বাঁচাতে পারলেন না বনকর্মীরা, সুন্দরবনে মৃত্যু বাঘের

বনকর্মীরা নিজেদের হাতে বাঘটির মুখে জল দেন। কিন্তু কোনওভাবেই বাঁচানো গেল না বাঘটিকে।

বাঁচাতে পারলেন না বনকর্মীরা, সুন্দরবনে মৃত্যু বাঘের
নিজস্ব চিত্র

সুন্দরবন: ভারতের জাতীয় পশু বাঘ। রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার (Royal Bengal Tiger) গোটা বিশ্বে বিখ্যাত। ২০১৮-র গণনা অনুযায়ী দেশে এখন রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারের সংখ্যা ২,৯৬৭। স্বভাবতই সুন্দরবনে বাঘ সংরক্ষণের ব্যবস্থা রয়েছে। কিন্তু বনকর্মীরা শত চেষ্টা করেও বাঁচাতে পারলেন না সুন্দরবন ব্যাঘ্র প্রকল্পের একটি বাঘকে। সুপার সাইক্লোন ইয়াস আছড়ে পড়ায় জলে ভেসেছে গ্রামের পর গ্রাম। বন দফতরের ধারণা ইয়াসের তোড়েই অসুস্থ হয়ে গিয়েছিল ১১-১২ বছরের একটি পুরুষ বাঘ। বিগত কয়েক দিন ধরেই নজর ছিল ওই বাঘটির ওপর। কিন্তু শেষরক্ষা হল না।

বাঘটি অত্যন্ত অসুস্থ হয়ে পড়ায় রবিবার সকালে বসিরহাট রেঞ্জের হরিখালি ক্যাম্পে তাকে ওআরএস খাওয়ানো হয়। বনকর্মীরা নিজেদের হাতে বাঘটির মুখে জল দেন। কিন্তু কোনওভাবেই বাঁচানো গেল না বাঘটিকে। সজনেখালি নিয়ে যাওয়ার পথেই মৃত্যু হয় তার। সরকারি নিয়ম অনুযায়ী, সজনেখালিতে বাঘটির ময়নাতদন্ত হবে বলে জানা গিয়েছে।

বার্ধক্যজনিত কারণে মৃত্যু, না কি অন্য় কোনও কারণ তা খতিয়ে দেখবে বন দফতর। তবে বানভাসি বাদাবনে শিকার না করতে পেরে ক্রমেই দুর্বল হয়ে মৃত্যু হয়েছে বলে অনুমান বনকর্মীদের। তাঁরা প্রাণপণ চেষ্টা করেছিলেন বাঘটিকে বাঁচানোর। কিন্তু শেষরক্ষা না হওয়ায় দুঃখপ্রকাশ করেছেন তাঁরা। মুখভার পশুপ্রেমীদেরও।

আরও পড়ুন: রেকর্ড সংখ্যক বাঁধ ভেঙেছে গোসাবায়! বিডিও দফতরের ভিতরেই খেলছে জোয়ার-ভাঁটা! ব্যাহত ত্রাণ পরিষেবা

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla