Kidney Health: কিডনির স্বাস্থ্য নিয়ে চিন্তিত? খাদ্যের বিষয়ে যত্ন নিন এবং এড়িয়ে চলুন এই ৫টি জিনিস

যেহেতু শরীরের প্রতিটি অংশ সামগ্রিক স্বাস্থ্যে অবদান রাখে, তাই যখন শরীরের যে কোনও একটি অংশ সঠিকভাবে কাজ না করলে, বিভিন্ন ধরনের রোগ ও স্বাস্থ্য সমস্যা দেখা দেয়। কিডনি হচ্ছে সেই অঙ্গগুলির মধ্যে একটি এবং এটি আমাদের শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ দূর করতে সাহায্য করে।

Kidney Health: কিডনির স্বাস্থ্য নিয়ে চিন্তিত? খাদ্যের বিষয়ে যত্ন নিন এবং এড়িয়ে চলুন এই ৫টি জিনিস
কিডনির স্বাস্থ্য বজায় রাখতে এই ৫টি জিনিস এড়িয়ে চলুন।

আমাদের শরীরের প্রতিটি অংশ গুরুত্বপূর্ণ এবং এগুলি আমাদের সুস্থতার (Fitness) ক্ষেত্রে একটি ভূমিকা পালন করে। এর ফলে, আপনার শরীরের প্রতিটি অংশের দেখাশোনা করা প্রয়োজন। যেহেতু শরীরের প্রতিটি অংশ সামগ্রিক স্বাস্থ্যে অবদান রাখে, তাই যখন শরীরের যে কোনও একটি অংশ সঠিকভাবে কাজ না করলে, বিভিন্ন ধরনের রোগ (Diseases) ও স্বাস্থ্য সমস্যা (Health Issues) দেখা দেয়। কিডনি (Kidney) হচ্ছে সেই অঙ্গগুলির মধ্যে একটি এবং এটি আমাদের শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ দূর করতে সাহায্য করে।

প্রস্রাবের মাধ্যমে কোনও ক্ষতিকারক অ্যাসিড বা অন্যান্য উপাদান নিষ্কাশন করে, কিডনি আমাদের শরীরের অনেক প্রয়োজনীয় উপাদানের ভারসাম্য বজায় রাখে। এটি আমাদের শরীরের একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ এবং আমাদের এটির যত্ন নেওয়া উচিত। আপনি যদি চান যে আপনার কিডনি সুস্থ থাকুক, তাহলে আপনার এই পাঁচটি জিনিস থেকে দূরে থাকা উচিত।

অত্যধিক পরিমাণে লবণ- লবণ আমাদের শরীরের একটি প্রয়োজনীয় উপাদান। শরীর সুস্থ রাখার জন্য যেমন লবণের প্রয়োজন, তেমনই এই লবণের পরিমাণ বেশি হয়ে গেলে ক্ষতি হতে পারে কিডনির। তাই অল্প পরিমাণ লবণ গ্রহণ করুন।

রেড মিট- রেড মিটও পরিমিত ভাবে খাওয়া উচিত এবং সেটাও ছয় মাসে-ন’মাসে খাওয়া উচিত। আসলে, অতিরিক্ত রেড মিট খেলে এটি বিপাকক্রিয়ার উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। অন্যদিকে অতিরিক্ত রেড মিট খেলে কিডনিতে পাথর হওয়ার ঝুঁকি বৃদ্ধি পায়।

মিষ্টি জাতীয় খাবার- মিষ্টান্ন, কেক, কুকিজ এই ধরনের খাবারে আলাদা করে চিনি যোগ করা হয়। এই ধরনের খাবার এড়িয়ে চলাই ভাল। জেনে রাখা ভাল যে, এই ধরনের মিষ্টি জাতীয় খাবারগুলো বেশি পরিমাণে খেলে এটি আপনার কিডনির ওপর প্রভাব ফেলবে। অন্যদিকে, এই ধরনের মিষ্টি জাতীয় খাবারের ফলে কোলেস্টেরলের মাত্রা বেড়ে যায় এবং ডায়বেটিসের ঝুঁকি বৃদ্ধি পায়।

অ্যালকোহল- অ্যালকোহল কখনোই সুস্বা‌স্থ্যের জন্য ভাল নয়। অ্যালকোহল শুধু যে আপনার কিডনির ওপর ক্ষতিকারক প্রভাব ফেলে, তা নয়। এর পাশাপাশি আপনার লিভারের ওপরও নেতিবাচক প্রভাব ফেলে অ্যালকোহল। অ্যালকোহল শরীরকে ডিহাইড্রেট করে দেয়, যার ফলে আপনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাই এই পানীয়টিকে এড়িয়ে চলুন।

কফি- কফি একাধিক স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে আমরা সকলেই কম-বেশি জানি। অনেকেই রয়েছেন যাঁরা দিন শুরু করেন কফি দিয়ে। এটি যেমন বিপাক ক্রিয়ার ওপর ক্ষতিকারক প্রভাব ফেলে তেমনই অত্যধিক পরিমাণে কফি খেলে ক্ষতি হয় আপনার কিডনির। এতে ক্যাফেইন রয়েছে, যা কিডনির জন্য বিষাক্ত বলে পরিচিত। তাই কিডনিতে সুস্থ রাখতে এগুলো এড়িয়ে চলুন।

Disclaimer: এই প্রতিবেদনটি শুধুমাত্র তথ্যের জন্য, কোনও ওষুধ বা চিকিৎসা সংক্রান্ত নয়। বিস্তারিত তথ্যের জন্য আপনার চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করুন। 

তথ্যসূত্র- নিউজ১৮

আরও পড়ুন: প্রতিদিন ব্লুবেরি খেলে নিয়ন্ত্রণে থাকতে পারে রক্তে শর্করার মাত্রা! নতুন তথ্য প্রকাশ গবেষণায়

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla