অবিলম্বে ‘এক দেশ এক রেশন কার্ড’ চালু করতে হবে বাংলায়, কোনও অজুহাত শুনব না: সুপ্রিম কোর্ট

শীর্ষ আদালতের স্পষ্ট নির্দেশ, "এক বা একাধিক সমস্যা দেখানো যাবে না। এটা পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য করা হচ্ছে।" সুপ্রিম কোর্টে একে বড় ধাক্কা হিসেবেই দেখছে রাজনৈতিক মহল।

অবিলম্বে 'এক দেশ এক রেশন কার্ড' চালু করতে হবে বাংলায়, কোনও অজুহাত শুনব না: সুপ্রিম কোর্ট
ফাইল চিত্র

নয়া দিল্লি: গোটা দেশের মতো পশ্চিমবঙ্গেও অবিলম্বে ‘এক দেশ এক রেশন কার্ড’ চালু করার নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। শুক্রবার সুপ্রিম কোর্ট নির্দেশ দিয়েছে, কোনও অজুহাত শোনা হবে না। এখনই এক দেশ এক রেশন কার্ড নীতি চালু করতে হবে পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে। শীর্ষ আদালতের স্পষ্ট নির্দেশ, “এক বা একাধিক সমস্যা দেখানো যাবে না। এটা পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য করা হচ্ছে।” সুপ্রিম কোর্টে একে রাজ্যের বড় ধাক্কা হিসেবেই দেখছে রাজনৈতিক মহল।

বিগত কয়েকমাস ধরেই ‘এক দেশ এক রেশন’ কার্ড নিয়ে আপত্তির কথা জানিয়ে এসেছে রাজ্য সরকার। যদিও এ দিন শীর্ষ আদালতে কোনও যুক্তি ধোপে টেকেনি। অতিমারির সময়ে রাজ্য সরকার এই বিষয়টি নিয়ে কোনও আপত্তি খাড়া করতে পারবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে আদালত। বিশ্লেষকদের মতে, পশ্চিমবঙ্গও এক দেশ এক রেশন কার্ড চালু হয়ে গেলে রেশন বণ্টনের ক্ষেত্রে রাজ্যের ভূমিকা অনেকটাই গৌণ হয়ে যাবে। কেন্দ্রীয় সরকারের রেশন প্রত্যক্ষভাবে পৌঁছে যাবে প্রাপকদের ঘরে।

আরও পড়ুন: ‘চাটনি’ থেকে সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি, কেমন কাটল মুকুলের ৪ বছরের পদ্মাবাস?

ইতিমধ্যেই দেশের ৩৪টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ‘ওয়ান নেশন ওয়ান রেশন কার্ড’ প্রকল্প চালু করা হয়েছে। শুধুমাত্র দিল্লি, অসম ও পশ্চিমবঙ্গে এই প্রকল্প চালু হওয়া বাকি। এ রাজ্যেও এক দেশ এক রেশন কার্ড প্রকল্প চালু হলে বাংলার কোনও পরিযায়ী শ্রমিক দেশের অন্য যে কোনও রাজ্যে নিজের অংশের রেশন তুলতে পারবেন। ফলে রেশন সংগ্রহ করা আরও সহজ হয়ে যাবে। মূলত সেই কথা মাথায় রেখেই সুপ্রিম কোর্টের এই পদক্ষেপ।

আরও পড়ুন: তৃণমূল ভবনে মুকুল, ‘বিজেপিতে লবিবাজি’ নিয়ে বিস্ফোরক পোস্ট অনুপম হাজরার