Woman Health: প্রেগন্যান্সি থেকে পিরিয়ড, এই ৫ স্পেশ্যাল চায়ের গুণেই দূর হবে সব মেয়েলি রোগ

Health Care Tips: শুধু সাংসারিক নয়, কর্মক্ষেত্রেও একইভাবে সামলে নিজের দায়িত্বগুলি পালন করতে হয়। সঙ্গে শারীরিক ও মানসিক পরিশ্রমের কোনও খামতি থাকে না।

Jun 21, 2022 | 5:16 PM
TV9 Bangla Digital

| Edited By: dipta das

Jun 21, 2022 | 5:16 PM

সতেজ, সক্রিয় ও সুস্থ থাকাটা বর্তমানে বিশেষ জরুরি। একজন মহিলা হলে তার উপর সংসারের অনেক গুরুদায়িত্ব বজায় থাকে। শুধু সাংসারিক নয়, কর্মক্ষেত্রেও একইভাবে সামলে নিজের দায়িত্বগুলি পালন করতে হয়। সঙ্গে শারীরিক ও মানসিক পরিশ্রমের কোনও খামতি থাকে না।

সতেজ, সক্রিয় ও সুস্থ থাকাটা বর্তমানে বিশেষ জরুরি। একজন মহিলা হলে তার উপর সংসারের অনেক গুরুদায়িত্ব বজায় থাকে। শুধু সাংসারিক নয়, কর্মক্ষেত্রেও একইভাবে সামলে নিজের দায়িত্বগুলি পালন করতে হয়। সঙ্গে শারীরিক ও মানসিক পরিশ্রমের কোনও খামতি থাকে না।

1 / 8
কর্মক্ষেত্র ও সংসার, উভয় দিক সামলানো প্রায় চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হয়। তাতে শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যের উপর প্রভাব পড়ে। বিশেষজ্ঞরা ফিট ও সুস্থ থাকার জন্য প্রচিদিনের ডায়েটে কিছু জিনিস অন্তর্ভুক্ত করার কথা জানিয়েছেন। চা সকলেই ভালবাসেন। যদি আপনি চা-প্রেমী হোন, তাহলে কিছু জিনিস মাথায় রেখে পান করা উচিত।

কর্মক্ষেত্র ও সংসার, উভয় দিক সামলানো প্রায় চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হয়। তাতে শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যের উপর প্রভাব পড়ে। বিশেষজ্ঞরা ফিট ও সুস্থ থাকার জন্য প্রচিদিনের ডায়েটে কিছু জিনিস অন্তর্ভুক্ত করার কথা জানিয়েছেন। চা সকলেই ভালবাসেন। যদি আপনি চা-প্রেমী হোন, তাহলে কিছু জিনিস মাথায় রেখে পান করা উচিত।

2 / 8
দুধ-চা তো সকলেই খান কিন্তু সেই চা কখনওই স্বাস্থ্যের উপযুক্ত নয়। কারণ, মহিলাদের স্বাস্থ্যের জন্য চাই স্পেশ্যাল চা। সেই চা শারীরিক ও মানসিক, উভয় দিককেই ব্যালান্স রাখার শক্তি জোগায়। সামগ্রিক স্বাস্থ্যকে উন্নত করতে সাহায্য করে।

দুধ-চা তো সকলেই খান কিন্তু সেই চা কখনওই স্বাস্থ্যের উপযুক্ত নয়। কারণ, মহিলাদের স্বাস্থ্যের জন্য চাই স্পেশ্যাল চা। সেই চা শারীরিক ও মানসিক, উভয় দিককেই ব্যালান্স রাখার শক্তি জোগায়। সামগ্রিক স্বাস্থ্যকে উন্নত করতে সাহায্য করে।

3 / 8
ব্ল্যাক টি- সবচেয়ে সাধারণ চায়ের একটি রেসিপি। এতে রয়েছে সর্বোচ্চ পরিমাণে ক্যাফেইন, যা সাংময়িকভাবে শরীর সতেজ করে তোলে। চিনি ছাড়া ব্ল্যাক টি পান করবে উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে, বিপাকতন্ত্রকে নিয়ন্ত্রণ করে। গরমের সময় ঠান্ডা কালো চা পান করলে ডায়ারিয়া বন্ধ হয়ে যায়।

ব্ল্যাক টি- সবচেয়ে সাধারণ চায়ের একটি রেসিপি। এতে রয়েছে সর্বোচ্চ পরিমাণে ক্যাফেইন, যা সাংময়িকভাবে শরীর সতেজ করে তোলে। চিনি ছাড়া ব্ল্যাক টি পান করবে উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে, বিপাকতন্ত্রকে নিয়ন্ত্রণ করে। গরমের সময় ঠান্ডা কালো চা পান করলে ডায়ারিয়া বন্ধ হয়ে যায়।

4 / 8
ক্যামোমাইল চা- পিরিয়ডের আগে শরীরে ব্যথা, মাথা ব্যথা, মুড সুইং ইত্যাদি কমাতে সাহায্য করে। ক্যামোমাইল চা শরীরকে নিরাময় করতে সাহায্য করে। শরীরের ইনসুলিন সংবেদনশীলতাকে কমায়, জ্বালাভাব কমায়, স্নায়ুকে রিল্যাক্স করার সুযোগ করে দেয়।

ক্যামোমাইল চা- পিরিয়ডের আগে শরীরে ব্যথা, মাথা ব্যথা, মুড সুইং ইত্যাদি কমাতে সাহায্য করে। ক্যামোমাইল চা শরীরকে নিরাময় করতে সাহায্য করে। শরীরের ইনসুলিন সংবেদনশীলতাকে কমায়, জ্বালাভাব কমায়, স্নায়ুকে রিল্যাক্স করার সুযোগ করে দেয়।

5 / 8
গ্রিন টি- দিন দুবার যদি গ্রিন টি পান করা ভাল। এতে রয়েছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ভরপুর। তাই শরীরের মধ্যে অকাল বার্ধক্যের ছাপ পড়ে না। গ্রিন টি শরীরকে ডিটক্সিফাই করতে, স্ট্রেস, উদ্বেগ কমাতে ও ক্ষতিগ্রস্ত কোষগুলিকে নিরাময় করতে সাহায্য করে। গ্রিন টি হজমশক্তি বাড়াতে, ওজন নিয়ন্ত্রণের জন্য দারুণ কাজ করে।

গ্রিন টি- দিন দুবার যদি গ্রিন টি পান করা ভাল। এতে রয়েছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ভরপুর। তাই শরীরের মধ্যে অকাল বার্ধক্যের ছাপ পড়ে না। গ্রিন টি শরীরকে ডিটক্সিফাই করতে, স্ট্রেস, উদ্বেগ কমাতে ও ক্ষতিগ্রস্ত কোষগুলিকে নিরাময় করতে সাহায্য করে। গ্রিন টি হজমশক্তি বাড়াতে, ওজন নিয়ন্ত্রণের জন্য দারুণ কাজ করে।

6 / 8
আদা  চা- প্রতিদিন আদা চা পান করলে জ্বালাভাব ও ক্লান্তিভাব কমে। আদা বিভিন্ন ওষুধ ও ঘরোয়া প্রতিকারে ব্যবহার করা হয়। দুপুরের খাবারের পর বা রাতের খাবারের পর যদি এই আদা চা খাওয়া হয়, তাহলে হজম শক্তি ও বিপাকীয় হার উন্নত করতে সাহায্য করে। এছাড়া ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। পিরিয়ডের সময় এই চা পান করলে ব্যথা ও প্রদাহ কমে। আদা চা গলা ব্যথা, জ্বর, গর্ভবস্থায় থাকাকালীন বমি বমি ভাব, মাথা ব্যথার জন্য দারুণ কার্যকরী।

আদা চা- প্রতিদিন আদা চা পান করলে জ্বালাভাব ও ক্লান্তিভাব কমে। আদা বিভিন্ন ওষুধ ও ঘরোয়া প্রতিকারে ব্যবহার করা হয়। দুপুরের খাবারের পর বা রাতের খাবারের পর যদি এই আদা চা খাওয়া হয়, তাহলে হজম শক্তি ও বিপাকীয় হার উন্নত করতে সাহায্য করে। এছাড়া ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। পিরিয়ডের সময় এই চা পান করলে ব্যথা ও প্রদাহ কমে। আদা চা গলা ব্যথা, জ্বর, গর্ভবস্থায় থাকাকালীন বমি বমি ভাব, মাথা ব্যথার জন্য দারুণ কার্যকরী।

7 / 8
পুদিনা পাতার চা- এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। যা পেশি মজবুত করতে, ব্যথা কমাতে, স্নায়ুতন্ত্র নিরাময় করতে সাহায্য করে। এই চা পান করলে সংক্রমণ ও অ্যালার্জি কমাতে সাহায্য করে। এতে রয়েছে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টিভাইরাল বৈশিষ্ট্য।

পুদিনা পাতার চা- এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। যা পেশি মজবুত করতে, ব্যথা কমাতে, স্নায়ুতন্ত্র নিরাময় করতে সাহায্য করে। এই চা পান করলে সংক্রমণ ও অ্যালার্জি কমাতে সাহায্য করে। এতে রয়েছে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টিভাইরাল বৈশিষ্ট্য।

8 / 8

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla