Rituparna Sengupta: বিমান সংস্থা চাইল ক্ষমা, ঋতুপর্ণা বললেন, ‘ন্যায়ের জন্য লড়েছি’

Rituparna Sengupta: ঋতুপর্ণা যে টুইটটি শেয়ার করেছেন তাতে দেখা যাচ্ছে ওই বেসরকারি বিমানসংস্থার তরফে লেখা হয়েছে, "ম্যাম আপনার কাছে আন্তরিক ক্ষমা চাইছি। আমরা আপনাকে ফোন করার চেষ্টা করেছি।

Rituparna Sengupta: বিমান সংস্থা চাইল ক্ষমা, ঋতুপর্ণা বললেন, 'ন্যায়ের জন্য লড়েছি'
বিগত দু'দিন ধরে ঘটনা নিয়ে হওয়া ট্রোলিং নিয়ে মুখ খুললেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত।
TV9 Bangla Digital

| Edited By: বিহঙ্গী বিশ্বাস

Mar 31, 2022 | 4:15 PM

বিমানকাণ্ড নিয়ে অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তের কাছে ক্ষমা চাইল বেসরকারি বিমান সংস্থা। এর পরেই বিগত দু’দিন ধরে  হওয়া ট্রোলিং নিয়ে জবাব দিলেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। ক্ষমা চাওয়ার জন্য বিমান সংস্থাকে ধন্যবাদ দেওয়ার পাশাপাশি দিলেন ‘ক্ষতির হিসেবও।

ঋতুপর্ণা যে টুইটটি শেয়ার করেছেন তাতে দেখা যাচ্ছে ওই বেসরকারি বিমানসংস্থার তরফে লেখা হয়েছে, “ম্যাম আপনার কাছে আন্তরিক ক্ষমা চাইছি। আমরা আপনাকে ফোন করার চেষ্টা করেছি। কিন্তু যোগাযোগ করতে পারিনি। একটি নির্দিষ্ট সময় জানাবেন যেখানে ফোনের মাধ্যমে আমরা আপনার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারি।” এর স্ক্রিনশটই শেয়ার করে ঋতুপর্ণা লিখেছেন, “ক্ষমা চাওয়ার জন্য ধন্যবাদ কিন্তু ২৫ মিনিট আগে গেট বন্ধ করে দেইয়া যাত্রী ও সংস্থা উভয়ের জন্যই ভাল নয়। এর জন্য আমাকে আরও দুটি অতিরিক্ত ট্রিপ করতে হয়েছে। বাতিক হয়েছে একটি কাজও।

এখানেই থামেননি ঋতুপর্ণা। পর পর বেশ কয়েকটি টুইট করেছেন তিনি। তাঁর ফ্লাইট মিস হওয়া নিয়ে বিগত দুদিন যে ধরে যে ট্রোলিং চলছে তারই পরিপ্রেক্ষিতে ঋতুপর্ণা লেখেন, “সোশ্যাল মিডিয়ায় সব নেতিবাচক মন্তব্য দেখেছি। কিন্তু আমি শুধু আমার হয়ে বলিনি, বলেছি গোটা দেশের হয়েছে। কাজের জন্য যাত্রার মধ্যে লুকিয়ে থাকে অনেক আবেগ। এই অন্যায়ের জন্য আমার খারাপ লেগেছিল। সবাই যাতে ন্যায়বিচার পায় সে জন্যই আওয়াজ তুলেছি।”

ঠিক কী হয়েছিল? আরবাজ খানের সঙ্গে ‘কাল ত্রিঘোরি’ ছবির শুটিং ছিল ঋতুপর্ণার। যাওয়ার কথা ছিল আমেদাবাদ থেকে আরও কয়েক ঘণ্টা দূরত্বে। শুটিংয়ের সময় ছিল ১০ থেকে ১০.৩০ মিনিটে। বোর্ডিংয়ের সময় ছিল ৪.৪০ মিনিট। তিনি পৌছোন ৫.১০-৫.১২ মিনিটে। আধ ঘণ্টা বাকি ছিল প্লেন ওড়ার জন্য। কিন্তু বিমান কর্তৃপক্ষ কিছুতেই তাঁকে বিমানে উঠতে দেননি বোর্ডিং সময় শেষ হয়ে গিয়েছে বলে। এ প্রসঙ্গে টুইটারে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন ঋতুপর্ণা। টিভিনাইন বাংলাকে বলেছিলেন, ““আমি দেখতে পাচ্ছি তখনও প্লেনের সিঁড়ি ওঠানো হয়নি। অথচ আমি বারবার অনুরোধ করা সত্ত্বেও উঠতে দিল না। আর একটা অদ্ভুত বিষয় দেখলাম, ৫.৪০ মিনিটের প্লেন উড়ে গেল ৫.২৬ মিনিটে। অথচ যাত্রী তখনও বোর্ডিং করেনি। ওদের বিমানসেবা কতবার নিয়েছি। চেনে সকলে আমাকে। ক’দিন আগেই ইমতিয়াজের (আলি) সঙ্গে এই সংস্থার বিমানে ট্রাভেল করছিলাম। আমায় সংস্থার পক্ষ থেকে সম্মানসূচক পাসপোর্টও দেওয়া হয়েছে। নয় নয় করে বেশ কয়েক বার এই সংস্থার বিমানে চড়ে যাতায়াতও করেছি। একসঙ্গে কত ছবি তুলেছি। আর এবার আমার সঙ্গে এমন করল। পুরো শিডিউল ঘেঁটে দিল আমার।”

যদিও নেটিজেনদের একটা বড় অংশ দোষ দিয়েছিলেন ঋতুপর্ণাকেই। কেন তিনি বোর্ডিং টাইমের পরে যাবেন আবার সেই কারণে ‘ন্যায়’ চাইবেন তা নিয়েও উঠেছিল নানা প্রশ্ন। প্রশ্নে ঘি ঢেলেছিল অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্রর একটি ফেসবুক পোস্টও। শ্রীলেখা লিখেছিলেন, “‘ট্রেন হোক বা প্লেন নিয়ম তো সবার জন্য এক মামা’! এই ঘটনায় বিমানসংস্থা ক্ষমা চাওয়ায় নেটিজেনদের সেই অংশের মধ্যেই দেখা গিয়েছে খানিক অসন্তোষ। সেলিব্রিটি বলেই কি ‘অন্যায়’কে প্রশ্রয়? তাঁদের তরফে এসেছে সেই প্রশ্নও।

 


Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla