SAP India: দেশে ডিজিটাল মাধ্যমের ব্যবহার বাড়াতে বড় উদ্যোগ নিচ্ছে স্যাপ ইন্ডিয়া

SAP india,ভারতে কাজ করার ক্ষেত্রে নিজেদের ২৫ বছর উদযাপন করছে স্যাপ ইন্ডিয়া। ১৯৯৬ সাল থেকে ভারতে নিজেদের কাজ শুরু করে স্যাপ ইন্ডিয়া। সেই সময়ে বেঙ্গালুরুতে সংস্থার প্রধান দফতর থাকার পাশাপাশি কলকাতা, নয়া দিল্লি, মুম্বই সহ দেশের ৯টি শহরে ছিল স্যাপের দফতর।

SAP India: দেশে ডিজিটাল মাধ্যমের ব্যবহার বাড়াতে বড় উদ্যোগ নিচ্ছে স্যাপ ইন্ডিয়া
ছবি: ফাইল চিত্র

নয়া দিল্লি: বিশ্বব্যাপি স্যাপ ব্যবহারে প্রথম সারিতে উঠে এসেছে ভারত। আগামী কয়েক বছরে, অস্বাভাবিক বৃদ্ধির হারের নিজের প্রতিযোগীদের পিছনে ফেলতে পারে ভারত। ভারতীয় উপমহাদেশে স্যাপের প্রেসিডেন্ট তথা ম্যানেজিং ডিরেক্টর কুলমীত বাওয়া, নিউজ ৯ কে জানিয়েছন, প্রতিযোগী অন্যান্য প্রযুক্তি সংস্থা গুলির তুলনায় স্যাপ অনেক দ্রুত হারে দেশে বৃদ্ধি পাচ্ছে। তিনি বলেন, “আমরা সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে থাকি।”

ভারতে কাজ করার ক্ষেত্রে নিজেদের ২৫ বছর উদযাপন করছে স্যাপ ইন্ডিয়া। ১৯৯৬ সাল থেকে ভারতে নিজেদের কাজ শুরু করে স্যাপ ইন্ডিয়া। সেই সময়ে বেঙ্গালুরুতে সংস্থার প্রধান দফতর থাকার পাশাপাশি কলকাতা, নয়া দিল্লি, মুম্বই সহ দেশের ৯টি শহরে ছিল স্যাপের দফতর। এর পাশাপাশি ভারতে প্রতিবেশি দেশ বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কাতেও বিভিন্ন কাজকর্মের সঙ্গে যুক্ত ছিল স্যাপ।

বাওয়া বলেন, “আমি মনে করি ভারতের উন্নতির অঙ্গ হতে পেরে এবং সেখানে অংশগ্রহণ করতে পেরে আমাদের সংস্থা গর্বিত। আগামী কয়েক বছরে আরও উন্নতির জন্য আমরা অপেক্ষা করছি, আমার মনে হয় সেই বছরগুলি আরও বেশি উত্তেজনাপূর্ণ হতে চলেছে।” বাওয়া আশাবাদী আগামী কয়েক বছর অভূতপূর্ব উন্নতির সাক্ষী থাকবে ভারত। তিনি বলেন, “ভারতে আগামী কয়েক বছরে বিপুল বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। অবশ্যই এর পিছনে বেশ কিছু কারণ রয়েছে। ভারতের বাজার, ব্যবসায়িক সংস্কৃতি, প্রযুক্তিক ক্ষেত্রে পাওয়া অসাধারণ মেধা এবং ভারতে ভৌগলিক অবস্থান এগিয়ে যেতে দেশকে সাহায্য করবে। আমি মনে করি দু’বছরের অনিশ্চয়তার পরে, সমস্ত অর্থনৈতিক সূচকগুলিই যে বিশাল পুনরুদ্ধারের দিকে ইঙ্গিত করছে তা নয়। আমার নতুন ডিজিটাল ইন্ডিয়া সাক্ষী।” তথ্য ও প্রযুক্তিতে ভারতে বিপুল মেধা রয়েছে বলেই মনে করেন বাওয়া।

তাঁকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, করোনা অতিমারির পর ছোট ও মাঝারি ব্যবসার ক্ষেত্রে এই পদ্ধতি কীভাবে কাজ করবে? জবাবে বাওয়া বলেন, “আমি মনে করি ডিজিটাইশেনের দৃষ্টিকোণ থেকে এই পদ্ধতি বাধাপ্রাপ্ত হয়েছে। আমার মনে হচ্ছে সচেনতার অভাব বা কম খরচে প্রযুক্তি ব্যবহারে প্রবণতা এই বৃদ্ধিতে বিঘ্নিত করছে।”

বাওয়া বলেন, “করোনা অতিমারির অনেক ইতিবাচক প্রভাবও রয়েছে। আগে শুধুমাত্র বড় ব্যবসাতে ডিজিটাল পদ্ধতি ব্যবহার করা হত। এখন ছোট ব্যবসায়ীরও বুঝেছেন এই পদ্ধতি অনেক সহজ এবং ব্যবহার করলে অনেক সুবিধাও পাওয়া সম্ভব। তাই বর্তমানে দেখা যাচ্ছে অনেক ছোট ব্যবসায়ীরাও লেনদেনে প্রযুক্তি নির্ভর পদ্ধতি ব্যবহার করছেন।”

আরও পড়ুন Mamata meets Modi: প্রধানমন্ত্রীর দরবারে বিএসএফের এক্তিয়ার বাড়ানোর সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের আর্জি মমতার

আরও পড়ুন  Samajwadi Party : পুলিশের ব্যাজ ছিঁড়ে দেওয়ার হুমকি! বিতর্কে কানপুরের সপা নেতা

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla