রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়

রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়

বাংলা সিনেমা জগতের জনপ্রিয় নায়িকা। অভিনয় করেছেন ওড়িয়া ছবিতে। হিন্দিতে অমিতাভ বচ্চনের বিপরীতেও অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। বিগত কয়েক বছর ধরে ছোটপর্দায় তাঁর একটি শো গ্রাম বাংলার মানুষের মুখে মুখে ফেরে। নায়িকা থেকে তিনি এখন ‘দিদি নম্বর ওয়ান’। সেই ‘দিদি নম্বর ওয়ান’ রচনা বন্দ্যোপাধ্যায় এবার রাজনীতির ময়দানে। ২০২৪ সালের লোকসভা ভোটে হুগলি কেন্দ্র থেকে তৃণমূলের প্রার্থী তিনি।

১৯৭৪ সালে কলকাতাতে জন্ম রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। বাবা-মায়ের একমাত্র সন্তান তিনি। ছোটবেলায় তাঁর নাম ছিল ঝুমঝুম বন্দ্যোপাধ্যায়। যদিও পরিচালক সুখেন দাসের নজরে আসার পর সিনেমা জগতে নতুন নামে আবির্ভাব ঘটে ঝুমঝুমের। তাঁর নাম হয় রচনা।

কলকাতাতেই পড়াশোনা শুরু রচনার। স্কুল পর্ব মিটিয়ে সাউথ সিটি কলেজে স্নাতক স্তরে ভর্তি হন তিনি। সেখানে দ্বিতীয় বর্ষে পড়ার সময়ই বেষ কয়েকটি সৌন্দর্য প্রতিযোগিতায় খেতাব জিতেছিলেন তিনি। মিস ইন্ডিয়া প্রতিযোগিতাতেও অংশ নেন। যদি ফাইনালে সেই প্রতিযোগিতা থেকে ছিটকে গিয়েছিলেন। সে সময় থেকেই সিনেমা জগতে পা দেন রচনা।

গত কয়েক বছর ধরে টেলিভিশন দুনিয়ায় বিপুল সাফল্য পেয়েছেন রচনা। তাঁর সঞ্চালনায় ‘দিদি নম্বর ১’ সুপারহিট। এমনকি, তাঁর এই শোয়ে হাজির হয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার পর থেকেই রচনার ভোটে লড়ার জল্পনা শুরু হয়েছিল বিভিন্ন মহলে। অবশেষে ২০২৪ সালের ১০ মার্চ ব্রিগেডের ‘জনগর্জন’ সভায় সেই জল্পনার অবসান হয়। হুগলি কেন্দ্র থেকে লোকসভায় তৃণমূলের প্রার্থী হিসেবে রচনার নাম ঘোষণা করেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

Read More

Rachna Banerjee: বিজয় উৎসবে যাওয়ার কথা ছিল, আচমকাই হাসপাতালে ঢুকে গেলেন রচনা, তারপরই…

TMC Rachna Banerjee: শনিবার হাসপাতালে প্রবেশ করেন রচনা। হাসপাতালের চারিদিক ঘুরে দেখেন। রোগীদের প্রশ্ন করেন, "কেমন আছেন...", কখনও বা তাঁকে দেখা যায় হাসপাতালে ভর্তি শিশুর মাথায় হাত বুলিয়ে দিতে। এরপর প্রসূতি বিভাগে গিয়ে জানতে চান ঠিক মতো পরিষেবা পাচ্ছেন কি না।

Rachna Banerjee: ‘ভাবছি ব্যাগে করে নিয়ে যাব…’, রচনার প্রশংসার পরেই জমাইষষ্ঠীতে তুঙ্গে হুগলির দইয়ের চাহিদা

Rachna Banerjee: রচনাই এবার বিজেপির লকেট চট্টোপাধ্যায়কে পরাজিত করে জিতেছেন হুগলি থেকে। এদিকে ষষ্ঠীর সকাল থেকে দেখা গেল হুগলির নানা বাজারে দইয়ের চাহিদা তুঙ্গে। অনেকেই বলছেন রচনার প্রশংসার পরেই দইয়ের কদর আরও বেড়ে গিয়েছে। মুখে হাসি ফুটেছে মিষ্টির দোকানদারদের।

Madan-Rachana: ২৯ আসন পেতেই ২৯ দম্পতিকে নিয়ে জমাইষষ্ঠীর জমকালো সেলিব্রেশন, ‘শ্বশুর-শাশুড়ির’ ভূমিকায় মদন-রচনা

Madan-Rachana: ইলিশ থেকে চিংড়ি মাছ, দই থেকে মিষ্টি, কী ছিল না এদিনের মেনুতে। সব নিজের হাতে পরিবেশন করতে দেখা যায় রচনাকে। শেষ সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মদনের প্রশংসায় পঞ্চমুখও হতে দেখা যায় তাঁকে।

Rachna Banerjee: জিতেও শান্তি নেই রচনার! একে একে পদত্যাগ করছেন তৃণমূল নেতারা, কী এমন বিপর্যয় ঘটেছে

Rachna Banerjee win Hooghly: হারের কারণ পর্যালোচনা করতে দফায় দফায় বৈঠকে বসছেন চুঁচুড়ার বিধায়ক অসিত মজুমদার। ব্যান্ডেল, দেবানন্দপুর, কোদালিয়া-১ ও ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েত এবং হুগলি-চুঁচুড়া পুরসভার কাউন্সিলরদের নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন তিনি।

Rachana Banerjee: মিমের জন্যই আরও পপুলার হয়েছেন, মানছেন রচনা! এবার কি অভিনয় ছেড়ে দেবেন?

Rachana Banerjee: লোকসভার মহারণে জয়ের পর ছোট পর্দার 'দিদি নম্বর ওয়ান' টিভি নাইন বাংলাকে জানালেন, মিমগুলি তাঁকে আরও বেশি জনপ্রিয় করে দিয়েছে। রচনা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, "মিমগুলি হয়েছিল বলে আরও বেশি পপুলার হয়ে গিয়েছি এবং ভোটবাক্সে ভোটটাও পড়েছে। মিমগুলি মানুষের মধ্যে খুব একটা পরিবর্তন আনতে পারেনি।"

Rachana Banerjee: ‘যা হবে, হাসিমুখে মেনে নেব’, কতজন তাঁকে ভোট দিয়েছেন নিশ্চিত নন রচনা

Lok Sabha Election: গণনাকেন্দ্র পরিদর্শনের পর ছোট পর্দার দিদি নম্বর ওয়ান নিজের প্রচারের উপর ভরসা রেখেও বললেন, 'ভোটবাক্স কথা বলবে। আর কিছুটা ওপরওয়ালার হাতও আছে।' পাশাপাশি রচনা এও বললেন, 'যা হবে, আমি হাসি মুখে মেনে নেব। সবার উপর মানুষ সত্য, তাহার উপর নাই।'

Locket on Rachna Banerjee: ‘এক-দেড় বছর আগে খবর এসেছিল…’ রচনা সম্পর্কে বিস্ফোরক দাবি লকেটের

Locket on Rachna Banerjee: ধনিয়াখালি নিয়ে লকেটের কিছু অভিযোগ রয়েছে। তাঁর দাবি, সেখানে বাইরে থেকে লোক এসে ভোট দিচ্ছিল, এলাকার ভোটাররা ভোট দিতে পারেননি। সেই বুথ পরিদর্শনেও গিয়েছিলেন লকেট। এদিন ভোট চলাকালীন ধনিয়াখালিতে তৃণমূল বিধায়ক অসীমা পাত্রের সঙ্গে লকেটকে বাক-বিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়তে দেখা যায়।

Rachna Banerjee: ‘ডিএম ম্যাডাম, আমি রচনা বলছি…’, শেষবেলায় হাজির হয়ে কী অভিযোগ তুললেন

Rachna Banerjee: শেষবেলায় একটি বুথে পৌঁছেই ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুললেন রচনা। একটি বুথে বারবার ইভিএম বিকল হয়ে যাচ্ছে, এমনই অভিযোগ তোলেন তিনি। রচনার সঙ্গে এদিন উপস্থিত ছিলেন এলাকার বিধায়ক অসিত মজুমদার।

Rachana Banerjee: ভোটের ঠিক মুখেই চুঁচুড়ায় অডিশন! রচনার রিয়েলিটি শো ঘিরে তুমুল বিতর্ক হুগলিতে

Rachana vs Locket: চুঁচুড়ার রবীন্দ্রনগরে দেবীদাসতলার একটি স্টুডিওতে সকাল থেকে ভিড়। লাইন দিয়ে নাম নথিভুক্ত করছেন মহিলা। অভিযোগ, রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি দিয়ে 'অডিশন চলছে' বলে হোর্ডিং লাগানো হয়েছে। উল্লেখ্য, হুগলি লোকসভা কেন্দ্রের মধ্যেই পড়ে চুঁচুড়া। আর হুগলি থেকে এবার তৃণমূলের টিকিটে ভোটে লড়ছেন রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এই নিয়েই বিতর্ক দানা বেঁধেছে।

Rachna Banerjee: ‘কতদিন পর ট্রেনের টিকিট দেখলাম, বিশেষ করে শুতে ভাল লাগে’

Rachna Banerjee: চন্দননগর স্টেশনে নেমে চা পান করেন। সেখানে চন্দননগর হাসপাতালের এক চিকিৎসক রচনাকে গান শোনান। ব্যান্ডেলের বাসিন্দা কুসুম ঘরামি নামে এক মহিলা দিদি নম্বর ওয়ানের মঞ্চে গিয়েছিলেন। দিদি নম্বর ওয়ান প্রচারে আসছেন শুনে তিনিও চলে আসেন। রচনার সঙ্গে ট্রেনে ঘোরেন। নাচ করে দেখান।