্যাপ্রাইজাল কমিটি তৈরি করা হবে তার কাছে যাবে। জেলাশাসক এই কমিটির শীর্ষে থাকবেন। তিনি পুলিশের সহযোগিতায় গোটা বিষয়টি খুঁটিয়ে দেখবেন। এরপরই সেই অনুমোদনটিতে ‘গুড সামারিটান’-এর সিলমোহর পড়বে। একই সঙ্গে ওই পথচারী সরাসরি দুর্ঘটনাগ্রস্তকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে পারেন। তার পরও পুলিশকে গোটা বিষয়টি জানাতে পারেন।

আরও পড়ুন: SC Grants Param Bir Singh’s Legal Protection: ‘কোথাও পালাইনি, দেশেই রয়েছি’, বিশেষ শর্তে আইনি সুরক্ষা পেলেন পরমবীর সিং

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla