Zomato : শুক্রবার থেকে বাড়ি বাড়ি আর এসব জিনিস পৌঁছে দেবে না জ়োম্যাটো!

Pilot Delivery : বিশিষ্ট গ্রসারি ডেলিভারি সংস্থা 'গ্রফারস'-এর একটি বড় অঙ্কের শেয়ার কেনার চিন্তাভাবনা করেছে জ়োম্যাটো।

Zomato : শুক্রবার থেকে বাড়ি বাড়ি আর এসব জিনিস পৌঁছে দেবে না জ়োম্যাটো!
কেন এই পরিষেবা বন্ধ করে দিচ্ছে জোম্যাটো ?

নয়াদিল্লি : ঘটা করে শুরু হয়েছিল জ়োম্যাটোর গ্রসারি ডেলিভারি পরিষেবা। চলতি বছরের জুলাই মাস থেকেই শুরু হয়েছিল। কিন্তু সেই পরিষেবা বেশিদিন টিকিয়ে রাখতে পারল না জ়োম্যাটো। এই মাস থেকেই ‘গ্রসারি ডেলিভারি’ পরিষেবা বন্ধ করে দিচ্ছে জ়োম্যাটো। ১৭ সেপ্টেম্বরের পর থেকে আর জ়োম্যাটোয় মুদিখানার বাজার করা যাবে না।

জ়োম্যাটো গ্রসারির ইউএসপি ছিল ১৫ মিনিটেই মুদিখানার বাজার বাড়ি পৌঁছে দেওয়া। কিন্তু সেই সময়সীমার মধ্যে মুদিখানা বাড়ি পর্যন্ত পৌঁছে দিতে পারছিল না সংস্থা। অনেক সময় অর্ডার নিয়ে বাতিলও করে দিতে হচ্ছিল। আর সেই কারণেই এই পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জ়োম্যাটো। সংস্থার তরফে যে সব মুদি দোকানের সঙ্গে পার্টনারশিপ রয়েছে, সেগুলিকে ইমেল করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে পরিষেবা বন্ধের বিষয়টি।

জ়োম্যাটোর এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, “আপাতত আমরা গ্রসারি পাইলট পরিষেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এখনই আমাদের অন্য কোনওরকম মুদি দোকানের পরিষেবা চালু করার পরিকল্পনা নেই।”

কিছুদিন আগেই শোনা যাচ্ছিল, বিশিষ্ট গ্রসারি ডেলিভারি সংস্থা ‘গ্রফারস’-এর একটি বড় অঙ্কের শেয়ার কেনার চিন্তাভাবনা করেছে জ়োম্যাটো। কিন্তু তারপর থেকে আর সেভাবে কিছু জানানো হয়নি সংস্থার তরফে। পরিবর্তে জ়োম্যাটো গ্রসারি পাইলট নামে নিজেদের মুদি দোকানের পরিষেবা চালু করে জ়োম্যাটো।

কিন্তু এখন জ়োম্যাটোর তরফে বলা হচ্ছে, গ্রফারস যে ১০ মিনিটে বাড়িতে ডেলিভারি পৌঁছে দেওয়ার কথা বলছে, তাতে তারা সফল। এক্ষেত্রে নিজেদের গ্রসারি ডেলিভারির থেকে গ্রফারসের শেয়ার কিনলে সংস্থা বেশি লাভবান হবে।

আর তাই ১৭ সেপ্টেম্বর থেকে গ্রসারি ডেলিভারি পাইলট বন্ধ করে দিচ্ছে জোম্যাটো। সংস্থার থেকে সংশ্লিষ্ট মুদি দোকানগুলিতে পাঠানো ইমেলে বলা হয়েছে, গ্রসারি ডেলিভারি পাইলট যতটা লাভদায়ক হবে বলে মনে করা হচ্ছিল, ততটা লাভদায়ক হয়নি।

এর আগে শোনা গিয়েছিল, গ্রফার্সের থেকে ৩ হাজার ৫০০ কোটি টাকার শেয়ার কিনতে চলেছে জ়োম্যাটো। গ্রফার্সের কাছে গ্রসারি পরিষেবা বেশ পরিচিত ময়দান। যথেষ্ট সফল। আর সেই কারণেই নিজেদের তুলনামূলক কম লাভদায়ক ব্যবসা তুলে দিয়ে গ্রফার্সের সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধার পরিকল্পনা করছে জ়োম্যাটো।

আর এই গ্রফার্স – জ়োম্যাটো চুক্তির কথা এর আগেও একাধিকবার শোনা গিয়েছে। জ়োম্যাটো এর আগেও গ্রফার্সে বিনিয়োগ করেছিল। ১০০ কোটি ডলারের বিনিয়মে সংস্থার সেইসময় ৯.৩ শতাংশ শেয়ার কিনেছিল জ়োম্যাটো।

করোনাকালে এই ধরনের অনলাইনে মুদিখানার বাজার করার প্রবণতা বেড়েছে মানুষের মধ্যে। বিশেষ করে লকডাউন পর্বে যেভাবে কড়াকড়ি করা হয়েছিল, তাতে অনেক অফিস কর্মচারীই, যাঁরা স্বামী-স্ত্রী উভয়েই কাজ করেন, তাঁরা সময় মতো বাড়ি থেকে বেরোতে পারছিলেন না মুদিখানার বাজার করতে। সেই দুশ্চিন্তা থেকে তাঁদের মুক্তি দিয়েছে এই ধরনের অনলাইন সংস্থাগুলি।

আরও পড়ুন : শেয়ার বিক্রির পরিকল্পনা ইন্ডিগোর, ডিসেম্বরেই পুরো দমে চালু হতে পারে অন্তর্দেশীয় পরিষেবা

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla