Manipur Landslide: মণিপুরে ফের ধস, অকুস্থলের কাছেই! আগের ঘটনায় মৃত বেড়ে ২৪, ঘরে পৌঁছল জওয়ানদের দেহ

Manipur Landslide: একটি ধসের ধাক্কা সামলাতে না সামলাতেই শনিবার ফের ঝস নামল মণিপুরের ননি জেলার আরেক জায়গায়। তবে, এই বিষয়ে এখনও বিশদ তথ্য মেলেনি। টুপুল রেলওয়ে নির্মাণ শিবিরের ধসের ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৪ হয়েছে।

Manipur Landslide: মণিপুরে ফের ধস, অকুস্থলের কাছেই! আগের ঘটনায় মৃত বেড়ে ২৪, ঘরে পৌঁছল জওয়ানদের দেহ
বিপর্যয়স্থলের কাছেই ফের ধস
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Amartya Lahiri

Jul 02, 2022 | 3:04 PM

ইম্ফল: ফের ধস নামল মণিপুরে। শনিবার (২ জুন) ননি জেলারই আরও এক জায়গায় পাহাড়ে বড় মাপের ধস নামার খবর পাওয়া গিয়েছে। এর আগে গত বৃহস্পতিবার ভোরে টুপুল রেলওয়ে স্টেশনের কাছে অবস্থিত এক রেলওয়ে নির্মাণ শিবির তছনছ হয়ে গিয়েছিল ধসে। যে ঘটনাকে মুখ্যমন্ত্রী এন বীরেন সিং রাজ্যের ইতিহাস সবথেকে বড় বিপর্যয় বলেছে। সেই বিপর্যয়ের অভিঘাত সামলাতে না সামলাতেই আবার ধস নামল মণিপুরে। তবে, এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় কোনও হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। মণিপুর পর্বতারোহণ এবং ট্রেকিং বিভাগের পক্ষ থেকে শনিবারের এই ধস নামার ঘটনার ভিডিয়ো শেয়ার করা হয়েছে। নতুন করে নামা এই ধসের বিষয়ে এখনও বিশদ কিছু জানানো হয়নি

অন্যদিকে ব়হস্পতিবার ভোরে টুপুল রেলওয়ে নির্মাণ শিবিরে যে ধস নেমেছিল, সেই ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে এদিন ২৪ হয়েছে। তবে, শুধুমাত্র যাদের দেহ উদ্ধার করা গিয়েছে তারাই রয়েছে এই তালিকায়। এখনও আরও অন্তত ৩৮ জন নিখোঁজ। কাদামাটির তলায় তাঁদের বেঁচে থাকার কোনও সম্ভাবনা নেই। গুয়াহাটিতে অবস্থিত প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের জনসংযোগ বিভাগ জানিয়েছে, এখনও পর্যন্ত ১৮ জন আঞ্চলিক সেনার সদস্য এবং ৬ জন অসামরিক নাগরিকের মৃতদেহ উদ্ধার করা গিয়েছে। এছাড়াও ১৩ জন সেনা সদস্য এবং ৫ জন অসামরিক নাগরিককে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। এখনও নিখোঁজ ১২ জন সেনাকর্মী এবং ২৬ জন অসামরিক নাগরিক। এই অসামরিক ব্যক্তিদের প্রত্যেকেই স্থানীয় নির্মাণকর্মী।

ঘটনার দুদিন পরও এই নিখোঁজদের অনুসন্ধান চলছে। টুপুলে যে জায়গায় এই ঘটনা ঘটেছে, সেখানে ভারতীয় সেনাবাহিনী, অসম রাইফেলস, আঞ্চলিক সেনাবাহিনী, রাজ্য বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী, এবং জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর সদস্যরা রয়েছেন। সবকটি বাহিনীর সদস্যরা মিলে কাদামাটি তোলপাড় করে নিখোঁজদের সন্ধান চালাচ্ছে। সংবাদ সংস্থা এএনআই, প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের জনসংযোগ বিভাগকে উদ্ধৃত করে জানিয়েছে, শনিবার সকালে উদ্ধার অভিযানের ব্যাপ্তি আরও বাড়াতে, নতুন কয়েকটি দল মোতায়েন করা হয়েছে।

এখনও পর্যন্ত যে ১৮ জন আঞ্চলিক সেনার সদস্যের দেহ উদ্ধার করা গিয়েছে, তাঁদের মধ্যে একজন ছিলেন জুনিয়র অফিসার। ইতিমধ্যেই ভারতীয় বায়ুসেনার দুটি বিমান এবং ভারতীয় সেনাবাহিনীর একটি হেলিকপ্টারে করে, ওই জুনিয়র অফিসার এবং অন্যান্য ১২ জন আঞ্চলিক সেনা সদস্যের দেহ তাঁদের নিজ নিজ হোম স্টেশনে পাঠানো হয়েছে। নিজ নিজ হোম স্টেশনে তাঁদের পূর্ণ সামরিক ঐতিহ্য মেনে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করা হবে। আরেকজন মৃত সেনা সদস্য, মণিপুরেরই কাংপোকপি জেলার বাসিন্দা। সংবাদ সংস্থা এএনআই-এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, সড়কপথেই বাড়িতে পাঠানো হয়েছে তাঁর দেহ। তার আগে, এদিন রাজধানী ইম্ফলে ভারতীয় সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে পূর্ণ সামরিক মর্যাদায় মৃত জওয়ানদের শ্রদ্ধা জানানো হয়। রেড শিল্ড ডিভিশনের কমান্ডিং অফিসার এবং অসম রাইফেলস-এর দক্ষিণাঞ্চলীয় বিভাগের আইজি পুষ্পস্তবক দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla