Shraddha Murder: ‘…আমার মেয়েটা আজ বেঁচে থাকত’, মুম্বই পুলিশের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন শ্রদ্ধার বাবা

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: Amartya Lahiri

Updated on: Dec 09, 2022 | 5:05 PM

Shraddha Walker Murder case: বারবার অভিযোগ জাননো সত্ত্বেও ব্যবস্থা নেয়নি মহারাষ্ট্র পুলিশ, ক্ষোভ উদরে দিলেন শ্রদ্ধা ওয়াকারের বাবা।

Shraddha Murder: '...আমার মেয়েটা আজ বেঁচে থাকত', মুম্বই পুলিশের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন শ্রদ্ধার বাবা
আফতাবের পরিবারের বিরুদ্ধেও তদন্ত চাইলেন শ্রদ্ধার বাবা

মুম্বই: শুক্রবার (৯ ডিসেম্বর), মহারাষ্ট্রের উপমুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবীসের সঙ্গে দেখা করলেন নিহত শ্রদ্ধা ওয়াকারের বাবা বিকাশ ওয়াকার। তাঁর মেয়ের হত্যায় অভিযুক্ত আফতাব আমিন পুনাওয়ালাকে ফাঁসি দেওয়ার দাবি তুলেছেন তিনি। শুধু তাই নয়, কোনও ব্যবস্থা না নেওয়ার জন্য, ভাসাই, নালাসোপারা এবং তুলিঞ্জ থানার পুলিশের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তিনি। এই তিন থানার বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি করেছেন তিনি। বিকাশ ওয়াকার বলেন, “যদি তারা ঠিক সময়ে ব্যবস্থা নিত আমার মেয়েটা আজ বেঁচে থাকত।”

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালের নভেম্বরেই তুলিঞ্জ থানায় আফতাবের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন শ্রদ্ধা ওয়াকার। লিখিত অভিযোগে তিনি জানিয়েছিলেন, আফতাব পুনাওয়ালা প্রায়শই তাঁকে মারধর করত। শ্বাসরোধ করে তাঁকে হত্যার চেষ্টা করেছিল আফতাব, এমন অভিযোগও করেছিলেন তিনি। জানিয়েছিলেন, আফতাব তাঁকে হত্যা করে, দেহ টুকরো টুকরো করে কেটে ফেলে দেবে বলে হুমকি দিয়েছে। গত ছয় মাস ধরে আফতাব তাঁর উপর অত্যাচার চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছিলেন। পুলিশে জানালে আফতাব তাঁকে মেরে ফেলবে, ভয়ে আগে জানাতে পারেননি বলে জানিয়েছিলেন শ্রদ্ধা। কিন্তু, এই লিখিত অভিযোগ পেয়েও পুলিশ কোনও ব্যবস্থা নেয়নি। কেন তারা ব্যবস্থা কোনও নেয়নি, সেই বিষয়েই তদন্ত চেয়েছেন শ্রদ্ধার বাবা।

শুধু মুম্বই পুলিশ নয়, আফতাবের পরিবারের বিরুদ্ধেও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিকাশ ওয়াকার। তাঁর দাবি, আফতাবের সম্পর্কে এবং শ্রদ্ধাকে সে কীভাবে অত্যাচার করত, সবটাই জানত আফতাবের পরিবার। তাঁদের বিরুদ্ধেও তদন্তের দাবি তুলেছেন বিকাশ ওয়াকার। পরিবারের অন্য কোনও সদস্য আফতাবকে সহায়তা করেছিল বলে তাঁর মনে সন্দেহ রয়েছে।

তিনি আরও জানিয়েছেন, ২০২১ সালে শ্রদ্ধার সঙ্গে শেষ কথা হয়েছিল তাঁর। শ্রদ্ধা সেই সময় জানিয়েছিল, সে বেঙ্গালুরুতে আছে। বিকাশ জানিয়েছেন, শ্রদ্ধার সেই কথা তাঁর বিশ্বাস হয়নি। তাই, গত বছরের ২৩ ডিসেম্বর পুলিশের কাছে একটি নিখোঁজ ব্যক্তির অভিযোগ জানিয়েছিলেন তিনি। সেই সময়ও পুলিশ কোনও ব্যবস্থা নেয়নি। তবে বর্তমানে দিল্লি পুলিশ যেভাবে এই ঘটনার তদন্ত করছে, তাতে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন তিনি। বিকাশ জানিয়েছেন, তাঁদের ন্যায় বিচার দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে দিল্লি পুলিশ।

এদিকে, এই দিনই ১৪ দিনের জন্য আফতাবের বিচারবিভাগীয় হেফাজতের মেয়াদ বাড়িয়েছে দিল্লির এক আদালত। দিন ভিডিয়ো কনফারেন্সের মাধ্যমে আফতাবকে আদালতে হাজির করা হয়।

Latest News Updates

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla