ভিডিয়ো: কোভিশিল্ড নেওয়ার পর দেহ হয়েছে চুম্বক, আটকে যাচ্ছে কয়েন-খুন্তি

৭১ বছর বয়সী অরবিন্দ সোনারের ভিডিয়ো দেখে চক্ষু চড়কগাছ সারা ভারতের।

ভিডিয়ো: কোভিশিল্ড নেওয়ার পর দেহ হয়েছে চুম্বক, আটকে যাচ্ছে কয়েন-খুন্তি
ছবি- ইনস্টাগ্রাম

নাসিক: করোনা টিকা (COVID Vaccination) নিলে মাথা ব্যথা হয়, সামান্য জ্বর আসে, প্যারাসিটামল খেলে ঠিকও হয়ে যায়। এই পর্যন্ত ঠিক ছিল। কিন্তু কোভিশিল্ডের দ্বিতীয় টিকা নেওয়ার পর ৭১ বছর বয়সী বৃদ্ধের দাবি, তাঁর শরীর চুম্বকে পরিণত হয়েছে। ঘাড়ে ও হাতে আটকে যাচ্ছে লোহার যাবতীয় সামগ্রী। নাসিকের বাসিন্দা ৭১ বছর বয়সী অরবিন্দ সোনারের ভিডিয়ো দেখে চক্ষু চড়কগাছ সারা ভারতের।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Bol Bhidu (@bolbhidu)

ভিডিয়োয় দেখা যাচ্ছে, তাঁর শরীরে আটকে যাচ্ছে কয়েন, খুন্তি। চিকিৎসকরা বারবার বলেছেন, ভ্যাকসিন নিলে দেহে চুম্বকীয় প্রভাব পড়ে এই ধারণা সম্পূর্ণ ভ্রান্ত। একই কথা বলেছে সিডিসিও। তারপরও কী করে দেহ চুম্বকের মতো কাজ করছে, তা দেখে অবাক নেটিজ়েনরা। অরবিন্দ সোনার জানান, সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি দেখেছিলেন ভ্যাকসিন নেওয়ার পর দেহে ম্যাগনেটিক ফিল্ড দেখা যাচ্ছে। এরপরই তিনি নিজের শরীরে কয়েন ছুঁইয়ে দেখেন। আর আটকেও যায় কয়েন।

এ বিষয়ে নাসিকের জেলা স্বাস্থ্য আধিকারিক কোনও মন্তব্য করতে নারাজ। তিনি জানিয়েছেন, বিষয়টি যাচাই করে তারপরই তিনি প্রতিক্রিয়া দেবেন। করোনা ভ্যাকসিন নেওয়ার পর গায়ে হাতে সামান্য ব্যথা ও জ্বরের ঘটনা স্বাভাবিক। কিন্তু অরবিন্দ সোনারকে দেখে কার্যত হতবাক গোটা দেশ। কী করে তাঁর হাতে আটকে যাচ্ছে লোহার সামগ্রী? এই প্রশ্নেই উত্তাল সোশ্যাল মিডিয়া।

উল্লেখ্য, পিআইবির ফ্যাক্ট চেক টিম অবশ্য টুইট করে পরবর্তীকালে জানিয়েছে, সোশ্যাল মিডিয়ায় এই যে ধরনের ভিডিয়ো ছড়াচ্ছে তা ভিত্তিহীন। ভ্যাকসিন শরীরে কোনও চুম্বকীয় প্রভাব ফেলে না। তাই এই ভ্রান্ত ধারণায় কান না দিয়ে দ্রুত টিকা নেওয়ার বার্তা দিয়ে একটি ভিডিয়ো টুইট করেছে তারা।

আরও পড়ুন: মোদীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ শিবসেনা, তাহলে কি দূরত্ব কমছে প্রাক্তনের সঙ্গে ?