Goa Assembly Election: ‘আসলে তৃণমূলই হিন্দুত্বের পক্ষে’, বিজেপির বিরুদ্ধে সরব তৃণমূল নেতা

Goa Assembly Election: 'আসলে তৃণমূলই হিন্দুত্বের পক্ষে', বিজেপির বিরুদ্ধে সরব তৃণমূল নেতা
ছবি: ফাইল চিত্র

Pavan Varma: এমত অবস্থায় বিজেপি ও হিন্দুত্ব নিয়ে তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য করলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সহসভাপতি পবন বর্মা। বৃহস্পতিবার তিনি জানিয়েছেন, তৃণমূলই 'আসল হিন্দুত্ব'-র পক্ষে।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: অরিজিৎ দে

Jan 27, 2022 | 5:10 PM

পানাজি: সামনেই গোয়া বিধানসভা নির্বাচন। সৈকত রাজ্য জয়ে চেষ্টার কোনও ত্রুটি রাখতে চাইছে না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল। গোয়ায় দলের ইনচার্জ দায়িত্ব পাওয়ার পর মাটি কামড়ে পড়ে রয়েছেন কৃষ্ণনগরের তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র। দলের সভানেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় একাধিকবার দলীয় সংগঠনকে চাঙ্গা করতে গোয়া থেকে ঘুরে এসেছেন। নির্বাচনে বিজেপিকে ধাক্কা দিতে কোনও ধরনেন ছুঁৎমার্গ না রেখেই কংগ্রেসের সঙ্গে তৃণমূল জোটে যেতে চাইলেও বিভিন্ন কারণে সেই প্রয়াস বাস্তবায়িত হয়নি। আপাতত উদ্ধব ঠাকরের শিবসেনা ও গোয়ার মহারাষ্ট্রবাদী গোমন্তক পার্টির সঙ্গে জোট করে নির্বাচনে লড়তে চলেছে বাংলার শাসকদল। অন্যদল থেকে তৃণমূলে আসা বেশ কিছু নেতাদের দলত্যাগে সাময়িক ভাবে তাল কাটলেও ছন্দে ফিরতে আত্মবিশ্বাসী মনোভাব নিয়ে প্রচার চালাচ্ছে তৃণমূল।

এমত অবস্থায় বিজেপি ও হিন্দুত্ব নিয়ে তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য করলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সহসভাপতি পবন বর্মা। বৃহস্পতিবার তিনি জানিয়েছেন, তৃণমূলই ‘আসল হিন্দুত্ব’-র পক্ষে। বিজেপি এতদিন ধরে ‘পুতুলের’ মতো হিন্দুদের ভোটব্যাঙ্ক হিসেবে ব্যবহার করেছে। গোয়ার পানাজিতে তৃণমূল নেতার এই মন্তব্য যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। গোয়ার রাজধানী পানাজিতে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে পবন জানিয়েছেন ধর্মকে ব্যবহার করে মানুষে মানুষে বিভেদ আসলে ‘গোয়ানিজ’-দের অপমান। তিনি বলেন, “আমি আপনাদের বলে দিতে চাই তৃণমূল প্রকৃত হিন্দুত্বের পক্ষে। আসল হিন্দুত্ব সহিষ্ণুতা, অন্তর্ভুক্তিমূলক, সহনশীল, বহুবচন, মানানসই এবং বৈচিত্র্যের জন্য উন্মুক্ত। দুর্ভাগ্যবশত, বিজেপির হিন্দুত্ব এক বিকৃতি মানসিকতার বহিঃপ্রকাশ। বিজেপি ধর্মকে ঘৃণা, গোঁড়ামি, বর্জন, বিভাজন এবং হিংসার জন্য ব্যবহার করার চেষ্টা করে।”

তৃণমূল ভারতে ঐতিহ্যকে সম্মান করে এবং সংবিধান স্বীকৃত সবধরেন বিশ্বাসকে মর্যাদা দেয় বলেই মনে করে পবন বর্মা। তিনি বলেন, “তৃণমূলের মতো একটি রাজনৈতিক দল যখন বলে তাঁরা আসল হিন্দুত্বের পক্ষে তখন তার অর্থ হল তারা সম্প্রীতি, অন্তর্ভুক্তি, শান্তি এবং সামাজিক স্থিতিশীলতার জন্য সকল ধর্মকে সম্মান করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।” পবন জানিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মনে করেন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের মানুষের ধর্মের কথা ভুলে তাদের উন্নয়নের জন্য কাজ করা উচিৎ। এই পরিপ্রেক্ষিতে তিনি জানিয়েছেন, বাংলায় তৃণমূলের ভোট শতাংশ ৪৪ থেকে বেড়ে ৪৯ হয়েছে, যার অর্থ সব ধর্ম ও বর্ণের মানুষের সমর্থন তৃণমূলের প্রতি রয়েছে।

আরও পড়ুন: Budget 2022: প্রত্যাশা পূরণের বাজেটে স্বাস্থ্য পণ্যের উপর GST কমানোর দাবি বীমা সংস্থাগুলির

আরও পড়ুন: Rail Recruitment protest: নিয়োগ নিয়ে বিক্ষোভ, বিহারে কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি নষ্ট রেলের

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA