TMC MLA: ব্লক সভাপতি পরিবর্তন করতে হবে, মমতার কাছে কাতর আর্জি বিধায়কের

TMC MLA: আব্দুল করিম চৌধুরী বারবারই ইসলামপুরের ব্লক তৃণমূল সভাপতি পরিবর্তন করার দাবি জানিয়েছিলেন। কিন্তু, পুনরায় ইসলামপুর ব্লক তৃণমুলের সভাপতি হিসেবে জাকির হোসেনকেই বহাল রাখা হয়।

TMC MLA: ব্লক সভাপতি পরিবর্তন করতে হবে, মমতার কাছে কাতর আর্জি বিধায়কের
TV9 Bangla Digital

| Edited By: জয়দীপ দাস

Aug 16, 2022 | 10:11 PM

ইসলামপুর: ব্লক সভাপতি পরিবর্তন না করলে বড় আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিলেন ইসলামপুরের তৃণমুল বিধায়ক আব্দুল করিম চৌধুরী (Islampur Trinamool MLA Abdul Karim Chowdhury)। ব্লক সভাপতিকে সরানোর জন্য তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও (CM Mamata Banerjee) অনুরোধ করেন তিনি। যা নিয়েই জোরদার চর্চা শুরু হয়েছে জেলার রাজনৈতিক মহলে। আব্দুল করিম চৌধুরী বারবারই ইসলামপুরের ব্লক তৃণমূল সভাপতি পরিবর্তন করার দাবি জানিয়েছিলেন। কিন্তু, পুনরায় ইসলামপুর ব্লক তৃণমূলের সভাপতি হিসেবে জাকির হোসেনকেই বহাল রাখা হয়। ইসলামপুরের তৃণমুল বিধায়কের দাবি, তাতে ক্ষোভ তৈরি হয়েছে দলের অন্দরে। জাকিরের জায়গায় তাঁর বড় ছেলে মেহেতাব হোসেনকে তৃনমুলের ব্লক প্রেসিডেন্ট করার দাবি জানিয়েছিলেন তিনি।  

আব্দুল করিম চৌধুরীর দাবি, “ইসলামপুরের গ্রাম বা শহর এলাকার মানুষ জাকিরকে ভাল নজরে দেখেন না। জাকির আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে চলাফেরা করে জন্য তাঁকে সবাই ভয় পায়, আতঙ্কে থাকে।” মঙ্গলবার উত্তর দিনাজপুরে তাঁর বাসভবন গোল ঘরে সাংবাদিক সম্মেলন করে দলীয় নেতৃত্বের বিরুদ্ধে রীতিমতো ক্ষোভ প্রকাশ করে আব্দুল করিম চৌধুরী বলেন, “রাজ্য নেতৃত্বরা এ ধরনের অত্যাচার করবেন এটা তো ঠিক হয়নি। মমতাদি প্লিজ আপনি এটা রিভিউ করান। রিভিউ করে এই লোকটাকে সরান। নাহলে ইসলামপুরে আন্দোলন শুরু হবে। আমি গ্রামে গ্রামে বলব এই পুরো টিমকে আমরা মানছি না, মানব না। আমাদের ব্লকের কোনও মানুষ এদের মানবে না। বিধায়কের সুপারিশে যিনি দায়িত্ব পাচ্ছেন তাঁকে নিয়ে আমরা চলব। সেই নেত্বত্ব দেবে ইসলামপুরের ব্লকে। আমি মমতা দিদির কাছে আবেদন করব যাতে গোটা ব্লক সংগঠনটিকে রিভিউ করার জন্য। মেহেতাব ব্লক প্রেসিডেন্ট বানিয়ে দেওয়ার জন্য বলব।” 

এখানেই না থেমে তিনি আরও বলেন, “সমস্ত এলাকার মানুষ আমার সঙ্গে আছে। ৩৭ হাজার রেকর্ড ভোটে জিতেছিলাম। আমি সন্ত্রাস করে নির্বাচন করিনা। আমি ১১ বার জিতেছি। আমি কোনও জায়গায় টাকা পয়সা দিয়ে ভোট কিনিনি। ঝামেলা করে ভোটে জিতিনি। আমি হিংসার মধ্যে যায়নি। বুথ ক্যাপচার করিনি। সাধারণ মানুষের ভোট আর সংগঠনের কর্মীদের পরিশ্রমের বলেই আমরা জিতেছি।” ব্লক সভাপতির বিরুদ্ধে একগুচ্ছ অভিযোগ নিয়ে তিনি দলের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন বলে জানিয়েছেন আব্দুল করিম চৌধুপী। কিন্তু তারপরেও কোনওরকম হয়নি বলে দাবি তাঁর। 

অন্যদিকে বর্তমান ব্লক সভাপতি জাকির হোসেন বলেন, “আমি আমার সম্বন্ধে কিছু বলতে চাইনা। কেউ যদি কাউকে গাল দিয়ে সন্তুষ্ট হয় আমার কিছু বলার নেই। দল আগেই ঘোষণা করেছিল সবদিক বিবেচনা করেই এবার সকলকে দায়িত্ব দেওয়া হবে। দল যদি তদন্ত করে পায় তিনি সঠিক লোক নয় তবে তাঁকে সরিয়ে দেওয়া যাবে। আমাকে দল সবদিক বিচার করেই দায়িত্ব দিয়েছি। পঞ্চায়েত নির্বাচন থেকে বিধানসভা নির্বাচন, লোকসভায় আমরা তৃণমূলকে শক্তিশালী করতে পেরেছি। আগামীদিনেও নিষ্ঠাবান কর্মী হিসাবে কাজ করব। ”

জাকির হোসেনর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করে তৃণমূলের জেলা সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়াল বলেন, “উনি কোনও সন্ত্রাসের সঙ্গে যুক্ত নন। এটা একটা মিথ্যা অভিযোগ। যেহেতু উনি চাইছেন ওনার ছেলেকে ব্লক সভাপতি করা হোক, তাই এ ধরনের একটা অভিযোগ করছেন। এখানের অঞ্চলগুলিতে ঘুরলেই বোঝা যাবে ভাল দক্ষ সংগঠক কে।”

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla