Delhi Terrorist Update: বাড়ি মালিককে দিয়েই ভুয়ো পরিচয়ে আধার কার্ড বানিয়েছিল পাক জঙ্গি, চাঞ্চল্যকর তথ্য জেরায়

Delhi Terrorist Update: দিল্লি পুলিশের কাছে গোপন সূত্রে খবর এসেছিল, নয়া দিল্লির লক্ষ্মী নগরে দুই জঙ্গি লুকিয়ে রয়েছে। সেই সূত্র ধরেই মঙ্গলবার গোটা এলাকায় তল্লাশি অভিযান চালায় পুলিশ। লক্ষ্মী নগর ও রমেশ পার্ক থেকে সন্দেহভাজন দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়।

Delhi Terrorist Update: বাড়ি মালিককে দিয়েই ভুয়ো পরিচয়ে আধার কার্ড বানিয়েছিল পাক জঙ্গি, চাঞ্চল্যকর তথ্য জেরায়
ধৃত মহম্মদ আসরাফ। ছবি:ANI

নয়া দিল্লি: উৎসবের মরশুমকেই বারবার নিশানা বানিয়েছে জঙ্গিরা (Terrorist)। ব্যতিক্রম ছিল না এবারও। তবে পুলিশের তৎপরতায় নাশকতা ঘটানোর আগেই ধরা পড়ে যায় জঙ্গি। প্রাথমিক তদন্তের পরই জানা যায়, ধৃত মহম্মদ আসরাফ  আদতে পাকিস্তান(Pakistan)-র নাগরিক। তদন্তে নেমে পুলিশের সামনে আসছে একের পর এক নতুন তথ্য। যে বাড়িতে আসরাফ ভাড়া থাকত, সেই বাড়ির মালিককে জিজ্ঞাসাবাদ করে জানা গেল, তাদের সাহায্যেই নকল পরিচয়ে আধার কার্ড (Adhaar Card) বানিয়েছিল সে।

দিল্লি পুলিশের কাছে গোপন সূত্রে খবর এসেছিল, নয়া দিল্লির লক্ষ্মী নগরে দুই জঙ্গি লুকিয়ে রয়েছে। সেই সূত্র ধরেই মঙ্গলবার গোটা এলাকায় তল্লাশি অভিযান চালায় পুলিশ। লক্ষ্মী নগর ও রমেশ পার্ক থেকে সন্দেহভাজন দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়। পরে জেরায় জানা যায়, ধৃত ব্যক্তির নাম মহম্মদ আসরাফ(৪০) ও উমারউদ্দিন। আসরাফের আসল বাড়ি পাকিস্তানের পঞ্জাবের নারওয়ালে।

জেরায় আরও জানা যায়, বিগত ১০ বছর ধরেই ভারতে একাধিক নকল পরিচয়ে বসবাস করছিল সে। পাক গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআইয়ের সঙ্গে যোগাযোগ ছিল। ভারতে স্লিপার সেল হিসাবে কাজ করছিল। উৎসবের মরশুমে তাঁকে জনবহুল এলাকায় বিস্ফোরণ ঘটানোর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল।

আসরাফের বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে পুলিশ একটি একে-৪৭ অ্যাসাল্ট রাইফেল, একটি হ্যান্ড গ্রেনেড, এক-৪৭-র দুটি ম্যাগাজিন, ৬০ রাউন্ড গুলি, চিনের তৈরির দুটি পিস্তল, ৫০ রাউন্ড গুলি এবং একটি ভারতীয় পাসপোর্ট ও অন্যান্য পরিচয়পত্র উদ্ধার করে।  আগে আসরাফ যে বাড়িতে ভাড়া থাকত, সেই বাড়ির মালিককে জিজ্ঞাসাবাদ করে জানা যায়, তাঁর বাবাই আসরাফকে আধার কার্ড তৈরি করে দিয়েছিলেন। বাড়ি মালিক উজাইব বলেন, “আসরাফ এখানে ৬ মাস ছিল। আমার বাবা পরিচয় পত্র চাওয়ায় সে আধারকার্ড নেই বলে জানায়। পরে আমার বাবা ওর কাছ থেকে বাকি কাগজপত্র নিয়ে আধার কার্ড তৈরি করে দেয়। ও বাড়ি ছেড়ে চলে যাওয়ার পর থেকে আর কোনও যোগাযোগ নেই।”

মঙ্গলবারই দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেলের ডেপুটি কমিশনার প্রমোদ সিং কুশওয়াহা জানান, আসরাফ পাকিস্তান থেকে প্রথমে বাংলাদেশ যায় এবং সেখান থেকেই  সীমান্ত পার করে ভারতে প্রবেশ করে। বিগত প্রায় ১০ বছর ধরে আলি আহমেদ নুরি পরিচয়ে সে দেশে বসবাস করছিল। সোমবারই গোপন সূত্রে খবর মেলে স্লিপার  সেলের সদস্য আসরাফ দিল্লির লক্ষ্মী নগরে বসবাস করছিল। এরপরই পুলিশের একটি দল পাঠানো হয় এবং তাঁকে গ্রেফতার করা হয়।

বিগত কয়েকদিন ধরেই জঙ্গি উপদ্রব বাড়ায় গত সপ্তাহেই সন্ত্রাস দমনে কী কী পদক্ষেপ করা হচ্ছে, সেই বিষয়ে আলোচনা করতে উচ্চপদস্থ আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন দিল্লির পুলিশ কমিশনার রাকেশ আস্থানা।

আরও পড়ুন: Aryan Khan Drug Case: জেলের খাবারই খেতে হবে আরিয়ানকে, জামিন না পেলে গোটা সপ্তাহই কাটাতে হবে হাজতে 

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla