PUBG Maker Lawsuit Against Garena: পাবজি-র সবকিছু কপি করা হয়েছে ফ্রি ফায়ার গেমে! গরিনা-র বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করল ক্রাফ্টন

গরিনা- দুই জনপ্রিয় গেম অর্থাৎ ফ্রি ফায়ার এবং ফ্রি ফায়ার ম্যাক্স, এই দুটি গেমকে নিয়েই আপত্তি রয়েছে পাবজি-র পাবলিশার সংস্থা ক্রাফ্টন-এর। অভিযোগ, এই দুটি গেমই পিসি এবং কনসোলের জন্য় পাবজি গেম থেকে কপি করা হয়েছে।

PUBG Maker Lawsuit Against Garena: পাবজি-র সবকিছু কপি করা হয়েছে ফ্রি ফায়ার গেমে! গরিনা-র বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করল ক্রাফ্টন
ফ্রি ফায়ার ও পাবজি ব্যাটলগ্রাউন্ডস

গরিনা-র (Garena) বিরুদ্ধে মামলা করল পাবজির ডেভেলপার সংস্থা ক্রাফ্টন (Krafton)। গরিনা- দুই জনপ্রিয় গেম অর্থাৎ ফ্রি ফায়ার এবং ফ্রি ফায়ার ম্যাক্স (Free Fire And Free Fire Max) – মূলত এই দুটি গেমকে নিয়েই আপত্তি রয়েছে পাবজি-র পাবলিশার সংস্থা ক্রাফ্টন-এর। অভিযোগ, এই দুটি গেমই পিসি এবং কনসোলের জন্য় পাবজি গেম (এখন যার নাম পাবজি: ব্যাটলগ্রাউন্ডস) থেকে কপি করা হয়েছে। প্রসঙ্গত, গরিনা ফ্রি ফায়ার এবং গরিনা ফ্রি ফায়ার ম্যাক্স এই দুটি গেমই গুগল প্লে স্টোর এবং অ্যাপল অ্যাপ স্টোর থেকে ডাউনলোডের জন্য উপলব্ধ। পাবজি মোবাইলের মতোই একই ফ্রি মডেল ব্যবহার করে গরিনা-র এই দুই গেম। সম্পূর্ণ বিনামূল্যে গেমপ্লে অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করতে পারেন প্লেয়াররা। আবার স্কিন, ইমোট এবং অন্যান্য একাধিক পার্কের জন্য ইন-অ্যাপ পারচেজ় করতে হয় প্লেয়ারদের।

সংবাদমাধ্যম দ্য ভার্জ-এর একটি রিপোর্টে ক্রাফ্টন-কে উদ্ধৃত করে বলা হয়েছে, “ফ্রি ফায়ার এবং ফ্রি ফায়ার ম্যাক্স ব্যাপক ভাবে ব্যাটলগ্রাউন্ড-এর অসংখ্য দিক আলাদা ভাবে এবং একত্রে কপি করে। এমনকি ব্যাটলগ্রাউন্ড-এর কপিরাইটেড ইউনিক গেম ওপেনিং এয়ার ড্রপ ফিচার, গেমের স্ট্রাকচার, অস্ত্রের কম্বিনেশন এবং সিলেকশন, আরমোর, একাধিক ইউনিক অবজেক্ট, লোকেশন, কালার স্কিমের সমগ্রটাই, মেটিরিয়াল থেকে শুরু করে টেক্সচার, সব কিছুই কপি করা হয়েছে।”

গুগল এবং অ্যাপলকেও কোর্ট পর্যন্ত টেনেছে ক্রাফ্টন

গুগল এবং অ্যাপল-এর বিরুদ্ধেও মামলা ঠুকেছে পাবজি গেমের ডেভেলপার সংস্থা ক্রাফ্টন। অভিযোগ, ব্যাটলগ্রাউন্ড-এর কপি করা সত্ত্বেও এই গেম দুটিকে দিনের পর দিন অ্যাপল অ্যাপ স্টোর এবং গুগল প্লে স্টোরে রাখা হয়েছে। জানা গিয়েছে, ক্রাফ্টন-এর তরফ থেকে গরিনা-কে যত দ্রুত সম্ভব ফ্রি ফায়ার এবং ফ্রি ফায়ার ম্য়াক্স গেম দুটি বন্ধ করার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি আবার যত ইউটিউব ভিডিয়োতে ফ্রি ফায়ার গেমপ্লে রয়েছে, সেগুলিও গুগলকে বন্ধ করতে বলেছে পাবজি-র পাবলিশার সংস্থা ক্রাফ্টন।

এর মধ্যে আবার ইউটিউবে এমনই একটি ফ্রি-ফায়ারের ফিচার লেংথ ফিল্ম রয়েছে, যার ভিজ়ুয়াল অনেকাংশেই পাবজি ব্যাটলগ্রাউন্ডস-এর সঙ্গে মিলে গিয়েছে। যদিও গেমের সঙ্গে এই ফুল লেংথ ফিচার ছবিটির কোনও সম্পর্ক নেই। কিন্তু তাও সেটি যে ইউটিউবে রয়েছে, সেটাই মূল আপত্তির বিষয় ক্রাফ্টন-এর কাছে। যদিও ক্রাফ্টন-এর চাহিদার কোনওটিই মেনে নেয়নি গরিনা। পাবজি ব্যাটলগ্রাউন্ডস থেকে ফ্রি ফায়ার এবং ফ্রি ফায়ার ম্যাক্স কপি করার প্রতিটি দাবিই সম্পূর্ণ ভাবে নস্যাৎ করে দেওয়া হয়েছে গরিনা-র তরফে। এমনকি প্লে স্টোর এবং অ্যাপ স্টোরে দুটি গেমই এখনও বহাল তবিয়তেই রয়েছে।

ফ্রি ফায়ার এবং ফ্রি ফায়ার ম্যাক্স দুটি গেমই ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এদের আসল গেমটি অর্থাৎ ফ্রি ফায়ার টাইটেল ২০২১ সালে ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় গেমিং অ্যাপ হিসেবে উঠে আসে। এদিকে ফ্রি ফায়ার-এর এই দুই গেমের কারণে বিগত কয়েক মাসে বিপুল পরিমাণ অর্থ রোজগার করেছে গরিনা। ২০২১ সালে কেবল মাত্র ফ্রি ফায়ার একাই ৪১৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার রোজগার করেছে বলে অ্যাপফিগারস-এর পরিসংখ্যান তুলে ধরে দ্য ভার্জ তার রিপোর্টে প্রকাশ করেছিল খুব সম্প্রতি। অন্য দিকে পাবজি মোবাইল, পাবজি মোবাইল লাইট, পাবজি মোবাইল চায়না এবং ব্যাটলগ্রাউন্ডস মোবাইল ইন্ডিয়া মিলিয়ে ক্রাফ্টন-এর রোজগার ২০২১ সালে ৬৩৯ মার্কিন ডলার।

আরও পড়ুন: বিশ্বের দ্রুতগামী ইলেকট্রিক গাড়ি এবার পাবজি নিউ স্টেট গেমে

আরও পড়ুন: লঞ্চের চার বছর পর ফ্রি টু প্লে মডেল পেল পাবজি ব্যাটলগ্রাউন্ডস, এবার বিনামূল্যেই গেমটি খেলা যাবে, আর কী সুবিধা?

আরও পড়ুন: পাবজি নিউ স্টেটে নতুন চ্যালেঞ্জ! জিতলেই ১০০টি চিকেন মেডেল, কী ভাবে অংশ নেবেন?

Related News

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla