PM Narendra Modi: ‘সমস্ত প্রশ্নের উত্তর দিতে প্রস্তুত সরকার’, শান্তিপূর্ণ অধিবেশনের অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর

PM Narendra Modi on Parliament's Winter Session: এদিন অধিবেশনে যোগ দিতে এসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, "সরকার সমস্ত প্রশ্নের উত্তর দিতে প্রস্তুত। আমরা চাই সংসদে আলোচনা হোক, তবে শান্তিও যেন বজায় থাকে।"

PM Narendra Modi: 'সমস্ত প্রশ্নের উত্তর দিতে প্রস্তুত সরকার', শান্তিপূর্ণ অধিবেশনের অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।


নয়া দিল্লি: সংসদ অধিবেশন শুরুর আগেই বিরোধীদের বিশেষ বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। এদিন শীতকালীন অধিবেশনে (Parliament’s Winter Session) যোগ দিতে এসে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন প্রধানমন্ত্রী। সেখানেই তিনি বলেন, “সরকার সমস্ত প্রশ্নের উত্তর দিতে রাজি। তবে সংসদের মর্যাদা যেন রক্ষা করা হয়।”

আজ থেকেই শুরু হচ্ছে সংসদের শীতকালীন অধিবেশন। প্রথম দিনেই লোকসভায় কৃষি আইন প্রত্যাহার বিল (Farm Laws Repeal Bill) পেশ করবেন কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমার (Narendra Singh Tomar)। সেই কারণেই শাসক দল বিজেপি(BJP)-র তরফে হুইপ জারি করে লোকসভা ও রাজ্যসভার সমস্ত সাংসদদের উপস্থিত থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কংগ্রেস(Congress)-র তরফেও জারি করা হয়েছে হুইপ(Whip)।

এদিন অধিবেশনে যোগ দিতে এসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, “সরকার সমস্ত প্রশ্নের উত্তর দিতে প্রস্তুত। আমরা চাই সংসদে আলোচনা হোক, তবে শান্তিও যেন বজায় থাকে। সরকারের বিরুদ্ধে হোক বা সরকারের কোনও সিদ্ধান্ত- প্রশ্ন উঠতেই পারে। তবে সংসদের অধ্যক্ষ ও স্পিকারের সম্মান যাতে রক্ষা হয়, তাও মাথায় রাখতে হবে। আমাদের এমন আচরণ বজায় রাখা উচিত, যা পরবর্তী প্রজন্মকে অনুপ্রাণিত করবে।”

তিনি আরও বলেন, “স্বাধীনতার অমৃত মহোৎসব পালন করছি আমরা। সংসদের এই অধিবেশন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। দেশবাসীরা চান এই অধিবেশন যেন ফলপ্রসূ হয়। দেশের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের জন্য তারা নিজেদের কর্তব্য পূরণ করছেন। আমাদেরও দায়িত্ব শান্তিপূর্ণভাবে, গঠনমূলক আলোচনার মাধ্যমে দেশের উন্নয়নের লক্ষ্যে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া। সংসদে অংশগ্রহণ বা কতক্ষণ উপস্থিত থাকলেন, তা কাজের মাপকাঠি নয়। বরং বিতর্ক ও আলোচনাই কাজের মাপকাঠি।”

করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট নিয়েও সকলকে সতর্ক করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, “করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট অত্যন্ত উদ্বেগজনক। আমি সংসদের সমস্ত সদস্য ও সংবাদমাধ্যমের কর্মীদের অনুরোধ করছি যাবতীয় সতর্কতা অবলম্বনের জন্য। এই সংকটপূর্ণ সময়ে আপনাদের স্বাস্থ্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।”

সূত্রের খবর, আজই লোকসভায় কৃষি আইন প্রত্যাহার বিল পাশ করাতে চায় কেন্দ্র। তাহলে আজই রাজ্য়সভায় এই বিল পাঠানো  যাবে। এদিকে, বিরোধীরা চায়, আগে এই বিল নিয়ে আলোচনা করা হোক। কংগ্রেস, তৃণমূলের মতো বিরোধী দলগুলি ফসলের ন্যূনতম সহায়ক মূল্যের আইনি গ্য়ারান্টির দাবি জানিয়েছে। দুই দলেরই দাবি, আইন প্রত্য়াহারের বিল পাশ করার আগে এই বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হোক। তারপরই বিল পাশ হবে। এদিকে, কেন্দ্রের যুক্তি, এতদিন আইন প্রত্যাহারের দাবিতেই সরব হয়েছে বিরোধীরা। এখন যখন আইন প্রত্যাহারের কথা বলা হচ্ছে, তখন আলোচনার কী প্রয়োজন।

কৃষি আইনের পাশাপাশি কেন্দ্রের তরফে অন্যান্য যে গুরুত্বপূর্ণ বিলগুলি পেশ করা হবে, তার মধ্যে অন্যতম হল ক্রিপ্টোকারেন্সি ও ডিজিটাল মুদ্রার রেগুলেশন বিল। এর অধীনে কয়েকটি বাদে দেশে সমস্ত বেসরকারি ক্রিপ্টোকারেন্সির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হবে। একইসঙ্গে ডিজিটাল মুদ্রাকে আরবিআইয়ের তৈরি কাঠামোর অন্তর্ভুক্ত করা হবে। এছাড়াও  বেসরকারি ব্যাঙ্কিং ক্ষেত্রে কেন্দ্র ৫১ শতাংশ মালিকানা কমিয়ে ২৬ শতাংশ করতে চায়, সেই বিষয়েও একটি বিল পেশ করা হবে বলে জানা গিয়েছে। সিবিআই ও ইডির অধিকর্তাদের মেয়াদ বৃদ্ধি, দিল্লি স্পেশাল পুলিশ (সংশোধনী) বিল, নারকোটিক্স ড্রাগ অ্যান্ড সাইকোটিক সাবসট্যান্স বিলও পেশ করা হবে।

আরও পড়ুন: Rahul Gandhi’s Cryptic Post: ‘ঘৃণা কখনওই জিতবে না’, অধিবেশনের আগেই বিরোধীদের পরোক্ষে বার্তা রাহুলের?


Published On - 11:11 am, Mon, 29 November 21

Related News

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla