Congress finalised Candidate for Punjab Polls: সিধু নয়, অগাধ আস্থা নতুন মুখ্যমন্ত্রীর উপরই! দুটি কেন্দ্রে লড়তে পারেন চন্নি

Congress finalised Candidate for Punjab Polls: সূত্রের খবর, মুখ্য়মন্ত্রী চরণজিৎ সিং চন্নি চমকৌর ও আদমপুর থেকে নির্বাচনে লড়তে পারেন।

Congress finalised Candidate for Punjab Polls: সিধু নয়, অগাধ আস্থা নতুন মুখ্যমন্ত্রীর উপরই! দুটি কেন্দ্রে লড়তে পারেন চন্নি
চরণজিৎ সিং চন্নি ও নভজ্যোৎ সিং সিধুর মধ্যে কার উপর বেশি আস্থা কংগ্রেসের?

চণ্ডীগঢ়: দীর্ঘ টানাপোড়েনের পর চূড়ান্ত হল কংগ্রেসের প্রার্থী তালিকা(Candidate List)। দলীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, পঞ্জাব কংগ্রেস কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিটি (Congress Central Election Committee) ইতিমধ্যেই প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করে ফেলেছে। আজই নির্বাচন কমিটির বৈঠক রয়েছে, তারপরই প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হতে পারে। সূত্রের খবর, মুখ্য়মন্ত্রী চরণজিৎ সিং চন্নি (Charanjit Singh Channi) চমকৌর ও আদমপুর থেকে নির্বাচনে লড়তে পারেন।

তালিকায় রয়েছে ৭০ জনের নাম:

দলীয় সূত্রে খবর, কংগ্রেসের নির্বাচনী কমিটি যে তালিকা তৈরি করেছে, তাতে ৭০ জনেরও বেশি প্রার্থীর নাম রয়েছে। এদের মধ্যে অধিকাংশই আবার বিধায়ক। অর্থাৎ পুরনো মুখের উপরই আস্থা রাখছে কংগ্রেস। আজ, শুক্রবার কংগ্রেসের নির্বাচনী কমিটির আরেক দফা বৈঠক হওয়ার কথা, তারপরই প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হবে। আজ বিকেলেই এই তালিকা প্রকাশ করা হতে পারে।

চন্নিকে দুই কেন্দ্র থেকে প্রার্থী করার পরিকল্পনা:

কংগ্রেস সূত্রে খবর, দলের তরফে মুখ্য়মন্ত্রী চরণজিৎ সিং চন্নিকে একটি নয়, বরং দুটি কেন্দ্র থেকে প্রার্থী করার পরিকল্পনা চলছে। তিনি চমকৌর ও আদমপুর থেকে প্রার্থী হিসাবে দাঁড়াতে পারেন। পঞ্জাবের মাজিথা অঞ্চলের চমকৌর সাহিবের প্রার্থী হিসাবেই প্রাথমিকভাবে চন্নির নাম চূড়ান্ত করা হয়েছিল। তবে দোয়াবা অঞ্চলেও ভোটারদের একটি বড় অংশ দলিত সম্প্রদায়ের হওয়ায়, সেখানের আদমপুর থেকেও মুখ্যমন্ত্রীকে দাঁড় করানোর পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসেই মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে অমরিন্দর সিং ইস্তফা দেওয়ার পর চরণজিৎ সিং চন্নিকে নতুন মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে বেছে নেওয়া হয়েছিল। তাঁকে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে বেছে নেওয়ার অন্যতম কারণ ছিল তিনি দলিত। আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে শিখ ও দলিত ভোটের কথা চিন্তাভাবনা করেই তাঁকে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে বেছে নেওয়া হয়। এছাড়াও বহু বিধায়ককেও প্রার্থী হিসাবে দাঁড় করানো হবে বলে জানা গিয়েছে।

সংবাদসংস্থা এএনআই-কে কংগ্রেস সাংসদ জসবীর সিং গিল জানান, যদি দল চায়, তবে তিনি বিধানসবা নির্বাচনে লড়তে রাজি। তিনি বলেন, “দল যদি আমাদের নির্বাচনে প্রার্থী করতে চায়, তবে আমরাও লড়তে রাজি। তবে এই সিদ্ধান্ত দলের অন্তর্বর্তী সভাপতি সনিয়া গান্ধীকেই এই সিদ্ধান্ত নিতে হবে। যদি উনি আমায় প্রার্থী হতে বলেন, তবে আমি অবশ্যি নির্বাচনে লড়ব।”

অন্যদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কংগ্রেস সাংসদও জানান, প্রতাপ সিং বাজওয়ার মতো সাংসদদের প্রার্থী করার পরিকল্পনা চলছে। যেহেতু মার্চ মাসেই তাদের রাজ্যসভায় সাংসদ পদের মেয়াদ শেষ হচ্ছে, সেই কারণেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। আসন্ন নির্বাচনে যাতে কড়া টক্কর দেওয়া যায়, তার জন্য সাংসদদেরও প্রার্থী করা হচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসও প্রায় এক ডজন সাংসদদের প্রার্থী করেছিল। আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি পঞ্জাবে বিধানসভা নির্বাচন রয়েছে। ভোটের ফল প্রকাশ হবে ১০ মার্চ।

আরও পড়ুন: Punjab CM recite to PM Modi: ‘তুম সালামত রাহো কায়ামত তক’, হঠাৎ নমোকে এই কথা কেন বললেন পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী? 

Published On - 10:00 am, Fri, 14 January 22

Related News

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla