Cholesterol: হার্টকে সুস্থ রাখতে নিয়ন্ত্রণে রাখুন কোলেস্টেরলের মাত্রা! এর জন্য কী খাবেন দেখে নিন

এইচডিএল ও এলডিএল এই দুটি কোলেস্টেরলের মাত্রা শরীরে সঠিক অনুপাতে থাকা জরুরি। যদি এলডিএল অর্থাৎ ব্যাড কোলেস্টেরলের মাত্রা বেড়ে যায় এবং এইচডিএল অর্থাৎ গুড কোলেস্টেরলের মাত্রা কমে যায়, বিপত্তি তখনই ঘটে। এর ভারসাম্যহীনতার কারণে হার্ট অ্যাটাকের মত ঝুঁকিও বেড়ে যায়। দেখে নিন, কোন খাবারের মাধ্যমে কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখবেন...

1/7
লিউটিন সমৃদ্ধ পালং শাক কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রেখে হৃদরোগে ঝুঁকি কমায়।
লিউটিন সমৃদ্ধ পালং শাক কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রেখে হৃদরোগে ঝুঁকি কমায়।
2/7
ব্যাড কোলেস্টেরল অর্থাৎ এলডিএল-এর মাত্রা কমায় রেড ওয়াইন।
ব্যাড কোলেস্টেরল অর্থাৎ এলডিএল-এর মাত্রা কমায় রেড ওয়াইন।
3/7
এলডিএল কোলেস্টেরলের মাত্রা কমানোর পাশাপাশি রক্তচাপকেও নিয়ন্ত্রণে রাখে রসুন।
এলডিএল কোলেস্টেরলের মাত্রা কমানোর পাশাপাশি রক্তচাপকেও নিয়ন্ত্রণে রাখে রসুন।
4/7
ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ আখরোট কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে এবং হার্টকে রাখে সুস্থ।
ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ আখরোট কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে এবং হার্টকে রাখে সুস্থ।
5/7
মনোনস্যাচুরেটেড ফ্যাটে সমৃদ্ধ অলিভ অয়েল কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ রাখতে সহায়ক।
মনোনস্যাচুরেটেড ফ্যাটে সমৃদ্ধ অলিভ অয়েল কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ রাখতে সহায়ক।
6/7
অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে সমৃদ্ধ ডার্ক চকোলেট এইচডিএল-এর মাত্রা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।
অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে সমৃদ্ধ ডার্ক চকোলেট এইচডিএল-এর মাত্রা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।
7/7
তিন সপ্তাহে এলডিএল কোলেস্টেরলের মাত্রা কমিয়ে দিতে সহায়ক ব্ল্যাক টি।
তিন সপ্তাহে এলডিএল কোলেস্টেরলের মাত্রা কমিয়ে দিতে সহায়ক ব্ল্যাক টি।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla